শিশুর খেয়াল রাখি

প্রকাশ: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮      
ভাদ্র মাসের গরমে নানা অসুখ দেখা দেয়। তাই শিশুর জন্য দরকার বাড়তি সচেতনতা ও বিশেষ যত্ন। লিখেছেন ফারজানা নীলা

অস্বস্তিকর গরম শিশুদের করে তুলছে অসুস্থ। শহরজুড়ে নানারকম অসুখের খবর শোনা যাচ্ছে। শিশুদের এ সময় বিভিন্ন রকম রোগ অতিষ্ঠ করে তুলছে অভিভাবকদের। রোগের প্রকোপ কমা পর্যন্ত নয় শুধু, বছরজুড়েই রাখতে হবে শিশুর খেয়াল।

ডেঙ্গু জ্বর

শহরজুড়েই ডেঙ্গু জ্বর বেশ প্রভাব বিস্তার করেছে। শিশুর অসুস্থতার অন্যতম কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে ডেঙ্গু জ্বর। এ জ্বর থেকে শিশুকে সুস্থ রাখতে সব থেকে বেশি প্রয়োজন সচেতনতা। মশারি খাটিয়ে ঘুমান। গায়ের খোলা অংশে মশা নিরোধক লোশন বা ক্রিম মেখে নিন সকাল থেকেই। যদি জ্বর চলেই আসে, তাহলে যত দ্রুত সম্ভব চিকিৎসকের শরণাপন্ন হন।

চিকেন পক্স

এটা সাধারণত ১-৫ বছরের শিশুদের বেশি হয়। চিকেন পক্সের টিকা নেওয়া থাকলে এ রোগটি হওয়ার আশঙ্কা বেশ খানিকটা কমে যায়। এ সময় শিশুকে নরম সুতিকাপড় পরাতে হবে। তরল বা নরম জাতীয় খাবার খাওয়াতে হবে। বেশি করে পানি খাওয়াতে হবে। এর সঙ্গে অবশ্যই মায়ের দুধ খাওয়াতে হবে।

চামড়ার র‌্যাশ বা ফুসকুড়ি

শিশুদের ক্ষেত্রে এ সমস্যাটা বেশি দেখা যায়। এটা সাধারণত ঘামাচি বা চামড়ার ওপরে লাল দানার মতো ফুসকুড়ি হয়ে থাকে। এ র‌্যাশ বা ফুসকুড়ি চুলকানোর কারণে শিশুকে পরিস্কার রাখতে হবে। নিয়মিত গোসল করিয়ে পরিস্কার জামা পরাতে হবে। ফুসকুড়ির জায়গাগুলোয় বেবি পাউডার লাগাতে পারেন। এতে চুলকানি কিছুটা কমে যাবে। প্রতিবার কাপড় বদলানোর সময় শিশুকে নরম ভেজা কাপড় দিয়ে মুছে পাউডার লাগিয়ে দিতে হবে। অনেক সময় ডায়াপায়ের কারণেও হতে পারে, তাই খেয়াল রাখতে হবে ভেজা ডায়াপার যেন শিশুর গায়ে বেশিক্ষণ না থাকে। ডায়াপার নষ্ট হয়ে গেলে সঙ্গে সঙ্গে তা খুলে নতুন ডায়াপার পরিয়ে দিন। তবে গরমের সময় বেশিক্ষণ ডায়াপার না পরিয়ে রাখাই ভালো। অনেক সময় র‌্যাশ বেশি হয়ে গেলে ঘা হয়ে যেতে পারে। সে ক্ষেত্রে অবশ্যই বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিতে হবে।

ডায়রিয়া

গরমের সময় সাধারণত ডায়রিয়া বেশি হয়। শিশুর পেট খারাপ হলে তাকে ঘন ঘন স্যালাইন খাওয়াতে হবে। সেই সঙ্গে পানি অথবা ডাবের পানি খাওয়াতে হবে। একইসঙ্গে তাকে তরল খাবারও দিতে হবে। লক্ষ্য রাখতে হবে যেন শিশুর পানিশূন্যতা না হয় এবং তার প্রস্রাবের পরিমাণ স্বাভাবিক থাকে। এ ছাড়া শিশুর পায়খানার সঙ্গে যদি রক্ত যায় তবে অবহেলা না করে অবশ্যই বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিতে হবে। ছয় মাস বয়সী শিশুদের ক্ষেত্রে এ সময় কোনো অবস্থায়ই মায়ের দুধ বন্ধ করা যাবে না। সেই সঙ্গে পানি ও অন্যান্য খাবারও দিতে হবে।

ঠাণ্ডা

গরমে শিশুদের ক্ষেত্রে ঠাণ্ডার সমস্যাটাও বেশি হতে দেখা যায়। গরমে অতিরিক্ত ঘামের ফলে ঠাণ্ডা লেগে যেতে পারে। তাই শিশু ঘেমে গেলে সঙ্গে সঙ্গে তার শরীর মুছে দিয়ে কাপড় বদলে দিতে হবে। গরমে শিশুকে নিয়মিত গোসল করাতে হবে এবং তাকে সবসময় পরিস্কার রাখতে হবে। এ সময় ঠাণ্ডা লেগে শিশুর মামস হতে পারে। মামস অনেক সময় অল্পদিনে সেরে যায়। কিন্তু বেশিদিন গড়ালে শিশুকে এমএমআর ইনজেকশন দেওয়া হয়। এ ছাড়া বিশেষজ্ঞের পরমার্শমতো ব্যবস্থা নিতে হবে।

চুল

গরমে আদরের ছোট্টমণির চুলের দিকেও নজর দিতে হবে। গরমে চুলের গোড়া ঘেমে যায়, সঙ্গে ধুলাবালির আক্রমণ তো রয়েছেই। তাই রোগ প্রতিরোধে প্রথমেই শিশুদের চুলের প্রতি বিশেষ যত্ন নিন। অনেক সময় অতিরিক্ত গরমে চুলের ত্বকে খুশকি বা ঘামাচি বের হয়। তাই গরমের শুরুতেই শিশুর চুল ছেঁটে ছোট করে দিতে হবে। এতে চুলের গোড়া ঘেমে গেলেও তাড়াতাড়ি শুকিয়ে যায়। এক বছর বা তার কম বয়সী শিশুদের গরমের সময় মাথা অবশ্যই ন্যাড়া করে দিতে হবে। আর চুল একান্তই লম্বা রাখতে চাইলে তার প্রতি আরও একটু যত্নশীল হবেন। গোসল করার পর চুল ভালোভাবে মুছে দিন। বড় ফাঁকওয়ালা চিরুনি দিয়ে চুলটা ঠিকভাবে আঁচড়ে দিন। এরপর চুল শুকিয়ে গেলে তা ভালোভাবে বেঁধে দিন। শিশুর চুলে তাদের উপযোগী ও ভালোমানের শ্যাম্পু ব্যবহার করতে হবে। তাদের জন্য আলাদা চিরুনি ব্যবহার করা উচিত। সপ্তাহে দুই দিন শিশুর চুলে শ্যাম্পু করা ভালো। গরমের সময় শিশুর পোশাক অবশ্যই আরামদায়ক হতে হবে। সিল্ক্ক, জিন্স কিংবা লিনেন কাপড় এড়িয়ে চলুন। গরমের সময় নরম সুতি কাপড়ই শিশুদের জন্য উপযোগী। বাচ্চারা ঘামে বেশি, তাই খেয়াল রাখুন পোশাক যেন হয় ঢিলেঢালা এবং একটু খোলামেলা। যাতে খুব সহজেই ঘাম শুকিয়ে যেতে পারে। সোনামণির পোশাকের রঙ বাছাইয়ের ক্ষেত্রেও সাবধান হতে হবে বাবা-মাকে। গাঢ় কোনো রঙ পছন্দ করার চেয়ে সাদা কিংবা হালকা গোলাপি অথবা উজ্জ্বল হালকা রঙের পোশাক বাছাই করুন। এ ধরনের পোশাকে গরম কম অনুভূত হয়।



ছবি : শৈলী

পরবর্তী খবর পড়ুন : বাইক্কা বিলে...

রাজশাহী খুলনা বরিশাল ও রংপুরের ৮১ আসনে আ'লীগের প্রার্থী চূড়ান্ত

রাজশাহী খুলনা বরিশাল ও রংপুরের ৮১ আসনে আ'লীগের প্রার্থী চূড়ান্ত

রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল ও রংপুর বিভাগের কমপক্ষে ৮১ আসনে দলীয় ...

এমপি হতে চান ১২ হাজার!

এমপি হতে চান ১২ হাজার!

আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে এমপি হতে চান ১২ হাজারের বেশি নেতা। ...

শিক্ষকদের ভোটের 'ভেট'

শিক্ষকদের ভোটের 'ভেট'

নির্বাচনের আগেই সারাদেশের সরকারি ও বেসরকারি শিক্ষকরা পেলেন বেশ কিছু ...

শেকড়ের টান উপেক্ষা করা যায় না

শেকড়ের টান উপেক্ষা করা যায় না

ইউরোপে যখন রক আর টেকনো নিয়ে মাতামাতি চলছে, ঠিক সেই ...

নতুন মুখ আসতে পারে বগুড়ার তিন আসনে

নতুন মুখ আসতে পারে বগুড়ার তিন আসনে

বগুড়ায় এবার অন্তত তিনটি আসনে ধানের শীষ প্রতীকে নতুন প্রার্থী ...

জয়পুরহাটে লেভেল ক্রসিংয়ে অল্পের জন্য বাঁচলো ৪৮ বাস যাত্রী

জয়পুরহাটে লেভেল ক্রসিংয়ে অল্পের জন্য বাঁচলো ৪৮ বাস যাত্রী

জয়পুরহাটের আক্কেলপুর পৌর এলাকার পশ্চিম আমুট্ট (মহিলা কলেজ সংলগ্ন) এলাকায় ...

সিডরে নিখোঁজের ১১ বছর পর প্রত্যাবর্তন

সিডরে নিখোঁজের ১১ বছর পর প্রত্যাবর্তন

প্রলংয়করী ঘূর্ণিঝড় সিডরে নিখোঁজের ১১ বছর পর বাড়ি ফিরেছেন শরণখোলা ...

সরকারি কাজে বাধা দেয়ায় রাবি ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতির জেল

সরকারি কাজে বাধা দেয়ায় রাবি ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতির জেল

সরকারি কাজে বাধা দেয়ার অভিযোগে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাবেক ...