সুনামগঞ্জ পৌরসভা উপনির্বাচন

ভোট গ্রহণ কর্মকর্তাদের সাক্ষ্য নেওয়া হচ্ছে

প্রকাশ: ১৭ এপ্রিল ২০১৮      

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি

সুনামগঞ্জ পৌরসভা উপনির্বাচন নিয়ে করা অভিযোগের তদন্ত শুরু হয়েছে। গতকাল রোববার সকাল ১০টা থেকে নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয়ে তদন্ত কমিটির সদস্যরা শহরের দুই কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার, সহকারী প্রিসাইডিং অফিসার, পোলিং অফিসার এবং আইন-শৃঙ্খলা রক্ষার দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের সাক্ষ্য গ্রহণ করেছেন।

জেলা নির্বাচন অফিসের এক কর্মকর্তা জানান, সুনামগঞ্জ শহরের উত্তর আরপিননগর পৌর প্রাথমিক বিদ্যালয় ও কেবি মিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দু'জন প্রিসাইডিং অফিসার, ৯জন সহকারী প্রিসাইডিং অফিসার, ১৮ জন পোলিং অফিসার এবং আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তার সাক্ষ্য গ্রহণ করেছেন। জেলা নির্বাচন অফিসারের কার্যালয়ে সকাল ১০টা থেকে বিকেল সাড়ে ৫টা পর্যন্ত তদন্ত দলের সদস্য নির্বাচন কমিশনের যুগ্ম-সচিব (আইন) মো. সেলিম মিয়া, সিনিয়র সহকারী সচিব শাহ্‌ আলম ও সিলেট জেলা নির্বাচন অফিসার আলাউদ্দিন এই সাক্ষ্য গ্রহণ করেন।

এ উপনির্বাচনে উত্তর আরপিননগর পৌর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রিসাইডিং অফিসার মো. শফিকুল ইসলাম খন্দকার বলেন, আমাকে তদন্তকারী দলের কর্মকর্তা ভোট গ্রহণের দিনে কেন্দ্রের সার্বিক অবস্থা বলতে বলেছেন, আমি বলেছি। আমার কেন্দ্র থেকে কিছু ব্যালট পেপার ছিনতাই হয়েছিল, সেটি আমি বলেছি। ওই ব্যালট পেপার উদ্ধার হয়েছিল কি-না- জানতে চাওয়া হয়েছে, আমি বলেছি, আমরা ওই ব্যালট পেপার আর পাইনি।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মুরাদ হোসেন বলেন, 'তদন্ত কর্মকর্তারা আজ সোমবার রিটার্নিং অফিসার, সহকারী রিটার্নিং অফিসার, ম্যাজিস্ট্রেট, জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এবং ভোট গ্রহণের দিন সুনামগঞ্জে অবস্থান করে ভোট গ্রহণ পর্যবেক্ষণের দায়িত্ব পালনকারী নির্বাচন কমিশনের ৩ কর্মকর্তার সাক্ষ্য গ্রহণ করবেন।'

সুনামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আয়ুব বখ্‌ত জগলুল গত ১ ফেব্রুয়ারি হৃদরোগে মারা যান। এরপর গত ২৯ মার্চ মেয়র পদে উপনির্বাচনের ভোট গ্রহণ হয়। মেয়র পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ছিলেন প্রয়াত মেয়র আয়ুব বখ্‌ত জগলুলের ছোট ভাই নাদের বখ্‌ত, বিএনপির প্রার্থী ছিলেন দেওয়ান সাজাউর রাজা চৌধুরী, মোবাইল ফোন প্রতীক নিয়ে স্বতন্ত্র দেওয়ান গণিউল সালাদীন।

নির্বাচনে জয়ী হন নাদের বখ্‌ত। ভোট গ্রহণকালে সংবাদ সম্মেলন করে কেন্দ্র দখল, কেন্দ্র থেকে তার এজেন্টদের বের করে দেওয়া, জাল ভোট প্রদানসহ ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ তুলে নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করেন স্বতন্ত্র প্রার্থী দেওয়ান গণিউল সালাদীন। তিনি সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে পুনর্নির্বাচনের দাবি জানান।

একই অভিযোগে বিকেলে সংবাদ সম্মেলন করে নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দেন বিএনপির প্রার্থী।
কোটি টাকায় কেনা দীর্ঘশ্বাস

কোটি টাকায় কেনা দীর্ঘশ্বাস

ধানমণ্ডিতে সুপরিসর একটি ফ্ল্যাট কেনার উদ্যোগ নিয়েছিলেন ব্যবসায়ী আহাদুল ইসলাম। ...

বিএনপির জনসভায় আমন্ত্রণ পাচ্ছে না জামায়াত

বিএনপির জনসভায় আমন্ত্রণ পাচ্ছে না জামায়াত

বিএনপির বৃহস্পতিবারের সম্ভাব্য জনসভায় ২০ দলের শরিক জামায়াতে ইসলামীকে কৌশলগত ...

প্রধানমন্ত্রীর ফ্লাইটের ক্রুর মাদক সেবন

প্রধানমন্ত্রীর ফ্লাইটের ক্রুর মাদক সেবন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ফ্লাইটের এক কেবিন ক্রুর মাদক সেবন ও ...

দুদককে পঙ্গু করতে চায় একটি মহল

দুদককে পঙ্গু করতে চায় একটি মহল

দুর্নীতি দমন কমিশনকে (দুদক) একটি অথর্ব প্রতিষ্ঠানে পরিণত করতে অপতৎপরতা ...

নিবর্তনমূলক ধারা বাতিল দাবি সাংবাদিক নেতাদের

নিবর্তনমূলক ধারা বাতিল দাবি সাংবাদিক নেতাদের

স্বাধীন সাংবাদিকতায় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করতে পারে- এমন সব ধারা-উপধারা বহাল ...

ইয়াবা কারবারিরা তবু বেপরোয়া

ইয়াবা কারবারিরা তবু বেপরোয়া

মিয়ানমার থেকে নানা কৌশলে ভিন্ন ভিন্ন রুট ব্যবহার করে সারা ...

বিপিএলের কারণে রশিদকে চেনা ইমরুলের

বিপিএলের কারণে রশিদকে চেনা ইমরুলের

হুট করেই ইমরুল কায়েস এশিয়া কাপের দলে ডাক পান। এরপর ...

মৃত ব্যক্তিকে জীবিত দেখিয়ে ব্যাংক ঋণ!

মৃত ব্যক্তিকে জীবিত দেখিয়ে ব্যাংক ঋণ!

বরিশালে মৃত ব্যক্তিকে জীবিত দেখিয়ে ব্যাংক থেকে ঋণ নেওয়ার অভিযোগ ...