জকোর '১৪'

প্রকাশ: ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

স্পোর্টস ডেস্ক

জকোর '১৪'

গভীর মমতায় বুকের মধ্যে শিরোপা আগলে রাখছেন জকোভিচ, যে শিরোপাটি তার ১৪তম যে শিরোপায় ছুঁয়েছেন পিট সাম্প্রাসকেও- এএফপি

লন্ডনে শুরু যুক্তরাষ্ট্রে শেষ! হাতের অস্ত্রোপচারের সময়টা বাদ দিলে স্বপ্নের মতো একটা বছর কাটাচ্ছেন নোভাক জকোভিচ। লন্ডনে নিজের ১৩তম শিরোপা উঁচিয়ে ধরার পর বছরের শেষ গ্র্যান্ডস্লামও শোকেসে পুরেছেন এই সার্বিয়ান তারকা। গত রোববার ফ্ল্যাশিং মিডোয় হুয়ান মার্টিন দেল পেত্রোকে ৬-৩, ৭-৬ (৭-৪), ৬-৩ গেমে পরাজিত করে ক্যারিয়ারের ১৪ নম্বর গ্র্যান্ডস্লাম জিতে নিয়েছেন জকো। একই সঙ্গে কিংবদন্তি তারকা পিট সাম্প্রাসকে স্পর্শ করেছেন তিনি। এ মুহূর্তে পুরুষ এককের তৃতীয় সর্বাধিক গ্র্যান্ডস্লামজয়ী জকোভিচ। ২০টি গ্র্যান্ডস্লাম জিতে একে আছেন সুইস সুপারস্টার রজার ফেদেরার। আর দুই নম্বরে থাকা রাফায়েল নাদালের নামের পাশে ১৭টি গ্র্যান্ডস্লাম। এই জয়ে ব্যাক টু ব্যাক চ্যাম্পিয়নেরও স্বাদ পেলেন জকোভিচ। এর আগে গেল জুলাইয়ে উইম্বলডন জিতেছিলেন। পাশাপাশি টেনিস র‌্যাংকিংয়ে তিনেও উঠে এলেন তিনি।

সর্বশেষ ২০১১ সালে ইউএস ওপেন জিতেছিলেন নোভাক। এরপর ২০১৪ সালে যুক্তরাষ্ট্রের মাটিতে দ্বিতীয় সাফল্যের দেখা পান। তিন বছর পর এবার আরেকটি শিরোপা উঠল। যার সুবাদে আরেকটি রেকর্ডে পা পড়েছে জকোভিচের। বর্তমান তারকাদের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে সর্বাধিক শিরোপা জিতেছেন ফেদেরার। পাঁচটি ট্রফি তার দখলে। এতদিন দুইয়ে ছিলেন তিনটি খেতাব জেতা নাদাল। তার সঙ্গে তালিকায় সম্মিলিতভাবে দুইয়ে ঢুকলেন জকোভিচ। এক জয়ে এতসব প্রাপ্তি সত্যিই আনন্দের। ম্যাচের পর জকো বলেন, 'সবার ভালোবাসা পেয়েছি। বিশেষ করে আমার পরিবার আমাকে খুব সাপোর্ট করেছে। যখন সার্জারি থেকে ফিরি তখনও ভাবিনি এতটা পাবো। তবে আমি কখনও হতাশ হইনি, চেষ্টা করেছি সর্বোচ্চ দিয়ে।'

নব্বই দশকের পর টেনিস কোর্ট মাতিয়েছিলেন সাম্প্রাস। ২০০২ সালের দিকে অবসর নেন যুক্তরাষ্ট্রের এই কিংবদন্তি খেলোয়াড়। রোববার রাতে তার রেকর্ডে ভাগ বসাতে পেরে উচ্ছ্বসিত জকোভিচ। একটা সময় তাকে দেখেই টেনিস শিখেছেন। জকোর পছন্দের প্লেয়ারদের মধ্যে অন্যতম সাম্প্রাস। এখনও তাকেই আইডল মানছেন, 'আমার মন বলছে সাম্প্রাস আমার কথাগুলো শুনছে। তিনি এখানেই আছেন। লাভ ইউ সাম্প্রাস। আপনি আমার আইডল।'

প্রতিপক্ষকে পেত্রোকে অভিনন্দন জানাতে ভুল করেননি জকোভিচ। তার কাছে মনে হয়েছে ফুটবলের মতোই তাদের খেলাটা উপভোগ করেছে দর্শকরা, 'আমার বিশ্বাস, সার্বিয়া-আর্জেন্টিনা ফুটবল ম্যাচে যেমন করে দর্শকরা খেলা উপভোগ করে, পেত্রো-আমার ম্যাচেও তেমন হয়েছে।'

ইউএস ওপেন দেল পেত্রোর জন্য অনেকটা লাকি টুর্নামেন্ট। ২০০৯ সালে এই প্রতিযোগিতার শিরোপা দিয়ে ক্যারিয়ারের প্রথম গ্র্যান্ডস্লাম জিতেছিলেন। এবার নাদালকে হারিয়ে ফাইনালের টিকিট কাটেন। তবে চ্যাম্পিয়ন হতে না পারলেও খুব বেশি হতাশ নন তিনি, 'এ মুহূর্তে কী বলতে হয় আমার জানা নেই। তবে ফাইনালে উঠতে পেরে খুশি। তা ছাড়া জকোর মতো স্টারের সঙ্গে খেলতে পেরে ভালো লাগছে। সে শিরোপার দাবিদার।'
দেশ সংকটে পড়লে দায়ী থাকবে আওয়ামী লীগ

দেশ সংকটে পড়লে দায়ী থাকবে আওয়ামী লীগ

চলমান রাজনৈতিক সংকট নিরসনে সংলাপে বসার দাবি প্রত্যাখ্যানকে আওয়ামী লীগের ...

নামই যখন কাল

নামই যখন কাল

রুবেল দু'জন- একজন মো. রুবেল ও অন্যজন সিটি রুবেল। মো. ...

মাকে হাসপাতালে নেওয়ার পথে ছেলেকে পিষে মারল বাস

মাকে হাসপাতালে নেওয়ার পথে ছেলেকে পিষে মারল বাস

নিরাপদ সড়ক দিবসের নানা আয়োজন চলছিল ঢাকার রাস্তায়। সড়কে যান ...

যন্ত্র জানাবে অজ্ঞাত লাশের পরিচয়

যন্ত্র জানাবে অজ্ঞাত লাশের পরিচয়

মহাখালীর আইসিডিডিআর'বি হাসপাতাল এলাকায় মুমূর্ষু অবস্থায় পড়েছিলেন এক বৃদ্ধ। বনানী ...

অপারেটরগুলোর কলড্রপের পরিসংখ্যান দিল বিটিআরসি

অপারেটরগুলোর কলড্রপের পরিসংখ্যান দিল বিটিআরসি

মোবাইল ফোন অপারেটরগুলোর এক বছরের কলড্রপের একটি পরিসংখ্যান দিয়েছে বাংলাদেশ ...

রাজনৈতিক কর্মী দমনেই গায়েবি মামলা: ফখরুল

রাজনৈতিক কর্মী দমনেই গায়েবি মামলা: ফখরুল

রাজনৈতিক কর্মী দমনেই সরকার 'গায়েবি মামলা' করছে বলে অভিযোগ করেছেন ...

অবসরের ঘোষণা দিলেন হেরাথ

অবসরের ঘোষণা দিলেন হেরাথ

টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে সবচেয়ে সফল বাঁহাতি স্পিনারদের একজন রঙ্গনা হেরাথ। ...

বর্ণাঢ্য আয়োজনে জবির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত

বর্ণাঢ্য আয়োজনে জবির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত

বর্ণাঢ্য আয়োজনে ঢাকার ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপীঠ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) প্রতিষ্ঠার ১৩ ...