রোদচশমার আদ্যোপান্ত

প্রকাশ: ১৪ মার্চ ২০১৮      

ফ্যাশন অনুষঙ্গ হিসেবে সানগ্লাস আমাদের অতি প্রিয়। কিন্তু শুধু ফ্যাশনেই এর ব্যবহার সীমাবদ্ধ নয়। রোদচশমা নিয়ে লিখেছেন শায়লা শারমিন



রোদচশমার ইতিবৃত্ত

শুরুর দিকে সানগ্লাস বা রোদচশমা চোখের রক্ষাকবচ হিসেবেই ব্যবহূত হতো। সূর্যের তীব্র আলো বা উচ্চ শক্তির দৃশ্যমান আলো থেকে চোখের সুরক্ষায় এটি ব্যবহূত হতো। যাদের চোখ আলোর প্রতি সংবেদনশীল, তাদের জন্য এ ধরনের গ্লাস ছিল খুবই উপকারী। সূর্যের অতি বেগুনি রশ্মি এবং নীল আলো চোখের নানা সমস্যা তৈরি করে। এক্ষেত্রে সানগ্লাস খুবই কার্যকর। চোখের বিভিন্ন অস্ত্রোপচার যেমন- ল্যাসিকের পরে সানগ্লাস ব্যবহার বাধ্যতামূলক। ধুলার হাত থেকে চোখকে রক্ষা করতেও অনেকে সানগ্লাস ব্যবহার করেন।

কানাডার আর্কটিক অঞ্চলের লোকজন বা এস্কিমোরা সূর্যের ক্ষতিকর রশ্মি থেকে চোখের সুরক্ষায় এক বিশেষ ধরনের চশমা ব্যবহার করত। প্রাচীন রোম সাম্রাজ্য এবং ১২ শতকের চীনে বিভিন্ন কারণে এ রকম রঙিন চশমা ব্যবহারের উল্লেখ পাওয়া যায়। ১৮ শতকের মধ্যভাগে কেউ কেউ ধারণা করেছিলেন যে, নীল বা সবুজ রঙের চশমা চোখের কিছু অসুখ সারিয়ে তুলতে পারে। সেই থেকে চিকিৎসা ক্ষেত্রে রঙিন চশমা প্রচলিত ছিল।

১৯২০ সাল থেকে সিনেমার তারকাদের মাধ্যমে সানগল্গাস ব্যাপক পরিচিতি পায়। তবে মোটামুটি ১৯৪০ সাল থেকে ফ্যাশন অনুষঙ্গ হিসেবে সানগ্লাস জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। পর্যায়ক্রমে পোলারয়েড সানগ্লাস আবিস্কৃত হয়, যা বিভিন্ন কৌণিক দূরত্ব থেকে আসা আলোক রশ্মির তীব্রতা কমায়। এখন খেলোয়াড়, ডুবুরি, বৈমানিক, পর্বতারোহী প্রত্যেকের জন্যই স্পেশালাইজড সানগ্লাস পাওয়া যায়।

মুখের গড়নভেদে সানগ্লাস

১। চৌকোনা মুখ

যাদের মুখের গড়ন চৌকোনা বা স্কয়ার শেপ তাদের প্রশস্ত কপাল, চৌকোনা চিবুক এবং চোয়ালের অংশ বেশ দৃঢ় থাকে। এ ধরনের চেহারায় গোলাকার বা উপবৃত্তাকার (ওভাল) ফ্রেম খুব ভালো মানাবে। যেমন- এভিয়েটর সানগ্লাস, বাটারফ্লাই সানগ্লাস।



২। গোলাকৃতি মুখ

গোলাকৃতি বা রাউন্ড শেপের যাদের চেহারা তাদের প্রশস্ত কপাল, ভরাট গাল এবং গোল চিবুক থাকে। এ ধরনের চেহারার জন্য বেছে নিন চৌকোনা বা আয়তাকার ফ্রেম। পুরুষরা ওয়েফ্যারার সানগ্লাস এবং মেয়েরা ক্যাট-আই সানগ্লাস ব্যবহার করলে তাদের আরও আকর্ষণীয় লাগবে।



৩। উপবৃত্তাকার মুখ

যাদের উপবৃত্তাকার বা ওভাল শেপের চেহারা তাদের চিবুকের অংশ কপাল থেকে কিছুটা সরু হয়ে আসে। এ ধরনের চেহারায় সব ধরনের সানগল্গাস মানিয়ে যায়। তবে কৌণিক শেপের ফ্রেম পরলে বেশি আকর্ষণীয় লাগবে।



৪। আয়তাকার মুখ

যাদের আয়তাকার চেহারা বা শেপ তাদের মুখ বেশ লম্বাটে ও সরু ধরনের হয়। চেহারায় বেশ দৃঢ়তা থাকে। এই শেপের জন্য কৌণিক ফ্রেমের সানগ্লাস ও একটু বড় আকারের সানগ্লাস বেশি উপযোগী। যেমন- এভিয়েটর সানগ্লাস ও স্কয়ার সানগ্লাস।



৫। হীরকাকৃতি মুখ

যারা হীরকাকৃতি চেহারা বা ডায়ামন্ড শেপের অধিকারী তাদের গালের অস্থির তুলনায় চোখ ও চোয়ালের অংশ বেশ সরু হয়ে থাকে। তাই এমন ফ্রেমের সানগ্লাস ব্যবহার করা উচিত, যা চোখ ও গালের অস্থির মধ্যে সামঞ্জস্য রাখবে। পুরুষরা র‌্যাপ-অ্যারাউন্ড সানগল্গাস ও মেয়েরা এভিয়েটর সানগল্গাস ব্যবহার করলে তাদের আরও আকর্ষণীয় লাগবে।



৬। হৃদয়াকৃতি মুখ

যাদের চেহারা হৃদয় আকৃতির বা হার্ট শেপ তাদের কপাল ও গালের অংশের তুলনায় চোয়ালের অংশ ও চিবুক বেশ সরু হয়ে থাকে। এ ধরনের চেহারাকে ত্রিভুজাকৃতি বা ট্রায়াঙ্গেল শেপও বলে। এ ধরনের চেহারায় এমন ফ্রেমের সানগ্লাস ব্যবহার করা উচিত, যার ওপরের অংশের তুলনায় নিচের অংশ বেশ সরু। যেমন- বাটারফ্লাই, রিমলেস বা এভিয়েটর সানগ্লাস।



সানগ্লাসে চলতি ফ্যাশন

ঘুরেফিরে আগের ফ্রেমগুলোই নতুনভাবে উপস্থাপিত হচ্ছে। সঙ্গে যোগ হয়েছে ম্যাট্রিক্স বা সাই-ফাই ঘরানার কিছু ফ্রেম। লাল, হলুদ, কমলা, নীল, বেগুনি বা সবুজ রঙের লেন্সের সঙ্গে ফ্যাশনেবল প্লাস্টিক ফ্রেম আছে। ওভারসাইজড ফ্রেমে এসেছে ভিন্নতা। ক্রস এভিয়েটর ফ্রেম, এক্সট্রিম ক্যাট-আই, হেক্সাগোনাল বা ষড়ভুজাকৃতি ফ্রেম, টরট্যায়-শেল ফ্রেম, ডাবল ওয়্যার রিম, কোপা সানগ্লাস এবার ভিন্নতা আনবে।

তবে চলতি বছরে ওভারসাইজড ফ্রেমেরই প্রাধান্য থাকবে, সঙ্গে থাকবে ৯০-এর কিছু ফ্যাশান ফ্রেম ও মিক্সড ভিনটেজ ফ্রে।



মডেল : রুমা ও আজম; ছবি : আরমান হোসেন বাপ্পি



দরদাম

ব্র্যান্ড, লেন্স এবং ডিজাইনের ওপর সানগ্লাসের দাম নির্ভর করে। নন-ব্র্যান্ডের সানগ্লাস ২৫০-১৫০০ টাকার মধ্যে পাবেন। এই দামের রেঞ্জে অনেক ব্র্যান্ডের কপি করা সানগ্লাসও পাবেন। ব্র্যান্ডের সানগ্লাসের জন্য সর্বনিম্ন ২০০০ থেকে সর্বোচ্চ ৭০০০০ বা তার বেশিও খরচ করতে হতে পারে।

তবে সানগ্লাস কেনার সময় একটু ভালো মানের লেন্স দেখেই কেনা উচিত। তাই রাজধানীর প্রসিদ্ধ বিপণিবিতানগুলো থেকেই কেনা ভালো। তা ছাড়া বিশ্বস্ত অনলাইন শপিং সাইট থেকেও কিনে নিতে পারেন মনের মতো সানগ্লাস।

পরবর্তী খবর পড়ুন : আলোকচিত্র প্রদর্শনী

বরিশালে গ্রিনলাইন-৩ বিকল

বরিশালে গ্রিনলাইন-৩ বিকল

বরিশাল-ঢাকা নৌপথের ওয়াটার ওয়েজ গ্রিনলাইন-৩ বিকল হয়ে পড়েছে। এতে করে ...

গণগ্রেফতার বন্ধের দাবি হাসান সরকারের

গণগ্রেফতার বন্ধের দাবি হাসান সরকারের

গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ভোটের পরিবেশ নির্বিঘ্ন করতে গণগ্রেফতার বন্ধের ...

দুর্দান্ত এক গোলে এগিয়ে গেল নাইজেরিয়া

দুর্দান্ত এক গোলে এগিয়ে গেল নাইজেরিয়া

ভোলগোগ্রাদে শুক্রবার রাত ন'টার ম্যাচে নাইজেরিয়ার জয় আর আইসল্যান্ডের হার ...

জিততে গিয়ে বদনাম যেন না হয়: প্রধানমন্ত্রী

জিততে গিয়ে বদনাম যেন না হয়: প্রধানমন্ত্রী

স্থানীয় সরকারের নির্বাচনসহ সংসদের উপনির্বাচনগুলোকে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে অনুষ্ঠানে ...

বরিশাল থেকে ১৭ রুটে বাস ধর্মঘট চলছে

বরিশাল থেকে ১৭ রুটে বাস ধর্মঘট চলছে

ঝালকাঠি জেলা বাস মালিক সমিতির সঙ্গে বরিশাল, পটুয়াখালী ও বরগুনা ...

রাষ্ট্রপতিকে নন-এমপিও শিক্ষকদের স্মারকলিপি

রাষ্ট্রপতিকে নন-এমপিও শিক্ষকদের স্মারকলিপি

প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক নন-এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের দাবিতে রাষ্ট্রপতি ...

নেইমারের এক গোলে দুই রেকর্ড

নেইমারের এক গোলে দুই রেকর্ড

রাশিয়া বিশ্বকাপে শুক্রবার সেন্ট পিটার্সবার্গে কোস্টারিকার বিপক্ষে জয়টা ছিনিয়ে এনেছে ...

ফতুল্লায় ব্রাজিল সমর্থকদের সঙ্গে খেলা দেখলেন রাষ্ট্রদূত

ফতুল্লায় ব্রাজিল সমর্থকদের সঙ্গে খেলা দেখলেন রাষ্ট্রদূত

ব্রাজিলের 'ফ্যান কার্ড' নিয়ে প্রিয় দলের খেলা দেখতে এরই মধ্যে ...