কলেজ শিক্ষিকা সাজিয়ার স্বামী রিমান্ডে

প্রকাশ: ০৮ মে ২০১৮     আপডেট: ০৮ মে ২০১৮      

ফরিদপুর অফিস

ফরিদপুরে বাসা থেকে একজন ব্যাংক কর্মকর্তা ও একজন কলেজ শিক্ষিকার মৃতদেহ উদ্ধারের ঘটনায় তার স্বামী শেখ শহীদুল ইসলামকে রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ফরিদপুর চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের আদালত রিমান্ড আবেদনের শুনানি শেষে তার তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ফরিদপুর কোতয়ালী থানার পরিদর্শক (অপারেশন) বিপুল দে বলেন, আদালতের কাছে শহীদুলের ৭ দিনের রিমান্ডের আবেদন জানানো হয়েছিল। আদালত তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে।

রোববার দিবাগত রাতে ফরিদপুর শহরের দক্ষিণ ঝিলটুলি এলাকারয় একই বাসা থেকে সরকারি সারদা সুন্দরী মহিলা কলেজের গার্হস্থ্য অর্থনীতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সাজিয়া বেগম এবং ঢাকার ব্যাংক কর্মকর্তা ফারুক হাসানের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। পরে গ্রেফতার করা হয় সাজিয়ার স্বামী শহীদুলকে।

সোমবার রাতে নিহত সাজিয়ার ফুপু আফসারী আহমেদ বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের আসামি করে একটি হত্যা মামলা করেন। রাতেই শহীদুলকে ওই মামলায় রাতেই গ্রেফতার দেখানো হয়।

এদিকে সাজিয়ার মৃতদেহ উদ্ধারের ঘটনায় হত্যাকারীর সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করেছেন তার মা নাসিমা আরা বেগম।

মঙ্গলবার বেলা ১০টার দিকে সারদা সুন্দরী মহিলা কলেজের ক্যাম্পাসে সাজিয়ার হত্যাকারীর গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও কর্মচারিদের এক মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়। এ কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে তার মা ওই দাবি করেন। এসময় সাজিয়ার ভাই শেখ সাইজাদ ও চাচা শেখ মহিউদ্দিনও উপস্থিত ছিলেন।

নাসিমা আরা বেগম বলেন, ছোটবেলা থেকে অনেক কষ্টে মেয়েটাকে মানুষ করেছি। হাত ধরে স্কুলে নিয়ে গেছি। আমার মেয়েকে নির্মাম ভাবে হত্যা করা হয়েছে। আমি হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।

পরে একই দাবিতে ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের কাছে স্মারকলিপি দেওয়া হয়।

ফরিদপুর কোতয়ালী থানার ভারপ্রপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ এফ এম নাসিম বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষ করে মঙ্গলবার বিকেলে শহীদুলকে জেলার চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতে সোপর্দ করা হয়। পরে তাকে রিমান্ডে নেওয়ার অনুমতি দেয় আদালত।

    


আরও পড়ুন

তিস্তায় 'বরফ' গলছে

তিস্তায় 'বরফ' গলছে

তিস্তার পানিবণ্টন চুক্তি কি আলোর মুখ দেখবে? এ নিয়ে বহুদিন ...

ধর্ষণের অনুসন্ধান ও বিচারে হাইকোর্টের ১৮ দফা নির্দেশনা

ধর্ষণের অনুসন্ধান ও বিচারে হাইকোর্টের ১৮ দফা নির্দেশনা

ধর্ষণের ঘটনার সুষ্ঠু অনুসন্ধান ও বিচার নিশ্চিতে ১৮ দফা নির্দেশনা ...

পরিকল্পনাতেই ঘুরপাক খাচ্ছে শৃঙ্খলা ফেরানোর উদ্যোগ

পরিকল্পনাতেই ঘুরপাক খাচ্ছে শৃঙ্খলা ফেরানোর উদ্যোগ

ঢাকার রাস্তায় প্রাণঘাতী বাসগুলোকে শৃঙ্খলায় আনার উদ্যোগ এখন পর্যন্ত পরিকল্পনাতেই ...

ফ্যাশন এবার ওড়নায়

ফ্যাশন এবার ওড়নায়

শহরজুড়ে বিভিন্ন রঙে সেজেছে বিপণিবিতানগুলো। ক্রেতার কলতানে মুখর সকাল থেকে ...

ওয়াটসনের সেঞ্চুরিতে আইপিএল শিরোপা চেন্নাইয়ের

ওয়াটসনের সেঞ্চুরিতে আইপিএল শিরোপা চেন্নাইয়ের

মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে হারিয়ে আইপিএলের ১১তম আসরের শিরোপা ...

দেশের এ অবস্থা জাতির জন্য হুমকি: ফখরুল

দেশের এ অবস্থা জাতির জন্য হুমকি: ফখরুল

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আজকে গণতন্ত্রকে যেভাবে ...

সৌদি থেকে ফিরলেন আরও ৪০ নারী

সৌদি থেকে ফিরলেন আরও ৪০ নারী

সৌদি আরবে কর্মক্ষেত্রে নির্যাতনের শিকার আরও ৪০ নারী দেশে ফিরছেন। ...

বিশিষ্টজনের সঙ্গে রাষ্ট্রপতির ইফতার

বিশিষ্টজনের সঙ্গে রাষ্ট্রপতির ইফতার

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ রোববার বঙ্গভবনে প্রধানমন্ত্রীসহ দেশের বিশিষ্ট নাগরিকদের ...