জগন্নাথপুরে বেড়েছে মশার উপদ্রব

প্রকাশ: ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

তাজউদ্দিন আহমদ, জগন্নাথপুর (সুনামগঞ্জ)

জগন্নাথপুর পৌরশহরে ব্যাপকভাবে মশার উপদ্রব বৃদ্ধি পেয়েছে। দিন দিন মশা বৃদ্ধি পেলেও পৌর কর্তৃপক্ষের কোনো ভ্রুক্ষেপ নেই। ফলে বাসাবাড়ি, ধর্মীয় উপাসনালয়, কর্মস্থল, চলতি পথ কোথাও মশা থেকে নিস্তার মিলছে না। মশার উপদ্রব থেকে বাঁচতে দিনদুপুরে মশারি টানিয়ে ঘুমাতে হচ্ছে।

১৯৯৯ সালের দিকে জগন্নাথপুর পৌরসভা প্রতিষ্ঠা লাভ করে। কয়েক বছর ধরে পৌরশহরের ইকড়ছই, জগন্নাথপুর, ছিক্কা, কেশবপুর, হবিবপুর, ভবেরবাজার, লুদরপুর, ইসহাকপুর, ছিলিমপুর, বলবল, ভবানীপুর, শেরসহ সব পৌরসভাজুড়ে ব্যাপকভাবে মশার উপদ্রব বৃদ্ধি পেয়েছে। এসব এলাকার বাসিন্দাদের অভিযোগ, মশার যন্ত্রণায় অতিষ্ঠ তারা। কিন্তু দায়িত্বশীলরা নির্বিকার। পৌরসভা প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে আজ অবধি মশা নির্মূলে কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি।

চলতি বর্ষা মৌসুমে ডেঙ্গু মশার উপদ্রব দেখা দিতে পারে। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সূত্রমতে এখানে মশার আক্রমণে শিশুরা ম্যালেরিয়ায় আক্রান্ত হয় বেশি।

পৌরশহরের ইকড়ছই এলাকার বাসিন্দা শফিকুল ইসলাম বলেন, মশার উপদ্রবে বাচ্চাদের দিনের বেলায়ও মশারির নিচে রাখতে হচ্ছে। রাতে কয়েল জ্বালিয়ে ঘুমিয়েও মশা থেকে নিস্তার মিলছে না। তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, মশা নির্মূলে কোনো কার্যক্রম নেই সংশ্নিষ্টদের। পৌরসভা প্রতিষ্ঠাকাল থেকে মশা নিধনে ওষুধ ছিটানো কিংবা স্প্রে ব্যবহার করা হয়নি। জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা সামস উদ্দিন বলেন, মশার আক্রমণে শিশুরা বেশি ম্যালেরিয়ায় আক্রান্ত হয়। বর্ষা মৌসুমে মশার প্রজনন বৃদ্ধি পায়। মশার কারণে শিশুদের স্বাস্থ্যসেবা ঝুঁকিতে রয়েছে।

জগন্নাথপুর পৌর মেয়র আব্দুল মনাফ বলেন, পৌরসভার মশা নিধনের কোনো স্প্রে কিংবা ওষুধ নেই। তবে নাগরিক সুবিধার্থে আমরা পদক্ষেপ নেব।
দু'দিনের মধ্যেই জানা যাবে কে খাসোগির হত্যাকারী: ট্রাম্প

দু'দিনের মধ্যেই জানা যাবে কে খাসোগির হত্যাকারী: ট্রাম্প

সৌদি আরবের সমালোচক হিসেবে পরিচিত সাংবাদিক জামাল খাসোগির হত্যাকারী কে ...

ক্রিসমাসের বোনাস হিসেবে বন্দুক উপহার!

ক্রিসমাসের বোনাস হিসেবে বন্দুক উপহার!

ক্রিসমাসের বোনাস হিসেবে কর্মীদের অভিনব উপহার দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের উইসকনসিনের একটি ...

সিরিয়ায় মার্কিন জোটের বিমান হামলায় নিহত ৪০

সিরিয়ায় মার্কিন জোটের বিমান হামলায় নিহত ৪০

পূর্ব সিরিয়ার ইসলামিক স্টেট (আইএস) নিয়ন্ত্রিত একটি এলাকায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ...

টঙ্গীতে কিশোরকে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা

টঙ্গীতে কিশোরকে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা

টঙ্গীর নদী বন্দর এলাকায় হাবিব (১৬) নামের এক কিশোরকে চাপাতি ...

বাসের অপেক্ষায় থাকা দু'জনকে পিষে মারল বেপরোয়া পিকআপ

বাসের অপেক্ষায় থাকা দু'জনকে পিষে মারল বেপরোয়া পিকআপ

সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলায় বাসস্টপে দাঁড়িয়ে বাসের অপেক্ষায় থাকা অন্তত চারজনকে ...

সকালে গ্রেফতার, রাতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

সকালে গ্রেফতার, রাতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ফরিদ আলম ওরফে ডাকাত আলম ...

ক্ষমতায় এলে সংসদ ভেঙে নির্বাচনকালীন সরকার

ক্ষমতায় এলে সংসদ ভেঙে নির্বাচনকালীন সরকার

আগামী একাদশ সংসদ নির্বাচনে ক্ষমতায় এলে সংসদ ভেঙে 'নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ ...

রাজশাহী খুলনা বরিশাল ও রংপুরের ৮১ আসনে আ'লীগের প্রার্থী চূড়ান্ত

রাজশাহী খুলনা বরিশাল ও রংপুরের ৮১ আসনে আ'লীগের প্রার্থী চূড়ান্ত

রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল ও রংপুর বিভাগের কমপক্ষে ৮১ আসনে দলীয় ...