পাকিস্তান থেকে আসা হিন্দুরা ফের ভারত ছাড়ছেন কেন

প্রকাশ: ১২ জুলাই ২০১৮      

অমিতাভ ভট্টশালী, বিবিসি

পাকিস্তানে অত্যাচার ও বৈষম্যের শিকার হয়ে যেসব হিন্দু ভারতে চলে গিয়েছিলেন, তাদের একটা অংশ আবারও পাকিস্তানে ফিরে যেতে শুরু করেছেন। দীর্ঘদিন ভারতে থেকেও নাগরিকত্ব না পেয়ে আবারও নিজের দেশে ফিরতে শুরু করেছেন তারা। নরেন্দ্র মোদির সরকার ২০১৬ সালেই ঘোষণা করেছিল, পাকিস্তান, বাংলাদেশ, আফগানিস্তানসহ প্রতিবেশী দেশগুলোতে কোনো হিন্দু যদি ধর্মীয় কারণে অত্যাচারিত হন, তাহলে তাদের স্বাগত জানাবে ভারত, দেবে নাগরিকত্ব। কিন্তু পাকিস্তান থেকে আসা হিন্দুদের নাগরিকত্ব দেওয়া হচ্ছে না নানা উছিলায়। পাকিস্তান থেকে হিন্দুদের ভারতে চলে আসা শুরু হয়েছিল ১৯৬৫ সালে দুই দেশের যুদ্ধের পরই। তার পর আরও এক ঝাঁক হিন্দু ভারতে চলে এসেছিলেন ১৯৭১ সালের যুদ্ধের সময়, আর শেষবার বড় সংখ্যায় হিন্দুরা পাকিস্তান ছেড়ে আসেন ১৯৯২-৯৩ সালে, অযোধ্যায় বাবরি মসজিদ ধ্বংসের পরবর্তী সময়ে। এদের অভিযোগ, হিন্দু হওয়ার জন্যই পাকিস্তানে অত্যাচারের সম্মুখীন হতেন তারা। যোধপুর শহরেরই আরেক বাসিন্দা গোর্ধন ভিল পাকিস্তান থেকে ভারতে চলে এসেছেন ২০০১ সালে, কিন্তু এখনও নাগরিকত্ব পাননি তিনি। গোর্ধন ভিল বলেন, 'যোধপুর শহরের বাইরে বেরোতে পারি না। যেখানে ভাড়া থাকি, সেখানে বিদ্যুৎ, জলের ব্যবস্থা কিছুই নেই। ছেলেমেয়েদের স্কুল-কলেজে ভর্তি করানোটাও সমস্যা হয়ে দাঁড়ায়। এত দিন ধরে নাগরিকত্বের আবেদন করেছি, কিন্তু বারবার ঘোরানো হচ্ছে নানা যুক্তিতে।' ভিল বা কিষানের মতো বহু মানুষ দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করেও নাগরিকত্ব না পেয়ে অনেকে আবার ফিরে যেতে শুরু করেছেন পাকিস্তানে।

সম্প্রতি রাজস্থান হাইকোর্টে দায়ের হওয়া এক জনস্বার্থ মামলায় হিন্দুদের পাকিস্তানে ফিরে যাওয়ার তথ্য জানিয়েছেন বিদেশি নাগরিক পঞ্জীকরণ অফিসার শ্বেতা ধনকার। তিনি বলেন, ২০১৫ থেকে ২০১৭- এই সময়ের মধ্যে পাকিস্তান ফিরে গেছেন ৯৬৮ হিন্দু। পাকিস্তান থেকে ভারতে চলে আসা হিন্দুদের অধিকারের দাবি নিয়ে সরব সীমান্ত লোক সংগঠনের সভাপতি হিন্দু সিং সোধা বলেন, 'সে দেশে ধর্মের কারণে অত্যাচারিত হচ্ছিলেন, বৈষম্যের শিকার হচ্ছিলেন বলেই তো এই মানুষরা ভারতে চলে এসেছিলেন। কিন্তু এখানে যদি তারা স্বাগতই না হবেন, তাহলে তো তারা ফিরে যাবেনই।'
কোটি টাকায় কেনা দীর্ঘশ্বাস

কোটি টাকায় কেনা দীর্ঘশ্বাস

ধানমণ্ডিতে সুপরিসর একটি ফ্ল্যাট কেনার উদ্যোগ নিয়েছিলেন ব্যবসায়ী আহাদুল ইসলাম। ...

বিএনপির জনসভায় আমন্ত্রণ পাচ্ছে না জামায়াত

বিএনপির জনসভায় আমন্ত্রণ পাচ্ছে না জামায়াত

বিএনপির বৃহস্পতিবারের সম্ভাব্য জনসভায় ২০ দলের শরিক জামায়াতে ইসলামীকে কৌশলগত ...

প্রধানমন্ত্রীর ফ্লাইটের ক্রুর মাদক সেবন

প্রধানমন্ত্রীর ফ্লাইটের ক্রুর মাদক সেবন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ফ্লাইটের এক কেবিন ক্রুর মাদক সেবন ও ...

দুদককে পঙ্গু করতে চায় একটি মহল

দুদককে পঙ্গু করতে চায় একটি মহল

দুর্নীতি দমন কমিশনকে (দুদক) একটি অথর্ব প্রতিষ্ঠানে পরিণত করতে অপতৎপরতা ...

নিবর্তনমূলক ধারা বাতিল দাবি সাংবাদিক নেতাদের

নিবর্তনমূলক ধারা বাতিল দাবি সাংবাদিক নেতাদের

স্বাধীন সাংবাদিকতায় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করতে পারে- এমন সব ধারা-উপধারা বহাল ...

ইয়াবা কারবারিরা তবু বেপরোয়া

ইয়াবা কারবারিরা তবু বেপরোয়া

মিয়ানমার থেকে নানা কৌশলে ভিন্ন ভিন্ন রুট ব্যবহার করে সারা ...

বিপিএলের কারণে রশিদকে চেনা ইমরুলের

বিপিএলের কারণে রশিদকে চেনা ইমরুলের

হুট করেই ইমরুল কায়েস এশিয়া কাপের দলে ডাক পান। এরপর ...

মৃত ব্যক্তিকে জীবিত দেখিয়ে ব্যাংক ঋণ!

মৃত ব্যক্তিকে জীবিত দেখিয়ে ব্যাংক ঋণ!

বরিশালে মৃত ব্যক্তিকে জীবিত দেখিয়ে ব্যাংক থেকে ঋণ নেওয়ার অভিযোগ ...