'ব্যালন ডি'অর নয় বিশ্বকাপ চাই'

প্রকাশ: ১২ জুলাই ২০১৮      

স্পোর্টস ডেস্ক

ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকে আইকন মানতেন। এখন মানেন কি-না কে জানে। এরই মধ্যে রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে জুভেন্তাসে যোগ দিয়েছেন সিআর সেভেন। গুঞ্জন আছে কিলিয়ান এমবাপ্পের দলবদল নিয়েও। তিনি নাকি লস ব্লাঙ্কোস ক্লাবটিতে রোনালদোর শূন্যস্থানটা পূরণ করতে আসবেন। এমন কিছু হলে এমবাপ্পে হয়তো আরও বেশি উচ্ছ্বসিত হতেই পারেন। কারণ যাকে দেখে ফুটবলে মন দেওয়া, তার আসনটায় নিজে বসতে পারলে স্বপ্ন ধরাটা না জানি আরেকটু সহজ হয়ে যাবে ফরাসি সেনসেশনের জন্য। এরই মধ্যে রাশিয়া বিশ্বকাপে আলো ছড়িয়ে কেড়েছেন সবার নজর। গত মঙ্গলবার সেমিফাইনালে বেলজিয়ামকে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছে তার দল ফ্রান্স। দারুণ এই অর্জনের সঙ্গী হতে পেরে গর্বিত এমবাপ্পে। তবে এবার অবশিষ্ট কাজটা শেষ করতে চান। তার কাছে বিশ্বকাপ সবার আগে, ব্যালন ডি'অর নয়, 'আমি বিশ্বকাপটা জিততে চাই। ব্যালন ডি'অর নিয়ে ভাবছি না।'

শৈশব থেকেই এমবাপ্পে হিরো। পাড়ার ক্লাবগুলো নিয়মিত মাতিয়ে বেড়াতেন। তাতে ফ্রান্স ফুটবলে জায়গা নিতে তার খুব বেশি দিন অপেক্ষা করতে হয়নি। ২০১৪ সালে অনূর্ধ্ব ১৭ দলের পর ২০১৬ সালে উনিশ দলে নাম লেখান। সেখানে সবাইকে চমকে দেন এমবাপ্পে। এর এক বছর পরই তাকে জাতীয় দলে টানে সাবেক বিশ্বচ্যম্পিয়নরা। রাশিয়া বিশ্বকাপকে সামনে রেখে দিদিয়ের দেশমের আক্রমণভাগের অন্যতম অস্ত্র এখন এমবাপ্পে। শেষ ষোলোতে আর্জেন্টিনাকে হারিয়ে কোয়ার্টারের টিকিট কাটতে তার অবদান ছিল অনেকটা। ১৯ বছর বয়েসে জোড়া গোল করে ব্রাজিল কিংবদন্তি পেলের পাশে বসেন তিনি। অথচ এই এমবাপ্পে বিশ্বকাপের স্বপ্নটা দেখতেন ছোটবেলা থেকে। একদিন দেশের হয়ে বিশ্বকাপ জিতবেন সেটা ছিল তার এত দিনের লালিত স্বপ্ন, 'এটা সত্যিই বিশ্বাস হচ্ছে না। একটা সময় স্বপ্ন দেখতাম বিশ্বকাপের। এবার মনে হচ্ছে সে দিকেই যাচ্ছি। আসলে এই অনুভূতিটা ভাষায় প্রকাশ করা যায় না।'

১৯৯৮ বিশ্বকাপে জিনেদিন জিদানরা ফ্রান্সকে প্রথম বিশ্বকাপটা উপহার দেন। সে থেকে কেটে গেছে কুড়ি বছর। এবার যখন অনেকটা পথ ফাড়ি দিয়েছে ফরাসিরা, বাকি থাকা আরেকটি ধাপও টপকাতে চায়। অবশ্য কোনোক্রমে যদি কাঙ্ক্ষিত শিরোপাটা অধরা থেকে যায়, তাহলে খুব একটা আফসোস লাগবে না এমবাপ্পের, 'এখনও একটা ধাপ বাকি। সেটা উতরে যাওয়ার আশায়ই আছি। তবে না হলেও তেমন একটা হতাশ হওয়ার কিছু নেই। আমরা যতদূর এসেছি তাতেই সন্তুষ্ট।'

বেলজিয়ামকে হারানোর পর ড্রেসিংরুমে বেশ মজা করে দিদিয়ের দেশমের শিষ্যরা। সেখানে যোগ দেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল মাক্রোন। সবার সঙ্গে তিনিও উদযাপন আনন্দে মাতেন। দিনটা চমৎকার কেটেছে এমবাপ্পেদের, 'ম্যাচ শেষে ড্রেসিং রুমে আমরা সবাই সেলিব্রেশন করি। কোচ দেশম খুবই আনন্দিত। আমরা সবাই খুশি। ফ্রান্স প্রেসিডেন্টও আসেন আমাদের খোঁজ-খবর নিতে। একপর্যায়ে তিনিও আমাদের উদযাপনে শামিল হন। সবাই আমাদের পাশে, আশা করি সবাই মিলে শেষটা রাঙাতে পারব।'

ফাইনালের আগে ফ্রান্স হাতে পেল চার দিন। সময়টা একেবারে কম নয়। এই সময়ের মধ্যে নিজেদের ভালোভাবে ঝালিয়ে নেওয়ার কাজটাই হয়তো করবেন দেশম। তাতে যদি আসে ফ্রান্সের দ্বিতীয় বিশ্বকাপ!
কোটি টাকায় কেনা দীর্ঘশ্বাস

কোটি টাকায় কেনা দীর্ঘশ্বাস

ধানমণ্ডিতে সুপরিসর একটি ফ্ল্যাট কেনার উদ্যোগ নিয়েছিলেন ব্যবসায়ী আহাদুল ইসলাম। ...

বিএনপির জনসভায় আমন্ত্রণ পাচ্ছে না জামায়াত

বিএনপির জনসভায় আমন্ত্রণ পাচ্ছে না জামায়াত

বিএনপির বৃহস্পতিবারের সম্ভাব্য জনসভায় ২০ দলের শরিক জামায়াতে ইসলামীকে কৌশলগত ...

প্রধানমন্ত্রীর ফ্লাইটের ক্রুর মাদক সেবন

প্রধানমন্ত্রীর ফ্লাইটের ক্রুর মাদক সেবন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ফ্লাইটের এক কেবিন ক্রুর মাদক সেবন ও ...

দুদককে পঙ্গু করতে চায় একটি মহল

দুদককে পঙ্গু করতে চায় একটি মহল

দুর্নীতি দমন কমিশনকে (দুদক) একটি অথর্ব প্রতিষ্ঠানে পরিণত করতে অপতৎপরতা ...

নিবর্তনমূলক ধারা বাতিল দাবি সাংবাদিক নেতাদের

নিবর্তনমূলক ধারা বাতিল দাবি সাংবাদিক নেতাদের

স্বাধীন সাংবাদিকতায় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করতে পারে- এমন সব ধারা-উপধারা বহাল ...

ইয়াবা কারবারিরা তবু বেপরোয়া

ইয়াবা কারবারিরা তবু বেপরোয়া

মিয়ানমার থেকে নানা কৌশলে ভিন্ন ভিন্ন রুট ব্যবহার করে সারা ...

বিপিএলের কারণে রশিদকে চেনা ইমরুলের

বিপিএলের কারণে রশিদকে চেনা ইমরুলের

হুট করেই ইমরুল কায়েস এশিয়া কাপের দলে ডাক পান। এরপর ...

মৃত ব্যক্তিকে জীবিত দেখিয়ে ব্যাংক ঋণ!

মৃত ব্যক্তিকে জীবিত দেখিয়ে ব্যাংক ঋণ!

বরিশালে মৃত ব্যক্তিকে জীবিত দেখিয়ে ব্যাংক থেকে ঋণ নেওয়ার অভিযোগ ...