কুলখানিতে নিহত প্রকৌশলী সত্যব্রতের দাহক্রিয়া রাঙামাটিতে

প্রকাশ: ১৯ ডিসেম্বর ২০১৭     আপডেট: ১৯ ডিসেম্বর ২০১৭      

রাঙামাটি প্রতিনিধি

চট্টগ্রামের সাবেক মেয়র প্রয়াত এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরীর কুলখানির মেজবান খেতে গিয়ে পদদলিত হয়ে নিহত রাঙামাটির বাসিন্দা প্রকৌশলী সত্যব্রত ভট্টাচার্য পংকজের (৪২) মরদেহের দাহক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে। 

মঙ্গলবার সকালে শহরের আসামবস্তি শ্মশানে তার দাহক্রিয়া সম্পন্ন হয়। 

নিহত সত্যব্রত পংকজের বাড়ি রাঙামাটি শহরের কালিন্দীপুর এলাকায়। পংকজের বাবার নাম অমরেন্দ্র ভট্টাচার্য, মা আশালতা ভট্টাচার্য। পংকজ চার ভাই ও এক বোনের মধ্যে মেঝো। তার এক মেয়ে ও এক ছেলে রয়েছে। তিনি পরিবার নিয়ে লক্ষ্মীপুরে থাকতেন।

এলাকাবাসী ও নিহতের বড় ভাইয়ের বন্ধু দেবব্রত চৌধুরী কুমকুম সমকালকে জানান, মঙ্গলবার সকাল ১১ টার দিকে শহরের আসামবস্তির কেন্দ্রীয় শ্মশানে প্রকৌশলী সত্যব্রত ভট্টাচার্য পংকজের শেষকৃত্য অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে আত্বীয়-স্বজন, বন্ধুবাবন্ধরা উপস্থিত ছিলেন। আগামী চারদিনের মধ্যে ধর্মীয় রীতি অনুযায়ী শ্রাদ্ধক্রীড়া সম্পন্ন করা হবে।

তিনি জানান, পংকজ লক্ষ্মীপুর উপজেলায় স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরে সহকারী প্রকৌশলী হিসেবে কর্মরত ছিলেন। সম্প্রতি তিনি চট্টগ্রামের বাশখালী উপজেলায় উপ-সহকারী প্রকৌশলী হিসেবে পদোন্নতি পান। পংকজ চট্টগ্রাম শহরের খাস্তগীর সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ে তার মেয়ের পঞ্চম শ্রেণির ভর্তির সংক্রান্ত কাজে চট্টগ্রামে গিয়েছিলেন।  

নিহত সত্যব্রতের মামাতো বোন বাংলাদেশ লিগ্যাল এইডএন্ড সার্ভিসেস ট্রাস্টের (ব্লাস্ট) ফরিদপুরের সমন্বয়ক অ্যাডভোকেট শিপ্রা গোস্বামী সমকালকে বলেন, সত্যব্রতের এই আকস্মিক মৃত্যু তার পরিবার ও আমরা কেউ মেনে নিতে পাচ্ছি না।

পংকজের মৃত্যুতে তার মা-বাবা ও আত্মীয়-স্বজন বাকরুদ্ধ হয়েছে পড়েছেন। এলাকায় নেমে এসেছে শোকের ছায়া।

প্রসঙ্গত, সোমবার চট্টগ্রাম নগরীর একটি কমিউনিটি সেন্টারে চট্টগ্রামের সাবেক মেয়র এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরীর কুলখানিতে পদদলিত হয়ে ১০ জন নিহত হন। আহত হয়েছেন অর্ধশতাধিক মানুষ। 

নিহত অন্যরা হলেন- জামালখানের ঝন্টু দাশ পিন্টু (৪৫), পাথরঘাটার সুধীর দাশ (৪৫), পাহাড়তলীর কৃষ্ণপদ দাশ (৩২), আনোয়ারার লিটন দে (৫০), ফতেয়াবাদের প্রদীপ তালুকদার (৫৫), চবির ইতিহাস বিভাগের ছাত্র দীপঙ্কর দাশ রাহুল (২৫), টিটু দাশ (৩২), বাঁশখালীর ধনশীল (৪০) ও অলক ভৌমিক (৩৬)।

আরও পড়ুন

নিয়মিত সানস্ক্রিন ব্যবহারে কমে ত্বকের ক্যানসারের ঝুঁকি: গবেষণা

নিয়মিত সানস্ক্রিন ব্যবহারে কমে ত্বকের ক্যানসারের ঝুঁকি: গবেষণা

কম বয়সীদের মধ্যে যারা নিয়মিত সানস্ক্রিন ব্যবহার করে তাদের ত্বকের ...

সাতক্ষীরায় মাদকবিরোধী অভিযানে আটক ৬৩

সাতক্ষীরায় মাদকবিরোধী অভিযানে আটক ৬৩

সাতক্ষীরায় পুলিশের মাদকবিরোধী বিশেষ অভিযানে ১১ জন নেতাকর্মী ও তিনজন ...

সয়াবিনের ভালোমন্দ

সয়াবিনের ভালোমন্দ

খাদ্য উপকরণ হিসেবে সয়াবিনের ব্যবহার বেশ পুরনো। চীনারা সয়াবিনকে এক ধরনের ...

ম্যালেরিয়ায় মৃত্যু ঠেকাতে নতুন ওষুধ আবিষ্কার

ম্যালেরিয়ায় মৃত্যু ঠেকাতে নতুন ওষুধ আবিষ্কার

ট্যাফেনোকুইন নামের এক ধরণের ট্যাবলেটকে ম্যালেরিয়ায় চিকিৎসায় ব্যবহারের জন্য অনুমোদন ...

আজ গ্যাস থাকবে না রাজধানীর যেসব এলাকায়

আজ গ্যাস থাকবে না রাজধানীর যেসব এলাকায়

গ্যাস পাইপ লাইন স্থানান্তর কাজের জন্য আজ সোমবার সকাল ১০টা ...

ব্যাংকের শীর্ষ ১০ খেলাপির তথ্য নিচ্ছে অর্থ মন্ত্রণালয়

ব্যাংকের শীর্ষ ১০ খেলাপির তথ্য নিচ্ছে অর্থ মন্ত্রণালয়

সরকারি-বেসরকারি সব ব্যাংকের শীর্ষ ১০ জন ঋণ খেলাপির তথ্যসহ ব্যাংকগুলোর ...

কামরানের নির্বাচনী ক্যাম্পে আগুন

কামরানের নির্বাচনী ক্যাম্পে আগুন

শান্তি, সৌহার্দ্য ও সম্প্রীতির শহর হিসেবে হযরত শাহজালাল (রহ.), হযরত ...

এগিয়ে যাচ্ছে দেশ

এগিয়ে যাচ্ছে দেশ

নানা প্রতিকূলতা ও সীমাবদ্ধতা আছে, তারপরও ইন্টারনেট ব্যবহারে প্রতিদিনই এগিয়ে ...