দখল ও দূষণে মাছশূন্য হয়ে পড়ছে চলনবিল

পাবনা

প্রকাশ: ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

এবিএম ফজলুর রহমান, পাবনা

দখল ও দূষণে দেশি জাতের মাছের বিচরণক্ষেত্র হ্রাস আর নির্বিচার নিধনে ক্রমেই মাছশূন্য হয়ে পড়ছে উত্তরবঙ্গের সর্ববৃহৎ মৎস্যভাণ্ডার চলনবিল। মৎস্য সম্পদ রক্ষায় অভয়াশ্রম গড়ে তোলা ও প্রশাসনিক নজরদারি বাড়ানোর দাবি জানিয়েছেন সংশ্নিষ্টরা।

জেলা মৎস্য বিভাগ সূত্র জানায়, সুস্বাদু দেশীয় মাছের প্রাচুর্যে যে বিলের সুখ্যাতি ছিল দেশজুড়ে, সেই চলনবিল এখন প্রায় মাছশূন্য। গত ৩০ বছরে উৎপাদন কমেছে ৬৩ শতাংশ। গাঙচিংড়ি, খরশলা, দাড়কিনা, গজার, গোরকিয়া, লেটুকি, বাঁশপাতা, ফাতাশি, নান্দিনা, বউ, ভাঙ্গনা, ঘোড়া, মহাশোল, তিলাশোল, রেনুয়াসহ অসংখ্য মাছের নাম উঠেছে বিলুপ্তির খাতায়। বিলুপ্তির পথে দেশি কৈ, মাগুর, ভেদাসহ বিভিন্ন প্রজাতি। ভরা মৌসুমে মিলছে না মাছ। চরম দুর্দশায় দিন কাটছে বংশপরম্পরায় মাছ ধরে আসা জেলে পরিবারগুলোর।

পাবনা জেলার চাটমোহর, ভাঙ্গুড়া, ফরিদপুর, নাটোরের সিংড়া, গুরুদাসপুর, বড়াইগ্রাম এবং সিরাজগঞ্জ জেলার তাড়াশ ও রায়গঞ্জের ৬২টি ইউনিয়ন এবং ৮টি পৌরসভা নিয়ে চলবিলের অবস্থান। পূর্ব-পশ্চিমে এর দৈর্ঘ্য ৫১ কিলোমিটার এবং উত্তর-দক্ষিণে প্রস্থ সাড়ে ২২ কিলোমিটার। এ ৮টি উপজেলার গ্রাম সংখ্যা ১৬শ এবং লোকসংখ্যা ২০ লাখের অধিক। এর মধ্যে প্রায় বিশ হাজার মৎস্যজীবী পরিবার রয়েছে। অন্যদিকে নন্দকুশা, গুমানি ও বড়াল নদী বিশাল এই চলনবিল অঞ্চলকে দু'ভাগে বিভক্ত করেছে। প্রতি বছর এ বিল থেকে টন টন মাছ ধরা পড়ে, যা রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় সরবরাহ করা হয়।

পাবনার চাটমোহর উপজেলার সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মো. মাহবুবুর রহমান বলেন, প্রভাবশালীদের ছত্রছায়ায় অবৈধ সোঁতি, কারেন্ট ও বাদাই জাল দিয়ে চলে ডিমওয়ালা মাছ নিধন করা এবং কালো জাতীয় দেশীয় মাছ অবাধে নিধন করায় চলনবিলে মাছের উৎপাদন ভয়াবহ আকারে কমে গেছে। প্রাকৃতিক জলাধার সেচে মাছ ধরা নিষিদ্ধ হলেও তা মানছে না কেউ। মানুষের নির্মম লালসায় মারা পড়ছে বিভিন্ন প্রজাতির মা মাছ।

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূগোল ও পরিবেশবিদ্যা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. মো. নাজমুল ইসলাম সমকালকে বলেন, মৎস্য সম্পদ রক্ষায় স্থানীয় জনগণকে সম্পৃক্ত করে অভয়াশ্রম গড়ে তোলা হলে মাছের উৎপাদন অনেকাংশে বাড়বে। তিনি আরও বলেন, উন্নয়নের নামে পরিবেশের ওপর অযাচিত হস্তক্ষেপ আর তথাকথিত কৃষি বিপ্লবের রাসায়নিক সার ও কীটনাশকের প্রতিক্রিয়ায় গত ৩০ বছরে হারিয়ে গেছে এই চলনবিলের অন্তত ৪০ প্রজাতির দেশীয় মাছ, যা শতকরা প্রায় ৬৩ শতাংশ।
সর্বোচ্চ ৬৫ আসনে ছাড় দেবে বিএনপি

সর্বোচ্চ ৬৫ আসনে ছাড় দেবে বিএনপি

একাদশ সংসদ নির্বাচনে জোট শরিকদের মধ্যে আসন বণ্টন নিয়ে মহাসংকটে ...

গ্রামাঞ্চল পাবে শহরের সুবিধা

গ্রামাঞ্চল পাবে শহরের সুবিধা

গ্রামাঞ্চলকে শহরের সুবিধায় আনতে ব্যাপক পরিকল্পনা রয়েছে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ...

প্রত্যাবাসন আজ শুরু হচ্ছে না

প্রত্যাবাসন আজ শুরু হচ্ছে না

বহুল প্রতীক্ষিত রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া আজ বৃহস্পতিবার শুরু হচ্ছে না। ...

ডায়াবেটিস থেকে শিশুদের রক্ষায় এগিয়ে আসতে হবে

ডায়াবেটিস থেকে শিশুদের রক্ষায় এগিয়ে আসতে হবে

ঘাতক ব্যাধি ডায়াবেটিস থেকে শিশুদের রক্ষা করার আহ্বান জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞ ...

লোকজ সুরে খুঁজে পাই প্রাণের স্পন্দন

লোকজ সুরে খুঁজে পাই প্রাণের স্পন্দন

'লোকগানের কথায় রয়েছে জীবনের দিকনির্দেশনা। এর ঐন্দ্রজালিক সুর অদ্ভুত এক ...

দুর্ধর্ষ এক ভাড়াটে খুনির থানায় যাতায়াত!

দুর্ধর্ষ এক ভাড়াটে খুনির থানায় যাতায়াত!

দক্ষ রাজমিস্ত্রি হিসেবেই মিরপুর, ভাসানটেক ও কাফরুল এলাকার মানুষজন চিনতেন ...

নির্বাচন পেছানোর দাবি নিয়ে বসবে নির্বাচন কমিশন: সচিব

নির্বাচন পেছানোর দাবি নিয়ে বসবে নির্বাচন কমিশন: সচিব

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন পেছাতে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের দাবি নিয়ে নির্বাচন ...

ইসির সঙ্গে বৈঠকে নির্বাচন পেছানোর বিরোধিতা আ. লীগের

ইসির সঙ্গে বৈঠকে নির্বাচন পেছানোর বিরোধিতা আ. লীগের

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন আবারও পেছানোর বিরোধিতা করেছে আওয়ামী ...