খুলনায় 'বন্দুকযুদ্ধ' ৩ বনদস্যু নিহত

প্রকাশ: ০৬ জুন ২০১৮      

খুলনা ব্যুরো

খুলনায় পুলিশের সঙ্গে বনদস্যুদের 'বন্দুকযুদ্ধে' সুন্দরবনের কালু বাহিনীর প্রধান আবু সাইদ ওরফে কালুসহ তিন বনদস্যু নিহত হয়েছেন।

নিহত অপর দুইজন হলেন মো. আকবর আলী গাজী ও শহীদুল মল্লিক।

বুধবার সকাল ১১টার দিকে জেলার কয়রা উপজেলা সুন্দরবনের ভেতর কয়রা নদীর ময়দাফ্যাসা এলাকায় এই বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

এ সময় পুলিশের আট সদস্য আহত হন। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একটি ডাবল ব্যারেল বন্দুক ও ৩ রাউন্ড কার্তুজ, দুটি দেশে তৈরি পিস্তল ও এক রাউন্ড পিস্তলের গুলি, পাঁচ রাউন্ড গুলির খোসা, একটি কুড়াল, একটি চাপাতি ও ১০-১২টি গরানের লাঠি এবং ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত একটি নৌকা উদ্ধার করে।

কয়রা থানার ওসি এনামুল হক জানান, তিন দিন আগে কয়রা উপজেলা সদর এলাকার বীণাপাণি ও তেঁতুলতলা গ্রামের বাসিন্দা সুন্দরবনের জেলে হাবিবুর ফকির, রাজু, সাবিদুল গাজী ও মজিবুর গাজীকে মুক্তিপণের দাবিতে সুন্দরবন থেকে অপহরণ করে বনদস্যু কালু বাহিনী। অপহৃত জেলেদের নিয়ে কালু বাহিনী কয়রা নদীর ময়দাফ্যাসা এলাকায় অবস্থান করছে এমন খবর পেয়ে কয়রা থানা পুলিশ সকাল ১১টার দিকে সেখানে অভিযান চালায়।

তিনি জানান, পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে বনদস্যুরা পুলিশের দিকে গুলি ছুড়তে থাকে। তখন পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। দুপুর ১২ টার দিকে বনদুস্যদের গুলি ছোড়া বন্ধ হলে সেখানে তল্লাশি অভিযান শুরু করে পুলিশ। এ সময় গুরুতর আহত তিন বনদস্যুকে উদ্ধার করে জায়গীরমহল হাসপাতালে নিয়ে যায়। কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত কালু কয়রার অর্জুনপুর এলাকার শামসুর রহমান, আকবর গিলাবাড়ির জলিল গাজী ও শহীদুল রামপালের হোগলাডাঙ্গার জব্বার মল্লিকের ছেলে। নিহত ডাকাত আবু সাইদ কালু, আকবর ও শহীদুলের বিরুদ্ধে একাধিক ডাকাতি ও অস্ত্র মামলা রয়েছে। তাদের মধ্যে ২০১৬ সালে শহীদুল বনদস্যু হিসেবে আত্মসমর্পণ করেছিল। পরে সে কালু বাহিনীতে যোগ দিয়ে আবারও ডাকাতিতে জড়িয়ে পড়ে।

ওসি জানান, বন্দুকযুদ্ধ চলাকালে কয়রা থানার এসআই রাজিউল আমিন, কিশোর কুমার, গোলাম আজম, এএসআই মোস্তাফিজুর রহমান, পুলিশ সদস্য শওকত হোসেন, হারিজ মোল্লা, সামাদ ও মোকলেছুর রহমান আহত হয়। তাদের স্থানীয় স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও পড়ুন

পুলিশ জানে না খুনি কারা

পুলিশ জানে না খুনি কারা

রাজধানীর উপকণ্ঠ নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলায় তিন যুবকের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধারের ...

আস্থার প্রতিদান দিলেন ইমরুল-সাইফ

আস্থার প্রতিদান দিলেন ইমরুল-সাইফ

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দুর্দান্ত সেঞ্চুরি করা ইমরুল কায়েস দলের অটোমেটিক চয়েস ...

বাংলাদেশেই চিরশায়িত বাংলার অকৃত্রিম বন্ধু

বাংলাদেশেই চিরশায়িত বাংলার অকৃত্রিম বন্ধু

ফাদার মারিনো রিগনের নিজ হাতে লাগানো 'সোনা ঝুড়ি' গাছটি ফুল ...

এবার সাদা ইয়াবা

এবার সাদা ইয়াবা

এবার সাদা রঙের ইয়াবা উদ্ধার হলো রাজধানীর রামপুরার উলন রোড ...

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে ইসির সাক্ষাৎ ১ নভেম্বর

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে ইসির সাক্ষাৎ ১ নভেম্বর

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রচারে জীবন্ত কোনো প্রাণী ব্যবহার করা ...

সুষ্ঠু নির্বাচন হলে আ' লীগ ১০ আসনও পাবে না: কাদের সিদ্দিকী

সুষ্ঠু নির্বাচন হলে আ' লীগ ১০ আসনও পাবে না: কাদের সিদ্দিকী

বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বলেছেন, সুষ্ঠু নির্বাচন হলে আওয়ামী লীগ ১০টির ...

চার্জশিটের আগে গ্রেফতারে সরকারের অনুমতি লাগবে

চার্জশিটের আগে গ্রেফতারে সরকারের অনুমতি লাগবে

আদালতে চার্জশিট গ্রহণের আগে সরকারি কর্মচারিদের গ্রেফতারে অনুমতি নিতে হবে-এমন ...

রণবীর-দীপিকার বিয়ের তারিখ চূড়ান্ত

রণবীর-দীপিকার বিয়ের তারিখ চূড়ান্ত

সকল জল্পনার অবসান ঘটিয়ে শিগগিরই বিয়ের পিঁড়িতে বসছেন বলিউডের দুই ...