সা ক্ষা ৎ কা র

কেএসআরএমের আলাদা ব্র্যান্ড ইমেজ তৈরি হয়েছে

এনামুল হক

প্রকাশ: ০২ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

কবির স্টিল রি-রোলিং মিলসের (কেএসআরএম) পরিচালক (মার্কেটিং অ্যান্ড সেলস) এনামুল হক। ৩০ বছরেরও বেশি সময় ধরে ইস্পাত শিল্পের সঙ্গে যুক্ত। চট্টগ্রামভিত্তিক অন্যতম বৃহৎ শিল্প পরিবার কবির গ্রুপের রয়েছে আরও ১০ অঙ্গ প্রতিষ্ঠান। ইস্পাতের পাশাপাশি সিমেন্ট, জাহাজ ও শিপ ব্রেকিং ইয়ার্ডেরও ব্যবসা রয়েছে তাদের। স্টিল উৎপাদনে শীর্ষ তিনটি প্রতিষ্ঠানের একটি কেএসআরএম। ইস্পাত খাত ও কেএসআরএমের বিভিন্ন বিষয়ে এনামুল হক কথা বলেছেন সমকালের সঙ্গে। সাক্ষাৎকার নিয়েছেন সারোয়ার সুমন

সমকাল : ইস্পাত শিল্পে কখন কীভাবে যাত্রা করে কেএসআরএম?

এনামুল হক : ১৯৮৪ সালে কেএসআরএমের যাত্রা শুরু হয়। পণ্যের গুণগত মান নিশ্চিত করা ও নির্ধারিত সময়ে পণ্য সরবরাহের বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করি আমরা। এ কারণে বিবেচনা কেএসআরএমের আলাদা ব্র্যান্ড ইমেজ তৈরি হয়েছে।

সমকাল : কেন অন্যান্য ব্রান্ড থেকে আলাদা কেএসআরএম?

এনামুল হক : উন্নত কাঁচামালের ব্যবহার নিশ্চিত করার মাধ্যমে গুণগত পণ্য উৎপাদনে সচেষ্ট আমরা। স্টিলের কাঁচামাল বিলেট আমদানির ক্ষেত্রেও আমরা খুব সতর্ক থাকি। দুবাই, নরওয়ে, জার্মানি ও চীনের মতো উন্নত দেশ থেকে উন্নতমানের বিলেট আমদানি করি। বুয়েটের মাধ্যমে পরীক্ষা করে নির্মাণ করি ভূমিকম্প সহনশীল রড। ৩৬৯ মেগা ফিক্সেলে ৫৫ লাখ সাইক্লিক লোড সহনশীল রড উৎপাদন করে কেএসআরএম।

সমকাল : দেশে ইস্পাতশিল্পের বাজার সম্ভাবনা কেমন দেখছেন?

এনামুল হক : বিভিন্ন কারণে সম্প্রতি দেশে ইস্পাতের চাহিদা বেড়েছে। আগামী দিনগুলোতে চাহিদা আরও বাড়বে। কারণ সরকার মেগা প্রকল্প অর্থাৎ এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে, ছোট-বড় সেতু, শিল্প স্থাপনাসহ অনেক প্রকল্পের কাজ শুরু করেছে। এ ছাড়া আবাসন খাতেও ব্যবসা ফিরছে। আবাসন খাত চাঙ্গা হলে ইস্পাত শিল্পের প্রবৃদ্ধি ২০ শতাংশে উন্নীত হওয়ার সুযোগ থাকবে।

সমকাল : ইস্পাত শিল্প আরও সম্প্রসারণে আপনাদের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা কী আছে? এখন আপনাদের উৎপাদনক্ষমতা ও বিনিয়োগ কেমন?

এনামুল হক : এখন বছরে ৮ লাখ টন রড উৎপাদনের সক্ষমতা রয়েছে আমাদের। গত বছরের মাঝামাঝিতে কারখানা

সম্প্রসারণ ও আধুনিকায়ন করেছি আমরা। আগে উৎপাদনক্ষমতা বছরে চার লাখ ছিল। এখন তা দ্বিগুণ হয়েছে। এখন কারখানার পরিবেশগত বিষয়গুলো আরও

উন্নত করার প্রক্রিয়া চলছে। আবার রাউন্ড বার উৎপাদনের সঙ্গে সঙ্গে স্ট্রাকচারাল স্টিলের বাজার সম্প্রসারণেরও পরিকল্পনা রয়েছে।

সমকাল : আগামী ১০ বছরে এ সেক্টরের বাজার ও চাহিদা কেমন হতে পারে? এখন দেশের মোট চাহিদা ও যোগানের মধ্যে কোনো ঘাটতি আছে?

এনামুল হক : এখন চাহিদার প্রায় সমপরিমাণ রড উৎপাদন করতে পারে বাংলাদেশ। নতুন শিল্প-কারখানা, শিল্পাঞ্চল, বিশেষ অর্থনৈতিক জোন ও উপজেলা পর্যায়ে বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের সুবাদে রডের চাহিদা ও যোগানের সম্ভাবনা খুবই উজ্জ্বল। আগামী ১০ বছরে চাহিদা কম করে হলেও আরও ২০ লাখ টন বাড়বে। এ জন্য অনেকে কারখানা সম্প্রসারণ করে উৎপাদন বাড়াচ্ছে। আবার কেউ কেউ নতুন বিনিয়োগ নিয়ে কারখানা স্থাপন করছে।

সমকাল : এ শিল্পের কোন কোন সমস্যার সমাধান আগে দরকার?

এনামুল হক : বিদ্যুৎ ও গ্যাস এবং পর্যাপ্ত জমির সংকট, কাঁচামাল আমদানিতে দীর্ঘসূত্রতা ও পণ্যের পরিবহনজনিত সমস্যার সমাধান করা হলে আরও বাড়বে এ শিল্পের সম্ভাবনা। কারখানা বাড়লে বাড়বে কর্মসংস্থান। বাড়বে সরকারের রাজস্বও। তবে কাঁচামাল আমদানিতে সব প্রতিষ্ঠানকে আরও যথেষ্ট সতর্ক হতে হবে। তাহলে পণ্যের গুণগতমান নিয়ে সন্দেহ থাকবে না ক্রেতার।

সমকাল : বন্দর ও কাস্টমসে পণ্য খালাসে কোনো জটিলতা আছে?

এনামুল হক : দ্রুত কাঁচামাল খালাসে পর্যাপ্ত পরিমাণ আধুনিক যন্ত্রপাতির

অভাব রয়েছে। বহিনোঙ্গরে জাহাজের দীর্ঘসূত্রতা ও কনটেইনার জটের কারণে কাঙ্ক্ষিত সময়ে অনেক সময়

কাঁচামাল পাই না আমরা। চাহিদামতো দ্রুততম সময়ে পণ্য খালাস ও শুল্ক্কায়ন করা গেলে পণ্য উৎপাদন খরচও কিছুটা কমবে। বন্দরে আধুনিক যন্ত্রপাতি স্থাপন জরুরি। বহিনোঙরে আরও নজর বাড়াতে হবে বন্দর কর্তৃপক্ষকে।

সমকাল : প্রধান ৫টি ইস্পাত কারখানার উৎপাদন ক্ষমতা কত? চট্টগ্রাম থেকে মোট চাহিদার কত শতাংশ জোগান দেওয়া হয়?

এনামুল হক : প্রধান ৫টি ইস্পাত কারখানার ক্ষমতা বছরে প্রায় ৪০ লাখ টন। আর মোট চাহিদার ৬৬ শতাংশ চট্টগ্রাম থেকে জোগান দেওয়া হয়। শীর্ষ রড উৎপাদনকারীর মধ্যে কেএসআরএম ছাড়াও আছে বিএসআরএম, একেএস, রহিম স্টিল, আরএসআরএম, জিপিএইচ, বায়েজিদ স্টিল, আনোয়ার ইস্পাত, সালাম স্টিল, আরআরএম ও সীমা স্টিল। ইস্পাত শিল্পে নেতৃত্ব দিচ্ছে চট্টগ্রাম।
সরকারি সুবিধায় নির্বাচনী প্রচার বেআইনি: রিজভী

সরকারি সুবিধায় নির্বাচনী প্রচার বেআইনি: রিজভী

সরকারের বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা ব্যবহার করে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাধারণ ...

ইসিকে গণসংহতি আন্দোলনের আইনি নোটিশ

ইসিকে গণসংহতি আন্দোলনের আইনি নোটিশ

রাজনৈতিক দল হিসেবে নিবন্ধন চেয়ে গণসংহতি আন্দোলনের করা আবেদন খারিজের ...

ভারতের বিপক্ষে টস জিতে ব্যাটিংয়ে পাকিস্তান

ভারতের বিপক্ষে টস জিতে ব্যাটিংয়ে পাকিস্তান

এশিয়া কাপের সুপার ফোরের ম্যাচে একটি করে ম্যাচ জিতে এগিয়ে ...

বাংলাদেশ হবে বিশ্বের অন্যতম ধনী দেশ: রাসিক মেয়র

বাংলাদেশ হবে বিশ্বের অন্যতম ধনী দেশ: রাসিক মেয়র

আগামী ৩০ থেকে ৩৫ বছর পর বাংলাদেশ বিশ্বের মধ্যে অন্যতম ...

১০ জেলায় নতুন ডিসি

১০ জেলায় নতুন ডিসি

নতুন জেলা প্রশাসক (ডিসি) পেয়েছে দেশের ১০ জেলা।রোববার জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় ...

চট্টগ্রামে ত্রিমুখী সংঘর্ষে নিহত ২

চট্টগ্রামে ত্রিমুখী সংঘর্ষে নিহত ২

চট্টগ্রামে প্রাইভেট কার, মাইক্রোবাস ও সিএনজি অটোরিকশার ত্রিমুখী সংঘর্ষে দুইজন ...

আরাধ্যকে বিব্রত করে ছবি না করার সিদ্ধান্ত অভিষেকের

আরাধ্যকে বিব্রত করে ছবি না করার সিদ্ধান্ত অভিষেকের

দুই বছর পর অভিষেক বচ্চন বলিউডে ফিরেছেন অনুরাগ কাশয়াপ পরিচালিত ...

২৬ ঘণ্টা পর বগুড়া দিয়ে ট্রেন চলাচল শুরু

২৬ ঘণ্টা পর বগুড়া দিয়ে ট্রেন চলাচল শুরু

প্রায় ২৬ ঘণ্টা বন্ধ থাকার বগুড়া দিয়ে আবারও ট্রেন চলাচল ...