ইয়েমেনের হোদায়দাহ শহরে আক্রমণ সৌদি জোটের

কয়েক লাখ প্রাণহানির শঙ্কা জাতিসংঘের

প্রকাশ: ১৪ জুন ২০১৮      

সমকাল ডেস্ক

ইয়েমেনের প্রবেশপথখ্যাত প্রধান বন্দরনগরী হোদায়দাহে আক্রমণ চালিয়েছে সৌদি নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট। হুতি বিদ্রোহীদের নিয়ন্ত্রণে থাকা পোর্টে গতকাল বুধবার আক্রমণ শুরু করে জোটের সেনারা। এতে উপসাগরীয় আরব রাষ্ট্রগুলোর সেনাদের সঙ্গে ইরান সমর্থিত হুতিদের তুমুল সংঘর্ষ হয়। ২০১৫ সালে সৌদি জোট ইয়েমেনে হস্তক্ষেপ করার পর থেকে এটাই সবচেয়ে বড় লড়াই। খবর বিবিসি ও আলজাজিরার।

ইয়েমেনের প্রধান সমুদ্রবন্দরের নিয়ন্ত্রণ ছেড়ে দিতে হুতি বিদ্রোহীদের সময় বেঁধে দিয়েছিল আরব আমিরাত। বেঁধে দেওয়া সময় পার হওয়ার পর বুধবার 'গোল্ডেন ভিক্টরি' নামে এ অভিযান শুরু করে সৌদি জোট। ইয়েমেনের নির্বাসিত প্রেসিডেন্ট আব্দু রাব্বু মানসুর হাদির সরকার জানিয়েছে, লোহিত সাগরের এই বন্দরটির দখল নেওয়ার জন্য ইয়েমেনি সৈন্যরা হোদায়দাহর দক্ষিণে অবস্থান নিয়ে অভিযান শুরু করেছে, তাদের সমর্থন জোগাতে জোট বাহিনীর যুদ্ধবিমান ও যুদ্ধজাহাজগুলো হুতিদের অবস্থান লক্ষ্য করে হামলা শুরু করেছে। ইয়েমেনের সবচেয়ে বড় বন্দর হোদায়দাহ হুতিদের এলাকার মধ্যেই অবস্থিত। ইয়েমেনের অধিকাংশ পণ্য এই বন্দর হয়েই দেশটিতে প্রবেশ করে। লোহিত সাগরে অবস্থিত বন্দরটি দিয়ে মানবিক সংকটে থাকা ইয়েমেনের ৮০ শতাংশ প্রয়োজনীয় পণ্য আমদানি করা হয়। জাতিসংঘের মতে, ইয়েমেনে এখন বিশ্বের সবচেয়ে বেশি মানবিক সংকট চলছে। দেখা দিয়েছে কলেরা ও দুর্ভিক্ষ। হাদির নির্বাসিত সরকার পৃথক বিবৃতিতে বলেছে, এই বন্দর মুক্ত করার মধ্য দিয়ে হুতি মিলিশিয়াদের পতন শুরু হবে, এর মাধ্যমে বাব আল মানদাব প্রণালিতে সামুদ্রিক জাহাজ চলাচল নিরাপদ হবে এবং ইরানের হাত কাটা পড়বে। হাদির সরকারের অভিযোগ, ইরান দীর্ঘদিন ধরে এই পথ ধরে ইয়েমেনকে অস্ত্রে ডুবিয়ে দিয়েছে, যা ইয়েমেনিদের রক্ত ঝড়াচ্ছে।

এদিকে হুতি নেতা মোহাম্মদ আলী আল হুতি লোহিত সাগর দিয়ে চলাচলকারী তেলবাহী জাহাজগুলোতে হামলার হুমকি দিয়েছেন। হুতি পরিচালিত মাসিরাহ টিভিতে বলা হয়, জোটের একটি যুদ্ধজাহাজে দুটি ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানো হয়েছে।

জাতিসংঘের পক্ষ থেকেও হোদায়দাহ বন্দরে হামলা না চালানোর জন্য আহ্বান জানানো হয়েছে। বন্দরনগরীতে আনুমানিক ৬ লাখ মানুষ বাস করে। জতিসংঘের আশঙ্কা, বন্দরটি আক্রান্ত হলে লাখ লাখ ইয়েমেনি মারা পড়বে। একই সঙ্গে লাখ লাখ মানুষের খাবারসহ অন্যান্য সহায়তা বন্ধ হয়ে যাবে।
প্রশাসনে ৬ লাখ পদ সৃষ্টি করেছে বর্তমান সরকার

প্রশাসনে ৬ লাখ পদ সৃষ্টি করেছে বর্তমান সরকার

বর্তমান সরকারের সময়ে প্রশাসনে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে ছয় লাখ ১৩ হাজার ...

বরিশালের ১৭  রুটের বাস ধর্মঘট প্রত্যাহার

বরিশালের ১৭ রুটের বাস ধর্মঘট প্রত্যাহার

ঝালকাঠি জেলা বাস মালিক সমিতির সঙ্গে বরিশাল, পটুয়াখালী ও বরগুনা ...

যেসব সমস্যা কাটিয়ে উঠতে হবে আর্জেন্টিনাকে

যেসব সমস্যা কাটিয়ে উঠতে হবে আর্জেন্টিনাকে

একেবারে খাদের কিনারে দাঁড়িয়ে আর্জেন্টিনা। মুহূর্তের ভুলে বিশ্বকাপের পরের পর্বটা ...

প্রচারণার শেষ দিনে গাজীপুরে দুই প্রার্থীর ব্যস্ত সময়

প্রচারণার শেষ দিনে গাজীপুরে দুই প্রার্থীর ব্যস্ত সময়

প্রচারণার শেষ দিনে ব্যস্ত সময় কাটালেন গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ...

শুধু একটি লোকের কারণে কেরানীগঞ্জের এই দুরবস্থা: কামরুল

শুধু একটি লোকের কারণে কেরানীগঞ্জের এই দুরবস্থা: কামরুল

কেরানীগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান শাহীন আহমেদকে উদ্দেশ্য করে খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ...

ওসির কাছে চাঁদা দাবি, ছাত্রলীগের ৪ নেতা আটক

ওসির কাছে চাঁদা দাবি, ছাত্রলীগের ৪ নেতা আটক

ময়মনসিংহের নান্দাইল মডেল থানার ওসির কাছে চাঁদা দাবির অভিযোগে ছাত্রলীগের ...

রাজশাহীতে বিএনপির প্রার্থী বুলবুল, বরিশালে সরোয়ার

রাজশাহীতে বিএনপির প্রার্থী বুলবুল, বরিশালে সরোয়ার

বর্তমান মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুলকেই আসন্ন রাজশাহী সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ...

আঞ্চলিক যোগাযোগ জোরদারের ওপর প্রধানমন্ত্রীর গুরুত্বারোপ

আঞ্চলিক যোগাযোগ জোরদারের ওপর প্রধানমন্ত্রীর গুরুত্বারোপ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দক্ষিণ এশিয় দেশগুলোর মধ্যে কানেকটিভিটি জোরদার করার ...