এবার বাড়ল আর্থিক ও বিদ্যুৎ খাতের দর

প্রকাশ: ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

সমকাল প্রতিবেদক

সপ্তাহের শেষ দিনে গতকাল বৃহস্পতিবার ব্যাংক ও ব্যাংকবহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠান খাতের অধিকাংশ শেয়ারের দর বেড়েছে। এ ছাড়া বেড়েছে জ্বালানি ও বিদ্যুৎ, চামড়া ও চামড়াজাত পণ্য এবং সেবা ও নির্মাণ খাতের শেয়ারদর। যদিও বুধবার এসব খাতের শেয়ারদর কমেছিল সবচেয়ে বেশি। এসব খাতের বাইরে বাকি প্রায় সব খাতের অধিকাংশ শেয়ারের দর কমেছে।

গতকাল প্রধান শেয়ারবাজার ডিএসইতে বেশিরভাগ শেয়ারের দর কমেছে। ১৩৬ কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের দরবৃদ্ধির বিপরীতে ১৪৯টির দর কমেছে এবং অপরিবর্তিত ছিল ৫১টির দর। তবে ব্যাংকসহ আর্থিক খাতের অধিকাংশ শেয়ারের দরবৃদ্ধির ওপর ভর করে ডিএসইএক্স সূচক ১২ পয়েন্ট বেড়ে ৫৫৭৪ পয়েন্ট ছাড়িয়েছে।

চট্টগ্রামকেন্দ্রিক দেশের দ্বিতীয় শেয়ারবাজার সিএসইতে ছিল কিছুটা ভিন্ন চিত্র। ১১১ কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের দরবৃদ্ধির বিপরীতে এ বাজারের ১০৬ কোম্পানির শেয়ার ও ফান্ডের বাজারদর কমেছে। অপরিবর্তিত থেকেছে ৩৮টির দর। বেশিরভাগ শেয়ারের দরবৃদ্ধি পাওয়ায় স্বাভাবিকভাবে বাজারটির প্রধান সূচক সিএসসিএক্স ৪০ পয়েন্ট বেড়ে ১০৪২৬ পয়েন্ট ছাড়িয়েছে।

এদিকে টানা দ্বিতীয় দিনে দুই শেয়ারবাজারের মোট লেনদেন ৮০০ কোটি টাকা ছাড়িয়েছে। গতকাল ডিএসই ও সিএসইতে সর্বমোট ৮৫৩ কোটি টাকারও বেশি মূল্যের শেয়ার কেনাবেচা হয়েছে। এর মধ্যে ডিএসইতেই ৮১৭ কোটি ২৪ লাখ টাকার শেয়ার কেনাবেচা হয়েছে। ছয় সপ্তাহ পর লেনদেন ৮০০ কোটি টাকা ছাড়াল। ডিএসইর খাতওয়ারি লেনদেন পর্যালোচনায় দেখা গেছে, ব্যাংক খাতের ৩০ কোম্পানির মধ্যে ২০টির দর বেড়েছে, কমেছে ছয়টির দর। বাকি চারটির দর অপরিবর্তিত থেকেছে। তবে অধিকাংশ ব্যাংকের দরবৃদ্ধির হার ১ শতাংশে সীমাবদ্ধ থেকেছে। সর্বাধিক সোয়া ৪ শতাংশ দর বেড়েছে সিটি ব্যাংকের। আর ব্যাংকবহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠান খাতের ২৩ কোম্পানির মধ্যে ১৪টির দর বেড়েছে, কমেছে তিনটির, বাকিগুলোর দর অপরিবর্তিত। এ খাতের লংকাবাংলা ফাইন্যান্স ও বে-লিজিংয়ের শেয়ারদর ২ থেকে আড়াই শতাংশ বেড়েছে।

এর বাইরে ঊর্ধ্বমুখী ধারায় থাকা জ্বালানি ও বিদ্যুৎ খাতের ১৮ কোম্পানির মধ্যে গতকাল ১৩টির দর বেড়েছে। এর মধ্যে সর্বাধিক ৮ শতাংশ দর বেড়েছে সামিট পাওয়ারের। এ ছাড়া বারাকা পাওয়ারের সাড়ে ৬ শতাংশ ও খুলনা পাওয়ারের ৫ শতাংশ দর বেড়েছে। প্রকৌশল খাতের ৯ কোম্পানির দরবৃদ্ধির বিপরীতে ২৩টির দর কমেছে। একই রকম নিম্নমুখী ধারা ছিল বস্ত্র, খাদ্য ও আনুষঙ্গিক এবং টেলিযোগাযোগ খাতে।

অন্য খাতগুলোতে মিশ্রধারা দেখা গেছে। শেষ পর্যন্ত দরবৃদ্ধির শীর্ষে ছিল প্রগ্রেসিভ লাইফ, শাশা ডেনিম, নাহী অ্যালুমিনিয়াম, সামিট পাওয়ার, বারাকা পাওয়ার, অ্যাকটিভ ফাইন, ইস্টার্ন হাউজিং এবং স্ট্যান্ডার্ড সিরামিক। শেয়ারগুলোর দর প্রায় ৬ থেকে সাড়ে ৮ শতাংশ পর্যন্ত বেড়েছে। তবে ৫ শতাংশ লভ্যাংশ ঘোষণার পর সাড়ে ৭ শতাংশ দর হারিয়ে পেনিনসুলা ছিল দর হ্রাসের শীর্ষে।



বাংলাদেশ ফিল্ডারদের দৃষ্টিভঙ্গি দ. আফ্রিকার মতো!

বাংলাদেশ ফিল্ডারদের দৃষ্টিভঙ্গি দ. আফ্রিকার মতো!

বড় রান তাড়া করার পেছনে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের বড় সমস্যা হিসেবে ...

খালেদা জিয়া নির্বাচনে প্রার্থী হতে পারবেন: ফখরুল

খালেদা জিয়া নির্বাচনে প্রার্থী হতে পারবেন: ফখরুল

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী ...

‘ছবি মুক্তি না পাওয়ায় শান্তি পাচ্ছি না’

‘ছবি মুক্তি না পাওয়ায় শান্তি পাচ্ছি না’

যশোরের মেয়ে আইরিন সুলতানা। ঢাকাই ছবির এই প্রজন্মের অন্যতম পরিচিত ...

জেতা ম্যাচ হারল পাকিস্তান

জেতা ম্যাচ হারল পাকিস্তান

পাকিস্তানের নাকে জয় তখন সুড়সুড়ি দেওয়া শুরু করেছে। সংযুক্ত আরব ...

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে সহায়ক মেথি শাক

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে সহায়ক মেথি শাক

বাজারে এরই মধ্যে ওঠতে শুরু করেছে শীতকালীন নানা শাকসবজি। অন্যান্য ...

জিম্বাবুয়ে সিরিজই ছিল উইন্ডিজের প্রস্তুতি

জিম্বাবুয়ে সিরিজই ছিল উইন্ডিজের প্রস্তুতি

ঘরের মাঠে আগামী ২২ নভেম্বর ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্টে সিরিজ ...

ইসিকে সর্বোচ্চ সতর্ক থাকার পরামর্শ সুজনের

ইসিকে সর্বোচ্চ সতর্ক থাকার পরামর্শ সুজনের

দলীয় সরকারের অধীনে হতে যাওয়া একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সরকার ...

প্রাইভেটকারে ৯৭ কেজি গাজা, আটক ২

প্রাইভেটকারে ৯৭ কেজি গাজা, আটক ২

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলায় প্রাইভেটকার থেকে ৯৭ কেজি গাজা উদ্ধার করেছে ...