কুলখানিতে নিহত প্রকৌশলী সত্যব্রতের দাহক্রিয়া রাঙামাটিতে

প্রকাশ: ১৯ ডিসেম্বর ২০১৭     আপডেট: ১৯ ডিসেম্বর ২০১৭      

রাঙামাটি প্রতিনিধি

চট্টগ্রামের সাবেক মেয়র প্রয়াত এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরীর কুলখানির মেজবান খেতে গিয়ে পদদলিত হয়ে নিহত রাঙামাটির বাসিন্দা প্রকৌশলী সত্যব্রত ভট্টাচার্য পংকজের (৪২) মরদেহের দাহক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে। 

মঙ্গলবার সকালে শহরের আসামবস্তি শ্মশানে তার দাহক্রিয়া সম্পন্ন হয়। 

নিহত সত্যব্রত পংকজের বাড়ি রাঙামাটি শহরের কালিন্দীপুর এলাকায়। পংকজের বাবার নাম অমরেন্দ্র ভট্টাচার্য, মা আশালতা ভট্টাচার্য। পংকজ চার ভাই ও এক বোনের মধ্যে মেঝো। তার এক মেয়ে ও এক ছেলে রয়েছে। তিনি পরিবার নিয়ে লক্ষ্মীপুরে থাকতেন।

এলাকাবাসী ও নিহতের বড় ভাইয়ের বন্ধু দেবব্রত চৌধুরী কুমকুম সমকালকে জানান, মঙ্গলবার সকাল ১১ টার দিকে শহরের আসামবস্তির কেন্দ্রীয় শ্মশানে প্রকৌশলী সত্যব্রত ভট্টাচার্য পংকজের শেষকৃত্য অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে আত্বীয়-স্বজন, বন্ধুবাবন্ধরা উপস্থিত ছিলেন। আগামী চারদিনের মধ্যে ধর্মীয় রীতি অনুযায়ী শ্রাদ্ধক্রীড়া সম্পন্ন করা হবে।

তিনি জানান, পংকজ লক্ষ্মীপুর উপজেলায় স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরে সহকারী প্রকৌশলী হিসেবে কর্মরত ছিলেন। সম্প্রতি তিনি চট্টগ্রামের বাশখালী উপজেলায় উপ-সহকারী প্রকৌশলী হিসেবে পদোন্নতি পান। পংকজ চট্টগ্রাম শহরের খাস্তগীর সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ে তার মেয়ের পঞ্চম শ্রেণির ভর্তির সংক্রান্ত কাজে চট্টগ্রামে গিয়েছিলেন।  

নিহত সত্যব্রতের মামাতো বোন বাংলাদেশ লিগ্যাল এইডএন্ড সার্ভিসেস ট্রাস্টের (ব্লাস্ট) ফরিদপুরের সমন্বয়ক অ্যাডভোকেট শিপ্রা গোস্বামী সমকালকে বলেন, সত্যব্রতের এই আকস্মিক মৃত্যু তার পরিবার ও আমরা কেউ মেনে নিতে পাচ্ছি না।

পংকজের মৃত্যুতে তার মা-বাবা ও আত্মীয়-স্বজন বাকরুদ্ধ হয়েছে পড়েছেন। এলাকায় নেমে এসেছে শোকের ছায়া।

প্রসঙ্গত, সোমবার চট্টগ্রাম নগরীর একটি কমিউনিটি সেন্টারে চট্টগ্রামের সাবেক মেয়র এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরীর কুলখানিতে পদদলিত হয়ে ১০ জন নিহত হন। আহত হয়েছেন অর্ধশতাধিক মানুষ। 

নিহত অন্যরা হলেন- জামালখানের ঝন্টু দাশ পিন্টু (৪৫), পাথরঘাটার সুধীর দাশ (৪৫), পাহাড়তলীর কৃষ্ণপদ দাশ (৩২), আনোয়ারার লিটন দে (৫০), ফতেয়াবাদের প্রদীপ তালুকদার (৫৫), চবির ইতিহাস বিভাগের ছাত্র দীপঙ্কর দাশ রাহুল (২৫), টিটু দাশ (৩২), বাঁশখালীর ধনশীল (৪০) ও অলক ভৌমিক (৩৬)।

আরও পড়ুন

জনগণের ঐক্য ব্যর্থ হয় না

জনগণের ঐক্য ব্যর্থ হয় না

দেশ ও গণতন্ত্রের প্রয়োজনে জনগণের ঐক্য কখনও ব্যর্থ হয় না- ...

'চ্যালেঞ্জ' নিয়েই মাঠে নামছে টাইগাররা

'চ্যালেঞ্জ' নিয়েই মাঠে নামছে টাইগাররা

থ্যাংকলেস জব! খেলার জগতে শব্দটা ব্যবহার করা হয় আম্পায়ার বা ...

সাপের 'বিষে' বিষ নেই

সাপের 'বিষে' বিষ নেই

রাজধানীর কুড়িল বিশ্বরোড থেকে গত বছরের এপ্রিলে সাপের বিষ পাচারে ...

আফগানিস্তানে নির্বাচন ঘিরে ব্যাপক সহিংসতা

আফগানিস্তানে নির্বাচন ঘিরে ব্যাপক সহিংসতা

আফগানিস্তানের পার্লামেন্ট নির্বাচন ঘিরে দেশজুড়ে ব্যাপক সহিংসতা হয়েছে। শনিবার অনুষ্ঠিত ...

স্বামী-সন্তানের সামনেই লাশ হলেন রুমা

স্বামী-সন্তানের সামনেই লাশ হলেন রুমা

রাজধানীর মিরপুরের মধ্য পাইকপাড়ার বাসা থেকে চিকিৎসার জন্য চিকিৎসকের কাছে ...

মহাকাশে 'নকল চাঁদ' বসাবে চীনা কোম্পানি

মহাকাশে 'নকল চাঁদ' বসাবে চীনা কোম্পানি

রাতের আকাশের উজ্জ্বলতা বাড়াতে মহাকাশে একটি ফেক মুন বা নকল ...

সংসদের শেষ অধিবেশন শুরু রোববার

সংসদের শেষ অধিবেশন শুরু রোববার

দশম জাতীয় সংসদের ২৩তম অধিবেশন শুরু হচ্ছে রোববার। স্পিকার ড. ...

ইয়াবা বহনের অভিযোগে সোহাগ পরিবহনের বাসচালক গ্রেফতার

ইয়াবা বহনের অভিযোগে সোহাগ পরিবহনের বাসচালক গ্রেফতার

রাজধানীর মালিবাগ এলাকা থেকে সোহাগ পরিবহনের একটি বাসের চালককে গ্রেফতার ...