ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটিতে পড়াশোনা

রেগুলার এবং এক্সিকিউটিভ এমবিএ

প্রকাশ: ০৭ ডিসেম্বর ২০১৭      

ফারজানা আক্তার

একটি প্রত্যয় নিয়ে ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটির যাত্রা শুরু হয়েছিল। সেই প্রত্যয়টি ছিল আন্তর্জাতিক মানের শিক্ষায় শিক্ষিত জনবল তৈরি ও সঠিক দিকনির্দেশনার মাধ্যমে দক্ষ মানবসম্পদ তৈরি করা। বিশ্বায়নের জোয়ারে প্রতিনিয়তই পাল্টে যাচ্ছে বৈশ্বিক প্রেক্ষাপট। বিশেষ করে জ্ঞান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিনির্ভর শিক্ষা ব্যবস্থা ও এর উপযোগিতা সময়ের সঙ্গে পরিবর্তিত হওয়ার ফলে সেই পরিস্থিতির সঙ্গে দ্রুত খাপ খাইয়ে নিতে হচ্ছে শিক্ষার্থীদের। আমরাও এর বাইরে নই। আমাদের অর্থনীতির আকার দিন দিন প্রসারিত হচ্ছে। সে সঙ্গে যোগাযোগ বাড়ছে বহির্বিশ্বের সঙ্গে। গতি এসেছে অভ্যন্তরীণ ব্যবসা-বাণিজ্যে। ফলে চাহিদা বেড়েছে ব্যবসা ও বাণিজ্য-সংক্রান্ত পড়াশোনার। তাই যুগের দাবি হয়ে দাঁড়িয়েছে এমবিএ ডিগ্রি। প্রশাসন ও ব্যবস্থাপনা-সংক্রান্ত সব যোগ্যতা অর্জিত হয় এ ডিগ্রি গ্রহণের মাধ্যমে। এই ডিগ্রিধারীদের চাকরির ক্ষেত্র প্রসারিত হচ্ছে খুব দ্রুত। যেমন : ব্যাংক, বীমা, এয়ারলাইন্স, টেলিকম, রিয়েল এস্টেট কোম্পানি, সরকারি-বেসরকারি সংস্থাসহ সব প্রাইভেট কোম্পানি ও এর করপোরেট অফিসগুলোয় এক্সিকিউটিভ ও ম্যানেজারিয়াল পোস্টগুলোতে চাকরির শর্ত হিসেবে শিক্ষার্থীরা এই ডিগ্রি অর্জনের পেছনে ছুটছে। এমবিএ হলো মাস্টার্স অব বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন। বাণিজ্য অনুষদের অধীনে এমবিএ পড়ানো হলেও এটি মূলত মাল্টিডিসিপিল্গনারি একটি কোর্স। ব্যবসা বা প্রতিষ্ঠান পরিচালনার জন্য যা যা প্রয়োজন তার সবকিছুই পড়ানো হয় এতে। যে বিষয়গুলোয় এমবিএ করা যায়, তার মধ্যে আছে- ফিন্যান্স, ব্যাংকিং, বিপণন, ব্যবস্থাপনা, হিসাবরক্ষণ, মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা, পর্যটন ও হোটেল ব্যবস্থাপনা ইত্যাদি। এ ক্ষেত্রে সাধারণত একটি বিষয়কে মেজর বা প্রধান হিসেবে বেছে নিতে হয়। মেজর কোর্সটিকে প্রাধান্য দিয়ে পড়ানো হয় আরও নানা বিষয়। সাধারণত এমবিএ পড়ার জন্য দুই ধরনের প্রোগ্রাম আছে। রেগুলার এমবিএ এবং এক্সিকিউটিভ এমবিএ। নিয়মিত শিক্ষার্থীদের জন্য রেগুলার এমবিএ ও চাকরিজীবীদের কথা চিন্তা করে এক্সিকিউটিভ এমবিএ এর কোর্স ডিজাইন করা হয়। রেগুলার এমবিএতে সাধারণত ৬৬ ক্রেডিট এবং এক্সিকিউটিভ এমবিএতে ৪৮ ক্রেডিট সম্পন্ন করতে হয়।ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটির এমবিএ কোর্সের শিক্ষকরা পিএইচডি ডিগ্রিধারী। অপেক্ষাকৃত শান্ত, সুন্দর ও মনোরম পরিবেশে ক্যাম্পাস অবস্থিত।

ভর্তি সেশন : তিন সেশনে ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটিতে ভর্তি হওয়া যায়। রেগুলার এমবিএ করার জন্য শিক্ষাগত যোগ্যতা হলো নূ্যনতম ব্যাচেলর ডিগ্রি এবং এসএসসি থেকে ব্যাচেলর পর্যন্ত নূ্যনতম ৬ পয়েন্ট থাকতে হবে। এক্সিকিউটিভ এমবিএর ক্ষেত্রে শিক্ষাগত যোগ্যতা একই, তবে এর সঙ্গে দুই বছর কর্ম-অভিজ্ঞতার প্রয়োজন হবে।

যোগাযোগের ঠিকানা : বাড়ি-২৬, রোড-৫, ধানমণ্ডি, ঢাকা। ফোন :০১৭৪১৩০০০০২।

পরবর্তী খবর পড়ুন : ইংরেজি

শেয়ারবাজারে নতুন হুজুগ 'মালিকানা বদল'

শেয়ারবাজারে নতুন হুজুগ 'মালিকানা বদল'

নতুন হুজুগে মেতেছে শেয়ারবাজার। প্রায়ই শোনা যাচ্ছে, 'অমুক' কোম্পানির মালিকানায় ...

 শিক্ষাকে রাখুন রাজনীতি ও বাণিজ্যের বাইরে

শিক্ষাকে রাখুন রাজনীতি ও বাণিজ্যের বাইরে

"শিক্ষায় বৈষম্য না কমলে মানবাধিকার নিশ্চিত করা যাবে না। শিক্ষা ...

ভোটব্যাংকে ভরসা খুঁজছেন তিন মেয়র প্রার্থী

ভোটব্যাংকে ভরসা খুঁজছেন তিন মেয়র প্রার্থী

রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনের আর মাত্র ক'টা দিন বাকি। প্রার্থীরা ...

দেশে আরও ব্যাংকের প্রয়োজন রয়েছে: অর্থমন্ত্রী

দেশে আরও ব্যাংকের প্রয়োজন রয়েছে: অর্থমন্ত্রী

দেশে আরও ব্যাংকের প্রয়োজন রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল ...

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে ফ্রান্সের সহযোগিতা চান প্রধানমন্ত্রী

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে ফ্রান্সের সহযোগিতা চান প্রধানমন্ত্রী

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে মিয়ানমারের ওপর আন্তর্জাতিক চাপ অব্যাহত রাখতে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ...

বিদেশগামী কর্মীর সংখ্যা ১০ লাখ ছাড়ানোর আশা

বিদেশগামী কর্মীর সংখ্যা ১০ লাখ ছাড়ানোর আশা

জনশক্তি রফতানিতে চলতি বছর অতীতের সব রেকর্ড ভেঙে গেছে। ২০০৮ ...

ক্রিস গেইল ১৪৬: ঢাকা ১৪৯

ক্রিস গেইল ১৪৬: ঢাকা ১৪৯

ক্রিস গেইলের ব্যাট যেদিন হাসে সেদিন প্রতিপক্ষ দলগুলোকে দর্শকের আসনে ...

ঢাকাকে গুঁড়িয়ে চ্যাম্পিয়ন মাশরাফির রংপুর

ঢাকাকে গুঁড়িয়ে চ্যাম্পিয়ন মাশরাফির রংপুর

বিপিএলের পঞ্চম আসরের ফাইনাল। মুখোমুখি দুই শক্তিশালী দল ঢাকা ডায়নামাইটস ...