আধুনিকে আরাম

প্রকাশ: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮      
ছেলেরা এখন বেশ সচেতন পোশাক ও অনুষঙ্গ নিয়ে। ফ্যাশনে ঋতুর প্রভাব বেশ আমাদের দেশে। এ সময়ের গরমে কেমন হতে পারে ছেলেদের ফ্যাশন জানাচ্ছেন সৈয়দ ত্বহা

বছরের এ সময়টাতে শরৎ থাকে দেশজুড়ে। সাধারণত আমাদের দেশে ইংরেজি বছরের মধ্য আগস্ট থেকে মধ্য সেপ্টেম্বর পর্যন্ত কিংবা তার কমবেশি সময় ধরে অবস্থান করে শরৎ। গরমের এই সময়টাতে মানুষ তার সাধারণ জীবন-যাপনে আনে পরিবর্তনের ছোঁয়া। কেননা, এ সময়টাতে প্রচণ্ড গরমে দমবন্ধ পরিবেশ তৈরি হয় না। আকাশে সাদা মেঘের ভেলায় হালকা এক ধরনের মিষ্টি বাতাসের ছোঁয়া পাওয়া যায় প্রকৃতিতে। পোশাক পরিচ্ছদের পরিবর্তন ব্যতিক্রম নয় এ সময়। আর আমাদের দেশে ঋতুর পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে পোশাকের পরিবর্তনেও অনেক সুন্দর রীতি প্রচলিত। তাই তো গরমের এই সময়টাতে মানুষ তাদের দৈনন্দিন জীবনে একটু হালকা রঙের, পাতলা ও সুতি পোশাকের গুরুত্বটা বেশিই দিয়ে থাকে। আর যখন আবহাওয়া তার গড় তাপমাত্রা ৩১ ডিগ্রিতে স্থির রাখে, তখন স্বাচ্ছন্দ্যবোধের পোশাক না পরে কি কোনো উপায় আছে? গরমের সঙ্গে সঙ্গে রোদের প্রকোপও থাকে এ সময়। রোদের কারণে চোখের অনেক ক্ষতি হয়। তাই রোদের হাত থেকে চোখকে রক্ষা করার জন্যও ভাবতে হবে। দেশের স্বনামধন্য একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ূয়া তাহামিদ ও তার বন্ধুদের সঙ্গে কথা বলতেই জানা গেল এই আবহাওয়ায় তাদের পছন্দের পোশাক সম্পর্কে। গরমের এ সময় তারা হাফহাতা সুতির শার্টেই বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন। পরতে আরামদায়ক, সুতির পোশাকে ব্যবহার করা হয় তুলা, যার জন্য সহজেই শরীরে বাতাস প্রবেশ করাতে সাহায্য করে, চামড়ার কোনোরকম ক্ষতিসাধন করে না, অপেক্ষাকৃত সস্তা, সঙ্কুচিত হয় না। আর সব থেকে বড় বিষয়টা হলো- এই ধরনের ফেব্রিকে নানা মাধ্যমে অলঙ্করণ করা যায় সহজে। মেশিন প্রিন্ট, ব্লক, বাটিক, হালকা এমব্রয়ডারিসহ নানা কাজ এ ফেব্রিকে মানিয়ে যায়। রঙের ক্ষেত্রে এ সময় হালকা ধরনের রঙের সঙ্গে গাঢ় রঙও থাকবে পছন্দের তালিকায়। হাফ শার্টে করা যায় বিভিন্ন ধরনের নিরীক্ষাধর্মী কাজ। একঘেয়েমি আসে না তেমনভাবে। এ কারণেই তরুণ প্রজন্মের কাছে সুতির তৈরি হাফহাতা শার্টের জনপ্রিয়তা দিন দিন বেড়েই চলেছে। আর বাড়ছে এর ব্যবহারও। শুধু তরুণ প্রজন্মই তাদের পছন্দের পোশাকের স্থানে সুতির তৈরি হাফহাতা শার্টকে স্থান দেয়নি; মধ্যবয়সী আর প্রৌঢ় বয়সের পুরুষদের পছন্দের তালিকার প্রথম দিকেই আছে এই পোশাকটি। সবারই পছন্দের কারণ কমবেশি একই। একটি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত ইকরামুলের সঙ্গে কথার মাধ্যমে জানা গেল তার পছন্দের কথা। কর্মক্ষেত্রে পোশাক নিয়ে কোনোরকম বাধা না থাকায় ও পরনে আরামদায়ক হওয়ার কারণে প্রায়ই সুতির তৈরি হাফহাতা শার্ট পরে কর্মক্ষেত্রে আসা হয়। ডিজাইন ও রঙের কথা বলতে গেলে বর্তমান সময়ে হালকা রঙকেই বেশি প্রাধান্য দেওয়া হয়। আর ডিজাইনের জন্য প্রিন্টের ব্যবহার দিনে দিনে জনপ্রিয়তা পাচ্ছে। সঙ্গে সঙ্গে ব্লক, বাটিক আর হ্যান্ড পেইন্টের শার্টের চাহিদা তো আছেই। বর্তমান সময়ে হাফহাতা শার্টের পকেট আর কলারে বিভিন্নভাবে ডিজাইনের পরিবর্তন লক্ষ্য করা যাচ্ছে।

কলারে ফতুয়া কাটিং কিংবা কলার ছাড়া শার্ট, পকেটের ক্ষেত্রে কখনও সামনে পকেট, কখনও হাতায় আবার কখনও পকেটই থাকে না। এসব পরিবর্তন বিভিন্ন সময় বিভিন্নভাবে ক্রেতাদের সামনে নিয়ে আসা হয়। আর এসব কিছুর মাঝ থেকেই ক্রেতারা তাদের নিজের পছন্দমতো স্বাচ্ছন্দ্যের পোশাকটি নির্বাচন করে সাজিয়ে তোলেন নিজেদের মতো করে। হাফ শার্টের সঙ্গে প্যান্ট পরতে আরামদায়ক। ফরমাল প্যান্টেও যেমন খারাপ লাগবে না, তেমনি গ্যাবার্ডিন এবং জিন্সের প্যান্টের সঙ্গে মানিয়ে যাবে বেশ। সানগ্লাস অথবা রোদচশমা যে নামেই ডাকা হোক না কেন, রোদের হাত থেকে চোখকে রক্ষা করতে এগুলো সদা প্রস্তুত। শুধু রোদ থেকেই রক্ষা না, চোখের সৌন্দর্য অনেকাংশেই বৃদ্ধির কারণ এই রোদচশমা। সূর্যের ক্ষতিকর অতিবেগুনি রশ্মি চোখের পাতা, কর্নিয়া অথবা চোখের মণির জন্য ক্ষতিকর। কিন্তু সানগ্লাস চোখে থাকলে সেই ক্ষতির আশঙ্কা ঘুচে যায় অনেকাংশে। কিন্তু অন্যদের কাছে নিজেকে আরও আকর্ষণীয়ভাবে প্রকাশ করার আগে দেখে নিতে হবে কোন ডিজাইনের সানগ্লাসটি চেহারার সঙ্গে মানানসই। বাজারে এখন প্রতিদিনই নতুন নতুন ডিজাইনের সানগ্লাস পাওয়া যাচ্ছে। অন্য কারও দেখে নিজের জন্য একই ডিজাইনের কোনো কিছুই পছন্দ করে ব্যবহার করার ধারণাতে আনতে হবে পরিবর্তন। কারণ যেটা অন্যদের ভালো লাগছে সেটা হয়তো আপনাকে ভালো নাও লাগতে পারে। তারপরও নিজের জন্য কোনো কিছু পছন্দ করার আগে একটু ভেবেচিন্তে করা উচিত, যাতে একটু আলাদাভাবে উপস্থাপনা করা যায় নিজেকে সবার কাছে। সানগ্লাস কেনার আগে যে বিষয়টা সবার আগে খেয়াল রাখতে হবে তা হলো চোখের নিরাপত্তার কথা। কারণ কম দামি অথবা রাস্তার পাশের ফুটপাতে পাওয়া যায় এমন সানগ্লাসের কারণে চোখের ক্ষতি হতে পারে। কারণ তারা যে গ্লাস ব্যবহার করে তা অধিকাংশই মানসম্পন্ন হয় না। রোদের হাত থেকে চোখকে রক্ষা তো করতেই পারে না, বরং ব্যবহারে চোখ নষ্ট হয়ে যাওয়ার মতো ঘটনা ঘটতে পারে। তাই সানগ্লাস কেনার আগে সব সময় নিজের চোখের নিরাপত্তার কথা আগেভাগে ভেবে নেওয়া ভালো।



ছবি : শৈলী আর্কাইভ
মাউশির মহাপরিচালক সৈয়দ গোলাম ফারুক

মাউশির মহাপরিচালক সৈয়দ গোলাম ফারুক

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদফতরের (মাউশি) মহাপরিচালক হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন  ...

দীপিকা-রণবীরের বাড়ির দাম কত?

দীপিকা-রণবীরের বাড়ির দাম কত?

ইতালির লেক কোমোতে গত ১৪ ও ১৫ নভেম্বরে রাজকীয় বিয়ের ...

থাইরয়েডের সমস্যার নানা উপসর্গ

থাইরয়েডের সমস্যার নানা উপসর্গ

থাইরয়েড গ্রন্থির কাজ হলো শরীরের কিছু অত্যাবশ্যকীয় হরমোন (থাইরয়েড হরমোন) ...

ড. কামালের কাছে মনোনয়ন ফরম জমা দিলেন রেজা কিবরিয়া

ড. কামালের কাছে মনোনয়ন ফরম জমা দিলেন রেজা কিবরিয়া

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম শরীক দল গণফোরামের হয়ে আসন্ন একাদশ জাতীয় ...

আগাম জামিন পেলেন মির্জা আব্বাস ও তার স্ত্রী

আগাম জামিন পেলেন মির্জা আব্বাস ও তার স্ত্রী

রাজধানীর নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সংঘর্ষ ও পুলিশের ...

পিঠ থেকে ঈশানের হাত সরিয়ে দিলেন মীরা

পিঠ থেকে ঈশানের হাত সরিয়ে দিলেন মীরা

দেবর ঈশান খট্টরের সঙ্গে যে শহিদ কাপুরের স্ত্রী মীরা রাজপুতের ...

দেশে ফিরেই ভক্তদের ভালবাসায় সিক্ত রণবীর-দীপিকা দম্পতি

দেশে ফিরেই ভক্তদের ভালবাসায় সিক্ত রণবীর-দীপিকা দম্পতি

ইতালির লেক কমোতে দুই দিনের জাকজমকপূর্ণ বিয়ের পর মুম্বাই ফিরেছেন ...

ইতালিকে রুখে দিয়ে নেশন্স লিগের সেমিফাইনালে পর্তুগাল

ইতালিকে রুখে দিয়ে নেশন্স লিগের সেমিফাইনালে পর্তুগাল

ইতালির সঙ্গে সান সিরোতে গোলশূন্য ড্র করে প্রথম দল হিসেবে ...