দায়িত্বে ব্যর্থতা, ছিল না সুরক্ষার ব্যবস্থাও

আশুলিয়ার কারখানায় আগুন নিয়ে মানবাধিকার কমিশনের প্রতিবেদন

প্রকাশ: ১২ ডিসেম্বর ২০১৬      

বকুল আহমেদ

ঢাকার আশুলিয়ার জিরাব এলাকার গ্যাসলাইটার তৈরির কারখানা কালার ম্যাক্স (বিডি) লিমিটেডে শ্রমিকদের নিরাপত্তাহীনতায় সরকারের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে দায়ী করেছে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের তদন্ত কমিটি। তাদের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ওই কারখানায় পর্যাপ্ত অগি্ননির্বাপণ ব্যবস্থা ছিল না। কারখানার যে কক্ষে অল্টার থেকে গ্যাস বের করা হতো, সেখানে তা ছড়িয়ে থাকত। ফলে আগুনে বড় ধরনের দুর্ঘটনার ঝুঁকি ছিল।

অল্টারের ওপরের অংশ থেকে আগুন সৃষ্টির আশঙ্কা থাকলেও গ্যাস নির্গমনের সময় তা খুলে রাখা হতো না। ঝুঁকিপূর্ণ এ কাজে শিশুদের নিয়োগ দেওয়া হয়েছিল। আগুন থেকে রক্ষা পেতে প্রয়োজনীয় সুরক্ষা ব্যবস্থাও ছিল না। গত ২২ নভেম্বর কালার ম্যাক্স লাইটার কারখানায় আগুনের ঘটনা ঘটে। এতে ২৬ নারী-শিশু শ্রমিক দগ্ধ হন। তাদের মধ্যে পাঁচজনের মৃত্যু হয়। অগি্নকাণ্ডের ঘটনায় স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে মানবাধিকার কমিশন তদন্ত কমিটি গঠন করে। কমিটির প্রধান মানবাধিকার কমিশনের পরিচালক (অভিযোগ ও তদন্ত) মো. শরীফ উদ্দীন সমকালকে বলেন, আমরা তদন্ত প্রতিবেদন কমিশনে জমা দিয়েছে। তাতে সাতটি সুপারিশ করা হয়েছে।
প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, কারখানায় শ্রমিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত এবং শিশুশ্রম নিরসনের দায়িত্ব শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় ও এর দপ্তরগুলোর ওপর ন্যস্ত। কিন্তু কালার ম্যাক্স কারখানার নিরাপত্তাহীনতা ও শিশুশ্রম দীর্ঘদিন ধরেই চলছিল। ফলে তাদের ব্যর্থতাই আগুনের ঘটনা ঘটে বলে উল্লেখ করা হয়।

সুপারিশে বলা হয়, শিশু বা কিশোরকে চাকরিতে নিয়োগ দেওয়ার জন্য কারখানার মালিককে শ্রম আইনের আওতায় বিচারের ব্যবস্থা করতে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়কে বলা যেতে পারে। কারখানায় দুর্ঘটনার ক্ষেত্রে দ্রুত বিচার নিশ্চিত না করায় এ ধরনের দুর্ঘটনার পুনরাবৃত্তি হচ্ছে। আগের দুর্ঘটনাগুলোর জন্য দ্রুত বিচারের মাধ্যমে দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে। কর্মক্ষেত্রে শ্রমিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে শ্রম ও কর্মসংস্থান ও এর দপ্তরগুলো প্রয়োজনীয় তদারকি করতে ব্যর্থ হওয়ায় দায়ী কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশও করা হয়।

এদিকে দুর্ঘটনার পর ওইদিনই ২০ জনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছিল। অন্যদের সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালসহ স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ঢামেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের আবাসিক চিকিৎসক পার্থ শঙ্কর পাল সমকালকে বলেন, ওই দুর্ঘটনায় দগ্ধ ১০ শ্রমিক এখনও চিকিৎসা নিচ্ছেন। তাদের ঝুঁকি কাটেনি।

প্রতিষ্ঠান চেয়ারম্যানের মৃত্যু: কালার ম্যাক্স (বিডি) লিমিটেডে আগুনের ঘটনায় মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছিলেন প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান মাহমুদ আলম। এ অবস্থায় ৭ ডিসেম্বর রাজধানীর কাঁটাবনের নিজ বাসায় হৃদরোগে তার মৃত্যু হয়। অগি্নকাণ্ডের ঘটনায় শ্রম আদালতে কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের দায়ের করা দুটি মামলার তিনি প্রধান আসামি ছিলেন।

রূপসা রেলসেতুর প্রথম স্প্যান বসছে জুনে

রূপসা রেলসেতুর প্রথম স্প্যান বসছে জুনে

খুলনা থেকে মোংলা পর্যন্ত রেললাইন নির্মাণ প্রকল্পের রূপসা রেলসেতুর প্রথম ...

চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের নতুন কমিশনার মাহাবুবর রহমান

চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের নতুন কমিশনার মাহাবুবর রহমান

চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশ কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছেন ডিআইজি পদমর্যাদার মোহাম্মদ ...

ডিগ্রি ও সার্টিফিকেট কোর্স পরীক্ষার সংশোধিত সূচি

ডিগ্রি ও সার্টিফিকেট কোর্স পরীক্ষার সংশোধিত সূচি

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৭ সালের ডিগ্রি পাস ও সার্টিফিকেট কোর্সের প্রথম ...

ক্ষমতায় আসার দেন-দরবার করতেই ভারত সফর: রিজভী

ক্ষমতায় আসার দেন-দরবার করতেই ভারত সফর: রিজভী

ক্ষমতায় আসার দেন-দরবার করতেই প্রধানমন্ত্রী ভারত সফর করেছেন- এমন অভিযোগ ...

বৃষ্টি থেকে বাঁচানোর নাম করে কিশোরীকে ধর্ষণ!

বৃষ্টি থেকে বাঁচানোর নাম করে কিশোরীকে ধর্ষণ!

বাড়ি থেকে কর্মস্থলে যাওয়ার পথে বৃষ্টি থেকে বাঁচতে গিয়ে গণধর্ষণের ...

দুর্ঘটনায় দুই বাংলাদেশি শান্তিরক্ষীর মৃত্যু

দুর্ঘটনায় দুই বাংলাদেশি শান্তিরক্ষীর মৃত্যু

মধ্য আফ্রিকান প্রজাতন্ত্রে জাতিসংঘ মিশনে দায়িত্ব পালনকালে সড়ক দুর্ঘটনায় দুই ...

ফাইনালে চেন্নাই গেরো কাটবে সাকিবদের?

ফাইনালে চেন্নাই গেরো কাটবে সাকিবদের?

এবারের আইপিএলের হাজার হাজার মাইল পথ পাড়ি দেওয়া শেষ। ইডেন ...

মা হতে চলেছে জুলিয়েট

মা হতে চলেছে জুলিয়েট

সুন্দরবনের একমাত্র কুমির প্রজনন কেন্দ্র করমজলে আবারও ডিম পেড়েছে মা ...