রাজীবের পর এবার বিচ্ছিন্ন হৃদয়ের হাত

প্রকাশ: ১৭ এপ্রিল ২০১৮     আপডেট: ১৭ এপ্রিল ২০১৮      

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি

হাসপাতালে আহত হৃদয়- সমকাল

রাজধানীতে দুই বাসের চাপে এক হাত বিচ্ছিন্ন হওয়া যুবক রাজীব হোসেনের মৃত্যুর কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই এবার হাত বিচ্ছিন্ন হলো হৃদয় মিনার নামের এক বাস শ্রমিকের।

গোপালগঞ্জে বাসের সঙ্গে ট্রাকের সংঘর্ষে শরীর থেকে হাত বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়া হৃদয়কে (৩০) ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার বেদগ্রাম নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে সমকালকে নিশ্চিত করেছেন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুল ইসলাম।

দুর্ঘটনার পর বিকেলে বাগেরহাটের কাটাখালী থেকে গোপালগঞ্জ থানা পুলিশ ওই ট্রাকের চালক মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার পশ্চিম কাকৈড় গ্রামের নুরু শরীফের ছেলে জাকির হোসেনকে (৩২) গ্রেফতার করেছে।

আহত হৃদয় টুঙ্গিপাড়া এক্সপ্রেসের চালকের সহকারী (হেলপার)। উপজেলার কাড়ারগাতী গ্রামের রবিউল মিনার ছেলে তিনি।

টুঙ্গিপাড়া এক্সপ্রেসের যাত্রী প্রত্যক্ষদর্শী ঢাকা ইডেন কলেজের অনার্স শেষ বর্ষের ছাত্রী রাহিমা মনি জানান, পিরোজপুর থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী টুঙ্গিপাড়া এক্সপ্রেসের বাসের একেবারে পিছনের ডান পাশের ছিটে বসে ছিলেন হৃদয়।

তিনি জানান, বাসটি বেদগ্রাম পৌঁছালে অপরদিক থেকে আসা একটি ট্রাক পাশ কাটিয়ে যাওয়ার সময় বাস ও ট্রাকের পেছনের অংশে সংঘর্ষ হয়। ঘটনাস্থলেই হৃদয়ের ডান হাতটি বিচ্ছিন্ন হয়ে ,মাটিতে পড়ে যায়।

পরে তাকে গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে হৃদয়ের অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকা পাঠানো হয়।

হৃদয়ের বাবা রবিউল মিনা বলেন, রবিউল টুঙ্গিপাড়া এক্সপ্রেসের চালকের সহকারী। সে টুঙ্গিপাড়া এক্সপ্রেসের অন্য একটি গাড়িতে ডিউটি করে। দুর্ঘটনা কবলিত বাসে করে হৃদয় ঢাকা যাচ্ছিল।

ওসি মনিরুল জানান, ট্রাক চালককে আটক করে থানা আনা হয়েছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে।

হৃদয় যখন গোপালগঞ্জে দুর্ঘটনায় পড়ে একটি হাত হারিয়েছেন; তার ঠিক কয়েক ঘণ্টা আগেই ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা গেছেন প্রায় একই ঘটনার শিকার তিতুমীর কলেজের শিক্ষার্থী রাজীব।

গত ৩ এপ্রিল বিআরটিসি ও স্বজন পরিবহনের দুই বাসের প্রতিযোগিতার মাঝে পড়ে রাজধানীতে ডান হাতটি ছিঁড়ে যায় রাজীবের। তাৎক্ষণিকভাবে পান্থপথের একটি বেসরকারি হাসপাতাল ও পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয় তাকে।

রাজীব তৃতীয় শ্রেণিতে পড়ার সময় মা এবং অষ্টম শ্রেণিতে পড়ার সময় তার বাবাকে হারান। যাত্রাবাড়ীতে খালার বাসায় থেকে কম্পিউটার দোকানে কাজ করে দুই ভাইয়ের লেখা পড়া করাচ্ছিলেন তিনি।

সোমবার গভীর রাতে ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান রাজীব। তার মৃত্যুতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শোকের ছায়া নেমেছে; দেশজুড়ে নাড়া দিয়েছে এ খবর।


আরও পড়ুন

  শেখ হাসিনা যতদিন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় ততদিন: হানিফ

শেখ হাসিনা যতদিন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় ততদিন: হানিফ

বাংলাদেশের মানুষ শেখ হাসিনাকে আজীবন ক্ষমতায় রাখবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত ...

দিল্লির অধিনায়কত্ব ছাড়লেন গম্ভীর

দিল্লির অধিনায়কত্ব ছাড়লেন গম্ভীর

কলকাতা নাইট রাইডার্স ছেড়ে নিজের শহরে ফিরেছেন গৌতম গম্ভীর। সঙ্গে ...

যে মন্দিরে ৪০০ বছর পর প্রবেশ করল পুরুষ

যে মন্দিরে ৪০০ বছর পর প্রবেশ করল পুরুষ

৪০০ বছর পর মন্দিরের দরজায় প্রবেশ করতে পারলেন পুরুষরা। ভারতের ...

৩ দিনের সফরে বৃহস্পতিবার অস্ট্রেলিয়া যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

৩ দিনের সফরে বৃহস্পতিবার অস্ট্রেলিয়া যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অষ্ট্রেলিয়ার সিডনিতে অনুষ্ঠেয় 'গ্লোবাল সামিট অন ওমেন' ...

ইংল্যান্ড বিশ্বকাপের সময় নির্ধারণ

ইংল্যান্ড বিশ্বকাপের সময় নির্ধারণ

ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত ২০১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপের কয়েকটি ম্যাচের সময় নির্ধারণ করেছে ...

কানে প্রদর্শিত হবে পোড়ামন ২

কানে প্রদর্শিত হবে পোড়ামন ২

কান চলচ্চিত্র উৎসবের ৭১তম আসর শুরু হচ্ছে ৮ মে। এবারের ...

কিশোরী ধর্ষণ মামলায় আসারামের যাবজ্জীবন

কিশোরী ধর্ষণ মামলায় আসারামের যাবজ্জীবন

এক কিশোরীকে ধর্ষণের মামলায় ভারতের স্বঘোষিত গডম্যান আসারাম বাপুকে দোষী ...

ডিআইজি মিজানুর রহমানকে দুদকে তলব

ডিআইজি মিজানুর রহমানকে দুদকে তলব

অবৈধ সম্পদ অর্জন ও দুর্নীতির অভিযোগে পুলিশের উপ-মহাপরিদর্শক (ডিআইজি) মিজানুর ...