অনুমতি ছাড়া ইফতার-যাকাত বিতরণ করা যাবে না: পুলিশ

প্রকাশ: ১৫ মে ২০১৮      

চট্টগ্রাম ব্যুরো

রমজানে অনুমতি ছাড়া ইফতার সামগ্রী, যাকাত-সদকা বিতরণ করা যাবে না বলে জানিয়েছে চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশ।

মঙ্গলবার বিকেলে রমজানে নগরের আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান নগর পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কমিশনার মাসুদ উল হাসান। 

গরীব মানুষের জীবন নিয়ে তামাশা বন্ধ করতে এমন উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি। 

গত সোমবার সাতকানিয়া উপজেলার নলুয়া ইউনিয়নে গাটিয়াডাঙ্গায় ইফতার সামগ্রী বিতরণের একটি অনুষ্ঠানে পদদলিত হয়ে নয় নারীর মৃত্যু হয়েছে। এরপর এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে নগর পুলিশ।

সংবাদ সম্মেলনে মাসুদ উল হাসান বলেন, আমরা গণহারে হাজার হাজার গরীব লোক জড়ো করে যাকাত, সদকা, ইফতার দেওয়াকে নিরুৎসাহিত করছি। এ ধরণের অনুষ্ঠান আয়োজনের আগে আমাদের কাছে লিখিতভাবে অনুমতির জন্য আবেদন করতে হবে। তারপর আমরা দেখব- কত লোক হবে, লোকসমাগমের স্থানে কি পরিমাণ মানুষের সংকুলান হবে, কি পরিমাণ কার্ড করা হয়েছে অথবা আদৌ করা হয়েছে কি না, এসব দেখে যদি আমরা সন্তুষ্ট হয় তাহলে অনুমতি দেব। গরীব মানুষের জীবন নিয়ে এমন তামাশা কাউকে করতে দেওয়া হবে না।

রমজানে যানজট নিয়ে তিনি বলেন, মোড়গুলোতে যাত্রী উঠা-নামা করা না হলে ৩০ শতাংশ যানজট কমে আসবে। দিনের বেলা নগরে কোনো ট্রাকসহ ভারী যানবাহন ঢুকতে দেওয়া হবে না। কোন রুটে যাত্রীদের মাঝপথে নামিয়ে দেওয়া যাবে না। এ ধরণের কোন অভিযোগ পেলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সুনির্দিষ্ট তথ্য ছাড়া রমজানে গাড়ি থামিয়ে কাগজপত্র চেক করা হবে না। রমজানে যাতে কাউকে পথে ইফতার করতে না হয় সে জন্য যানজটমুক্ত রাখতে সর্বোচ্চ সচেষ্ট থাকবে পুলিশ। 

নগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (অপরাধ ও অভিযান) আমেনা বেগম বলেন, কোন অবস্থাতেই সড়ক ও ফুটপাত দখল করে রমজানে ব্যবসা করা যাবে না। ফুটপাত দখল করে হোটেল-রেস্তোরাঁগুলো কোনভাবে ইফতার সামগ্রী বিক্রি করতে পারবে না। ফুটপাতে নির্ধারিত জায়গার বাইরে ব্যবসা করতে পারবে না হকাররা। এছাড়া ঈদ মার্কেটকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন পরিকল্পনার কথা জানান তিনি। 

নগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (ট্রাফিক) কুসুম দেওয়ান বলেন, রমজানে ট্রাফিক ব্যবস্থা নিয়ন্ত্রণে পুলিশের পাশাপাশি কমিউনিটি পুলিশের ৫০০ সদস্য কাজ করবে। ট্রাফিক সচেতনতা তৈরি করতে স্বেচ্ছাসেবকরা কাজ করবে। ইপিজেডের পোশাক কারখানাগুলোকে একসঙ্গে ছুটি না দিয়ে আধঘণ্টা পর পর ছুটি দিতে অনুরোধ করা হয়েছে, যাতে সড়কের উপর চাপ না পড়ে।

সিটি করপোরেশন ও ওয়াসাকে সমন্বয় করে কাজ করার অনুরোধ জানিয়ে তিনি বলেন, নগরের পোর্ট কানেকটিং রোড, আরাকান রোড, আগ্রাবাদ এক্সেস রোড ও অক্সিজেন রোড সংস্কার করে যেন গাড়ি চলাচল উপযোগী করে দেওয়া হয়।

আরও পড়ুন

গ্রিজুর গোলে জার্মানিকে হারাল চ্যাম্পিয়নরা

গ্রিজুর গোলে জার্মানিকে হারাল চ্যাম্পিয়নরা

জার্মানির চেনা ছন্দে ফেরার জন্য নতুন চিন্তা সম্পন্ন একটা মাথা ...

শেষের গোলে আর্জেন্টিনাকে হারাল ব্রাজিল

শেষের গোলে আর্জেন্টিনাকে হারাল ব্রাজিল

ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার ম্যাচটি ছিল অনেকটা সৌদির আবহাওয়ার মতো। দিনের বেলায় মরুর ...

বিয়ের আয়োজন করতে গিয়ে ধরা

বিয়ের আয়োজন করতে গিয়ে ধরা

বছরখানেক আগে খাদিজা নামে এক নারী জঙ্গিকে গ্রেফতার করেছিল র‌্যাব। ...

উপকূলের 'রক্ষা দেয়াল' কেটে নিচ্ছে দুর্বৃত্তরা

উপকূলের 'রক্ষা দেয়াল' কেটে নিচ্ছে দুর্বৃত্তরা

কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ সড়কের সৈকতের পাড়ে দৃষ্টিনন্দন ঝাউবনের গাছগুলো কেটে ...

বিএনপির দুর্গে মরিয়া আওয়ামী লীগ

বিএনপির দুর্গে মরিয়া আওয়ামী লীগ

বিএনপির দুর্গ হিসেবে পরিচিত চট্টগ্রাম। এখন সেই দুর্গ আগলে রাখতে ...

বন্ধ হচ্ছে একের পর এক পোশাক কারখানা

বন্ধ হচ্ছে একের পর এক পোশাক কারখানা

মাত্র ৩ কোটি টাকা বিনিয়োগের ছোট কারখানা থ্রি এস ইন্টারন্যাশনাল। ...

রিয়াদ পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী

রিয়াদ পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সৌদি বাদশাহ এবং দুটি পবিত্র মসজিদের খাদেম ...

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধনে সরকারকে নোটিশ

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধনে সরকারকে নোটিশ

সদ্য পাশ হওয়া ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের নয়টি ধারা আগামী ৩০ ...