বাপ্পার নতুন ঘর

প্রকাশ: ১২ জুলাই ২০১৮      

এমদাদ হক

একজন গানের মানুষ, আরেকজন অভিনয়, উপস্থাপনার। একসঙ্গে কাজ করতে গিয়ে তারা একে অপরের কাছে এসেছেন। তৈরি করেছেন বন্ধুত্বের সম্পর্ক। অতঃপর প্রেম, বিয়ে...। বলছি বাপ্পা মজুমদার ও তানিয়া হোসাইনের কথা। সম্প্রতি ভালোবাসার সুখের সংসার সাজিয়েছেন তারা। মগবাজারের নতুন বাসায় একসঙ্গে পাওয়া গেল শোবিজের নতুন এই দম্পতিকে।

সংসারের টুকিটাকি সাজাতে ব্যস্ত তানিয়া হোসাইন। ড্রয়িংরুমে তাকে সাহায্য করছেন বাপ্পা। স্ত্রীর ঘরময় ব্যস্ততা বাপ্পার চোখে অন্যরকম মুগ্ধতা ছড়িয়েছিল। কাজের মাঝেই চলে দু'জনের নানা রকম খুনসুটি। তানিয়া হোসাইন বলেন, নতুন সংসার শুরু করেছি বেশি দিন হয়নি। বিয়ের পরপরই শ্বশুরবাড়িতে ছিলাম বেশ কয়েক দিন। অল্প দিনেই তারা আমাকে বেশ আপন করে নিয়েছিলেন। পরে মগবাজারের বাসায় পেতেছি টোনাটুনির সংসার। সংসার গোছাতে সে [বাপ্পা] বেশ সাহায্য করছে। নতুন সংসার, নতুন জীবন। যা দেখছি, এখন সবকিছুই নতুন মনে হয়। অন্য রকম ভালো লাগা কাজ করছে। বিশ্বকাপ উপলক্ষে আমি বিবিসি জানালায় একটি লাইভ অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করছি। যে জন্য সকাল সকালই আমাকে বাসা থেকে বের হতে হয়। এর পর বাপ্পাই সংসার সামলায়। বিশ্বকাপ শেষ হতে তো আর বেশি বাকি নেই। এর পর দু'জনে সমানতালে সংসার গোছাতে ব্যস্ত হয়ে পড়ব। তানিয়ার কথা শেষ না হতেই কথার সঙ্গে কথা যোগ করেন বাপ্পা- 'একটি আর্দশ সংসারে মূল ভূমিকায় থাকে স্ত্রী। তানিয়া সেই মূল ভূমিকাই পালন করছে। আমি শুধু দেখভাল করছি। রান্নাবান্না এখনও পুরোদমে শুরু হয়নি। আমার খাওয়াদাওয়ার খোঁজখবর নিচ্ছে তানিয়া। খাবার তালিকা খুব দীর্ঘ নয়। আমার প্রিয় খাবার আলু ভর্তা, ডিম ভাজি, মুরগির মাংস। তা তৈরি খুব সহজ। ফলে সংসারে রান্নাবান্নার ঝামেলা একেবারে নেই বললেই চলে। দু'জনে যে সময়টুকু পাই সেই সময়টা সংসার নিয়ে নানা পরিকল্পনা করি। নতুন সংসার নিয়ে অনেক স্বপ্ন রয়েছে আমাদের। দু'জনে নতুন স্বপ্ন বুনি। নতুন জীবন নিয়ে বেশ সুখেই আছি। আগামী পথটায় এভাবেই কাটাতে চাই।

সংসার মানে কী? একই প্রশ্নের উত্তর জানতে চাওয়া হয়েছিল দু'জনের কাছে। প্রথমেই ঝটপট উত্তর দিলেন তানিয়া। 'সংসারের পূর্ণ অভিজ্ঞতা এই প্রথম। সংসার মানে আমার কাছে মনে হয়, সকাল বেলা ঘুম থেকে উঠে সবচেয়ে প্রিয় মানুষটির মুখ দেখা। প্রথম চা একসঙ্গে দু'জনে বসে খেতে শান্তি নিয়ে পুরো দিনের গল্পটা করা। এটাই আমার সংসারে এখন বড় পাওয়া। আমি আমার প্রিয় মানুষটিকে নিয়ে সারাদিন মুগ্ধতায় থাকি। এটাই বেশ শান্তির ব্যাপার। আমরা যে যা-ই করি-না করি; ঘরে যদি শান্তি না থাকে তাহলে বাইরের কাজও পূর্ণ মনোযোগ দিয়ে করতে পারি। আমাদের সেই জায়গাটা খুব ভালোভাবে তৈরি হয়ে গেছে। দু'জন দু'জনকে ভালোভাবেই বুঝেছি। ফলে আমরা ঘরে শান্তি ও বাইরে পূর্ণোদ্যমে কাজ করতে পারছি।

একই প্রশ্নের উত্তরে বাপ্পা বলেন, সংসার মানে আমার কাছে শান্তি। দু'জনের বোঝাপাড়ার একটা বিষয়। সমঝোতা, সহযোগিতা। ভালোবাসায় পরিপূর্ণ একটা জায়গা। এভাবেই আমরা এগিয়ে যেতে চাই। সংসার সুখের হলে সেখানে সব সময় শান্তি বিরাজ করে।

সাজানো সুখের সংসারে তানিয়া-বাপ্পার নিত্য বসবাস। একজন আরেকজনের কাজে বেশ সহযোগিতা করেন।

ভালো লাগার কথা কে প্রথম জানিয়েছিল? তানিয়ার উত্তর- সে [বাপ্পা]। আমাদের কাছাকাছি আসার সময়টা খুবই কম। খুব প্রেম করে যে বিয়ে করলাম, তা কিন্তু নয়। হাবুডুবু প্রেমের কোনো ছোঁয়াই ছিল না। দু'জনের মধ্যে যে ভালো লাগা তৈরি হয়েছে, সেখান থেকে একেবারে বিয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। অনেক সময় চলে গেছে দু'জনের জীবন থেকে। ভালো লাগার পরেই পরিণতির দিকে এগিয়েছি। একটা সময়ে দু'জন অনেক কিছুই শেয়ার করতাম। এক পর্যায়ে আমাদের মধ্যে বন্ধুত্ব গড়ে ওঠে। সে-ই প্রথম উদ্যোগ নেয় একসঙ্গে থাকার। আর আগে থেকেই তার প্রতি আমার ভালো লাগা ছিল। আমি যে মানুষটার কাছে থাকতে চাই, এই মানুষটা হলো সেই মানুষ, যার সঙ্গে আমি সারা জীবন কাটিয়ে দিতে পারি। ভালোবাসা থাকলে সবকিছু সম্ভব। তাকে যখন ভালোবাসি, জীবনের পথ তো একসঙ্গে চলতেই পারি। আমিও সেটাই চিন্তা করেছি। সেই জায়গা থেকেই বিয়ের সিদ্ধান্ত।

পরবর্তী খবর পড়ুন : এক অপরাজিতা

কোটি টাকায় কেনা দীর্ঘশ্বাস

কোটি টাকায় কেনা দীর্ঘশ্বাস

ধানমণ্ডিতে সুপরিসর একটি ফ্ল্যাট কেনার উদ্যোগ নিয়েছিলেন ব্যবসায়ী আহাদুল ইসলাম। ...

বিএনপির জনসভায় আমন্ত্রণ পাচ্ছে না জামায়াত

বিএনপির জনসভায় আমন্ত্রণ পাচ্ছে না জামায়াত

বিএনপির বৃহস্পতিবারের সম্ভাব্য জনসভায় ২০ দলের শরিক জামায়াতে ইসলামীকে কৌশলগত ...

প্রধানমন্ত্রীর ফ্লাইটের ক্রুর মাদক সেবন

প্রধানমন্ত্রীর ফ্লাইটের ক্রুর মাদক সেবন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ফ্লাইটের এক কেবিন ক্রুর মাদক সেবন ও ...

দুদককে পঙ্গু করতে চায় একটি মহল

দুদককে পঙ্গু করতে চায় একটি মহল

দুর্নীতি দমন কমিশনকে (দুদক) একটি অথর্ব প্রতিষ্ঠানে পরিণত করতে অপতৎপরতা ...

নিবর্তনমূলক ধারা বাতিল দাবি সাংবাদিক নেতাদের

নিবর্তনমূলক ধারা বাতিল দাবি সাংবাদিক নেতাদের

স্বাধীন সাংবাদিকতায় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করতে পারে- এমন সব ধারা-উপধারা বহাল ...

ইয়াবা কারবারিরা তবু বেপরোয়া

ইয়াবা কারবারিরা তবু বেপরোয়া

মিয়ানমার থেকে নানা কৌশলে ভিন্ন ভিন্ন রুট ব্যবহার করে সারা ...

বিপিএলের কারণে রশিদকে চেনা ইমরুলের

বিপিএলের কারণে রশিদকে চেনা ইমরুলের

হুট করেই ইমরুল কায়েস এশিয়া কাপের দলে ডাক পান। এরপর ...

মৃত ব্যক্তিকে জীবিত দেখিয়ে ব্যাংক ঋণ!

মৃত ব্যক্তিকে জীবিত দেখিয়ে ব্যাংক ঋণ!

বরিশালে মৃত ব্যক্তিকে জীবিত দেখিয়ে ব্যাংক থেকে ঋণ নেওয়ার অভিযোগ ...