জেনে নিন

ডায়াবেটিস রোগীর খাওয়াদাওয়া

প্রকাশ: ০৫ আগস্ট ২০১৮      

ডা. শাহজাদা সেলিম, এন্ডোক্রাইন রোগ বিশেষজ্ঞ, বিএসএমএমইউ

ইদানীং উপমহাদেশে ডায়াবেটিসের প্রকোপ আশঙ্কাজনক হারে বেড়েছে। বিশেষজ্ঞরা ধারণা করছেন, খাদ্যাভ্যাস, লাইফস্টাইল সবকিছুই এর কারণ।

রক্তের সুগারকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে খাওয়াদাওয়ার জরুরি ভূমিকা রয়েছে। তার মানে কিন্তু এই নয় যে, ভালো খাবার থেকে সব সময় দূরে থাকতে হবে।

সঠিক ডায়েট প্ল্যান করলে ডায়াবেটিসের রোগী এক-আধ দিন রসগোল্লা খেতে পারেন। তবে যেটা দরকার, তা হলো পরিমিতিবোধ, সময়ানুবর্তিতা ও নিয়মানুবর্তিতা।

ডায়েটে কী রাখবেন
 
-প্রথমেই আসা যাক কার্বোহাইড্রেট প্রসঙ্গে। রিফাইন্ড কার্বোহাইড্রেট যেমন- ময়দা, মিহি পলিশড চাল, সাদা পাউরুটি ইত্যাদি রোজকার ডায়েট থেকে বাদ দিন। বেশি ফাইবারযুক্ত কার্বোহাইড্রেট যেমন- ভুসিযুক্ত আটার রুটি, ঢেঁকি ছাঁটা চাল বা ব্রাউন রাইস, কর্নফ্লেক্সের পরিবর্তে ব্র্যানফ্লেক্স খান।
 
-চিনিযুক্ত ব্রেকফাস্ট সিরিয়ালের পরিবর্তে হাই ফাইবার ব্রেকফাস্ট সিরিয়াল, ইনস্ট্যান্ট ওটমিলের বদলে রোলড ওটস বা স্টিল কাট ওটস বেছে নিন।
 
-আলু ভাজা যতই ভালোবাসুন না কেন, চলবে না। বরং রাঙা আলু, স্কোয়াশ, ফুলকপি খেলেই ভালো।
 
-মিষ্টি খেতে যারা ভালোবাসেন তাদের তো সমস্যা বটেই, যারা মিষ্টি ভালোবাসেন না, তাদেরও ডায়াবেটিস হলে মিষ্টির প্রতি আকাঙ্ক্ষা বাড়ে।

তবে ডায়াবেটিস হলে যে মিষ্টি একেবারে বাদ, তা কিন্তু নয়। মাঝে মধ্যে একটা ছোট সন্দেশ বা রস চিপে রসগোল্লা, দুই এক চামচ পুডিং, কাস্টার্ড বা আইসক্রিম খাওয়া যেতেই পারে। কিন্তু টোটাল ক্যালরি ইনটেক খেয়াল রাখতে হবে। আর যেদিন মিষ্টি খাবেন সেদিন মিনিট পনেরো বেশি হাঁটবেন।
 
-ফ্যাট বা তেলজাতীয় খাবার খেতে হবে বুঝেশুনে। স্যাচুরেটেড ফ্যাট ও ট্র্যান্স ফ্যাট ডায়াবেটিকদের জন্য তো বটেই কারও জন্যই ভালো নয়।

এর মধ্যে আছে বনস্পতি, লিকুইড ভেজিটেবল অয়েল, হোল মিল্ক্ক, রেড মিট ইত্যাদি। এগুলো যতটা সম্ভব এড়িয়ে চলুন। অন্যদিকে রয়েছে অলিভ অয়েল, ক্যানোলা অয়েল, ফ্ল্যাঙ্ক সিড, বাদাম, অ্যাভোকাডো, স্কিমড মিল্ক্ক, দই ইত্যাদি খেতে পারেন।
 
-উচ্চ মাত্রায় ফাইবারযুক্ত সবজি যেমন- বিন, ব্রকোলি, কড়াইশুঁটি, পাতাওয়ালা সবজি ইত্যাদি রাখুন ডায়েটে। ডালজাতীয় খাবারও রাখতে পারেন। উচ্চ ফাইবারযুক্ত ফল যেমন- পেঁপে, কমলালেবু, আপেল, নাশপাতি, পেয়ারা ইত্যাদি খান। কলা, আম বা আঙুরের মতো ফলে ক্যালরি বেশি থাকে। তাই এই ফলগুলো পরিমিত পরিমাণে খাবেন।

ডায়েটে কার্বোহাইড্রেটের পরিমাণ কম আর পর্যাপ্ত প্রোটিন থাকতে হবে। সারাদিনে ছোট ছোট মিলে ভাগ করে খাবার খান।
 
-এ ছাড়া ব্রেন ও হার্টকে সুরক্ষিত রাখতে ওমেগা থ্রি ফ্যাটি এসিডের ভূমিকা উল্লেখযোগ্য। পোনা মাছ, স্যামন মাছসহ যে কোনো সামুদ্রিক মাছ, ফ্ল্যাঙ্ক সিড ইত্যাদিতে পাওয়া যায় পর্যাপ্ত পরিমাণে ওমেগা থ্রি ফ্যাটি এসিড।

পরবর্তী খবর পড়ুন : না বলা অনেক কথা

নৌবাহিনীর ঘাঁটিতে নির্মাণাধীন ভবন থেকে পড়ে নিহত ৩

নৌবাহিনীর ঘাঁটিতে নির্মাণাধীন ভবন থেকে পড়ে নিহত ৩

খুলনা মহানগরীর খালিশপুরে নৌবাহিনীর তিতুমীর ঘাঁটিতে নির্মাণাধীন ভবন থেকে পড়ে ...

বিয়ের প্রস্তাবের সাক্ষী একদল বেজিও!‍

বিয়ের প্রস্তাবের সাক্ষী একদল বেজিও!‍

জীবনের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা বিয়ে। সেই বিয়ের প্রস্তাবকে স্মরণীয় করে ...

মদপানে প্রাণ গেল দুই যুবকের

মদপানে প্রাণ গেল দুই যুবকের

মাগুরা শহরের সাহা পাড়া এলাকায় বিষাক্ত মদপান করে দুই যুবকের ...

ফ্রিজ বিস্ফোরণে বাড়িঘর পুড়ে ছাই

ফ্রিজ বিস্ফোরণে বাড়িঘর পুড়ে ছাই

জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে অগ্নিকান্ডে একটি বসত বাড়ির দুটি ঘর পুড়ে ছাই ...

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ

নরসিংদীর পলাশে ১৪ বছরের এক কিশোরীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণের ...

তিতে-নেইমারের মনে ধরেছে রির্কালিসনকে

তিতে-নেইমারের মনে ধরেছে রির্কালিসনকে

বয়স সবে ২১ বছর। চলতি মৌসুমে ইংলিশ লিগের দল এভারটনে ...

ভুয়া ওয়েবসাইট চেনার উপায়

ভুয়া ওয়েবসাইট চেনার উপায়

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভুয়া খবর ছড়াতে বিভিন্ন জাতীয় দৈনিক বা ...

দাঁত ব্যথা সারানোর ঘরোয়া উপায়

দাঁত ব্যথা সারানোর ঘরোয়া উপায়

শীতকালে সব ধরনের ব্যথাই কমবেশি বাড়ে। যাদের দাঁতের সমস্যা আছে ...