অঞ্জুর ফিরে আসা

প্রকাশ: ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

আল নাহিয়ান

'না ফেরার তো কোনো কারণ নেই। বিশেষ কোনো কারণ কিংবা ব্যক্তির জন্য দেশ ছেড়ে পালিয়েও যাইনি। পাখিরাও সন্ধ্যা হলে ঘরে ফেরে, আমি কেন ফিরব না। আগে হোক পরে হোক দেশে ফিরব- এটাই ছিল আমার ভাবনা। দু'দিনের জন্য কলকাতায় গিয়েছিলাম। এরপর ফেঁসে গেছি। বহুবার দেশে ফেরার পরিকল্পনা করেও আর ফেরা হয়ে ওঠেনি। মাঝখানে দুটি দশক কোথা দিয়ে যে কেটে গেছে- বুঝতেই পারিনি।

কিন্তু সব সময়ই দেশে ফেরার তাগিদ অনুভব করেছি। দেশ আমাকে হাতছানি দিয়ে ডেকেছে প্রতিটি দিন, প্রতিটি ক্ষণ। পৃথিবীর নানা প্রান্তে গিয়েও কখনও ভুনিনি এটাই আমার দেশ। নিঃশ্বাস-প্রশ্বাসের মধ্য দিয়ে এদেশেই বেড়ে উঠেছি। সেই নিঃশ্বাস নিয়েই বেঁচে এখনও।' স্বল্প সময়ের জন্য দেশে ফিরে এ কথাই বললেন তারকা অভিনেত্রী অঞ্জু ঘোষ। ২২ বছরে দেশে ছিলেন না, কিন্তু আদৌ ফিরবেন কি-না- তা নিয়েও অনেকে ছিলেন সন্ধিহান। কিন্তু অঞ্জু ঘোষ যে দেশে ফিরতে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ ছিলেন- সে কথা জানা ছিল না অনেকের।

আকাশচুম্বী সাফল্যের পরও কোনো লাখ লাখ ভক্ত-অনুরাগীকে ফেলে কোনো শিল্পী ভিনদেশে ঠিকানা খুঁজে নেবেন- এও ছিল অনেকের কাছে অবিশ্বাস্য। কিন্তু সেটাই করেছেন অঞ্জু ঘোষ। কিন্তু কেন? তার উত্তরে বললেন, 'আমি আদৌ দেশ ছেড়ে যাইনি। ওই যে বললাম, মাকে দেখতে গিয়েছিলাম। দু'দিন পরই ফিরে আসার কথা; কিন্তু কীভাবে যেন আটকা পড়ে গেলাম। আর ফিরতে ফিরতে এত বছর কেটে গেল। আমার সঙ্গে মায়েরও আসার কথা ছিল। কিন্তু আজ তিনি আমাদের মাঝে নেই। মাকে ছাড়া আসতে হয়েছে- এটা ভাবলে কষ্ট লাগে। আর ভক্তদের ছেড়ে যাওয়ার কথা যেটা বললেন, সেটা হয়তো ঠিক নয়।

ভক্তদের ভালোবাসায় আমি অঞ্জু ঘোষ হয়েছি। তাদের ছেড়ে চলে যাওয়ার কথা তো স্বপ্নেও ভাবিনি। কিন্তু সেইসব ভক্তকে ছেড়ে দীর্ঘদিন দূরে থাকাই হয়তো নিয়তি। নইলে এমন কেন হবে?' প্রশ্নের উত্তরে প্রশ্ন দিয়েই কথা শেষ করলেন অঞ্জু ঘোষ। তার কথায় স্পষ্ট, নিজ ইচ্ছায় দেশ ছাড়েননি তিনি। নিয়তি তাকে ভিনদেশে টেনে নিয়ে গেছে। কাঁটাতারের সীমানা পেরিয়ে আসার পথটাও রুদ্ধ করে রেখেছে। তার পরও অঞ্জু জানতেন, ভক্তরা তার প্রতীক্ষায় আছেন। তাদের ডাক আর দেশপ্রেমের তাগিদেই তাকে ফিরতে হবে। পা রাখতে হবে জন্মভূমিতে। সে কারণেই তার ফিরে আসা।

কতদিন পর দেশে ফিরেছেন, সেটা বড় বিষয় নয়, তিনি এসেছেন- এটাই আনন্দের বিষয়। তাই তো বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতিতে হতাশ হতে হয়নি অঞ্জু ঘোষকে। যে প্রাঙ্গণে দিনরাত অভিনয় করছেন, সেই বিএফডিসিতেই তাকে সম্মান জানানো হয়েছে। শিল্পী সমিতির আজীবন সদস্য পদও দেওয়া হয়েছে তাকে। শুধু তাই নয়, 'জোসনা কেন বনবাসে'সহ দুটি চলচ্চিত্রে অভিনয়ের প্রস্তাবও দেওয়া হয়েছে। সে কারণেই আবেগাল্পুত হয়ে অঞ্জু বলেন, 'এতদিন পরও আমাকে সবাই মনে রেখেছেন, এটা শিল্পীজীবনের পরম পাওয়া। দেশে এসে এভাবে সম্মানিত হওয়া, চলচ্চিত্রে অভিনয়ের প্রস্তাব পাওয়া- এ সবই প্রত্যাশার চেয়ে অনেক বেশি কিছু। ঠিক বলে বোঝাতে পারব না, বিষয়টা আমার জন্য কতটা আনন্দের।'

অপ্রত্যাশিত হলেও এটুকু প্রাপ্তি অঞ্জু ঘোষের পাওনা ছিল বলেই মনে করেন চলচ্চিত্র সংশ্নিষ্ট এবং তার সব ভক্ত। কারণ একটাই- 'সওদাগর' থেকে শুরু করে 'নরম গরম', 'বড়ভালো লোক ছিল', 'আবে হায়াত', 'রাজ সিংহাসন', 'রাই বিনোদিনী', 'শঙ্খমালা', 'বেদের মেয়ে জোসনা', 'সোনাই বন্ধু', 'আয়না বিবির পালা', 'আশা নিরাশা', 'রঙিন নবাব সিরাজ-উদ-দৌলা', 'মালাবদল', 'আশীর্বাদ', 'সম্পর্ক'সহ তিন শতাধিক ছবিতে অভিনয় করে অগণিত ভক্তের ভালোবাসা কুড়িয়েছেন তিনি।

যে কারণে তার কাছে দর্শকের প্রত্যাশার কমতি ছিল না। দেশীয় চলচ্চিত্রে তাকে দীর্ঘদিন দেখা যায়নি বলে কখনোই তাকে বড় পর্দায় আর দেখা যাবে না- এ কথাও মনে করেননি কেউ। তাই তো আরও একবার দেশীয় চলচ্চিত্রে অঞ্জুকে দেখা যাবে- এই খবরে আনন্দিত হয়েছেন অনেকেই। অঞ্জু ঘোষের কথায়, 'শিল্পীর জন্য নির্দিষ্ট কোনো সময় নেই। যখনই তিনি ক্যামেরার সামনে দাঁড়াবেন, তখনই তার সময়। সময়ের সঙ্গে বদলাবে ছবির ধরন, নির্মাণ ও চরিত্রের ধরন। কিন্তু শিল্পী বেঁচে থাকবেন তার অভিনয় দিয়ে। আমিও সেভাবেই বেঁচে থাকতে চাই।'

পরবর্তী খবর পড়ুন : হিংসে হয়!

সিরাজগঞ্জে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

সিরাজগঞ্জে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

সিরাজগঞ্জে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যদণ্ডের রায় দিয়েছেন ...

টেস্ট দলে ঢুকলেন সাদমান ইসলাম

টেস্ট দলে ঢুকলেন সাদমান ইসলাম

বাংলাদেশ ঘরের মাঠে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম টেস্টের জন্য ১৩ ...

মমতাজের পরিবারে নতুন সদস্য

মমতাজের পরিবারে নতুন সদস্য

দাদি হলেন ফোক গানের জনপ্রিয় শিল্পী মমতাজ বেগম। সোমবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ...

ঢাবি ‘ঘ’ ইউনিটের পুনঃভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ

ঢাবি ‘ঘ’ ইউনিটের পুনঃভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‌‘ঘ’ ইউনিটের পুনঃভর্তি পরীক্ষার ফল ...

সাত খুন মামলায় হাইকোর্টের পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ

সাত খুন মামলায় হাইকোর্টের পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ

নারায়ণগঞ্জে চাঞ্চল্যকর সাত খুন মামলায় হাইকোর্টের পূর্ণাঙ্গ রায় সুপ্রিম কোর্টের ...

বাংলাদেশ ফিল্ডারদের দৃষ্টিভঙ্গি দ. আফ্রিকার মতো!

বাংলাদেশ ফিল্ডারদের দৃষ্টিভঙ্গি দ. আফ্রিকার মতো!

বড় রান তাড়া করার পেছনে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের বড় সমস্যা ধরা ...

খালেদা জিয়া নির্বাচনে প্রার্থী হতে পারবেন: ফখরুল

খালেদা জিয়া নির্বাচনে প্রার্থী হতে পারবেন: ফখরুল

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী ...

‘ছবি মুক্তি না পাওয়ায় শান্তি পাচ্ছি না’

‘ছবি মুক্তি না পাওয়ায় শান্তি পাচ্ছি না’

যশোরের মেয়ে আইরিন সুলতানা। ঢাকাই ছবির এই প্রজন্মের অন্যতম পরিচিত ...