খালেদার শারীরিক অবস্থা নিয়ে সরকার নাটক করছে: মওদুদ

প্রকাশ: ১১ জুন ২০১৮      

কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক আইনমন্ত্রী ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেছেন, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া অসুস্থ। তার শারীরিক অবস্থা নিয়েও সরকার নাটক করছে। কেউ বলছে রোজা রাখার কারণে, তবে তারা স্বীকার করছেন তিনি অসুস্থ। নেত্রীকে (খালেদা জিয়া) ভুয়া মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি এবং তার শারীরিক অবস্থা নিয়ে বিলম্ব করা হচ্ছে। অথচ তিনি দেশের সর্ববৃহৎ রাজনৈতিক দলের জনপ্রিয় নেত্রী। 

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের সিরাজপুর ইউনিয়নের নিজ বাসভবনে সোমবার দুপুরে আয়োজিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে এসব কথা বলে তিনি।

মওদুদ বলেন, আমার নির্বাচনী এলাকা কোম্পানীগঞ্জ ও কবিরহাট উপজেলা। আমি এলাকায় এসেছিলাম ঈদ পর্যন্ত বাড়িতে থাকব বলে। এলাকার মানুষের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করব। এলাকায় গিয়ে সমাবেশ ও তৃণমূল নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় করব। কিন্তু তা করতে পাড়ছি না। এমনকি ইফতার পর্যন্তও করতে পাড়ছি না। রোববার রামপুর ইউনিয়নের ইফতারের আয়োজন করা হয় দলীয়ভাবে। আমার উপস্থিতিতে হওয়ার কথা ছিল। আমি যাওয়ার আগে সকাল বেলায় পুলিশ সামিয়ানা নামিয়ে ফেলে। রান্নার চুলা ভেঙে ফেলে এবং সব আয়োজন বন্ধ করে দেয়। তারপরও আমি বিকেলে দেখতে গিয়েছিলাম। 

তিনি বলেন, আমার ৪৫ বছরের রাজনৈতিক জীবনে এই প্রথম আমি এ এলাকায়  সাংবাদিক সংবাদ সম্মেলন করছি। আমার বাড়ির দরজায় ও বাড়ির আশপাশে অসংখ্য পুলিশের আনাগোনা ও পুলিশ বসে থাকতে দেখা যাচ্ছে। আমার সঙ্গে দেখা করার জন্য দলীয় নেতাকর্মীদের আসতে পুলিশ বাধা দিচ্ছে। আওয়ামী লীগ একটি বড় রাজনৈতিক দল। তাদের সাধারণ সম্পাদক এই এলাকার। কিন্তু তিনি রাজনীতিতে ছোট মনের পরিচয় দিচ্ছেন। তার কাছে মানুষ উদারতা আশা করে। এখানে যে অবস্থা বিরাজ করছে সারা বাংলাদেশে একই অবস্থা বিরাজ করছে।   

বিএনপির সিনিয়র এই নেতা আরও বলেন, সোমবার সকালে চরপার্বতী ইউনিয়নের কদমতলায় আমার যাওয়ার কথা ছিল। সেখানে স্কুলের ভেতর তৃণমূল নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় করতে চেয়েছিলাম। কিন্তু রোববার রাতে কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি আমার এপিএস সুজনকে ফোন করে বলেন, ‘বাহিরে কোন অনুষ্ঠান না করার জন্য।  আমার বাড়িতে আমি অনুষ্ঠান করতে পারব। তবে সকালে ঘুম থেকে উঠে দেখি আমার বাড়ির আশপাশে পুলিশ। এমনকি আমার মাদ্রাসার ভেতরেও পুলিশে ভরে গেছে। 

তিনি আরও বলেন, এতে আওয়ামী লীগের বেহাল দশা বোঝা যায়। তাদের জনপ্রিয়তা নেই। তাদের যদি সামান্য জনপ্রিয়তা থাকত, তাহলে এ আচরণ করত না। আমি এ এলাকার ৫ বার সংসদ সদস্য ছিলাম। আ’লীগ সুষ্ঠু নির্বাচনকে ভয় পায়। এ জন্য এ অবিচার চালিয়ে যাচ্ছে। 

এ সময় কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সভাপতি হাজী আবদুল হাই সেলিম, সাধারণ সম্পাদক নুরুল আলম সিকদার, বসুরহাট পৌরসভা বিএনপির সভাপতি কামাল উদ্দিন চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুর রহমান রিপন, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা যুবদলের সভাপতি আবদুল মতিন লিটন, সাধারণ সম্পাদক আবদুল্লাহ আল মামুন, উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি জাহিদুর রহমান রাজন, বসুরহাট পৌর ছাত্রদলের সভাপতি ওবায়দল হক রাফেল, আবুল কালাম আজাদ, কবিরহাট উপজেলা বিএনপির সভাপতি আবদুর রহিম, সাধারণ সম্পাদক লিটন চৌধুরী, কবিরহাট পৌরসভা বিএনপির সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান মঞ্জু, পৌরসভা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক বেলায়েত হোসেন খোকন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। 

আরও পড়ুন

সালাহ-ফিরমিনোয় হার নেইমার-এমবাপ্পেদের

সালাহ-ফিরমিনোয় হার নেইমার-এমবাপ্পেদের

সালাহ-সাদিও মানে-ফিরমিনো বনাম নেইমার-এমবাপ্পে-কাভানি! কিংবা বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের সাবেক দুই কোচ ...

হংকংয়ের বিপক্ষে কষ্টের জয় ভারতের

হংকংয়ের বিপক্ষে কষ্টের জয় ভারতের

হংকংয়ের ইনিংসের তখন ২৯ ওভার চলছে। কোন উইকেট না হারিয়ে ...

মুশফিক বিশ্রামে খেলবেন মুমিনুল

মুশফিক বিশ্রামে খেলবেন মুমিনুল

রুটি সেঁকতে গিয়ে শেষ পর্যন্ত না আবার হাতটাই পুড়ে যায়- ...

শিক্ষার্থীরা আশাবাদী, সন্দেহ যাচ্ছে না ছাত্রনেতাদের

শিক্ষার্থীরা আশাবাদী, সন্দেহ যাচ্ছে না ছাত্রনেতাদের

সাধারণ শিক্ষার্থীরা আশাবাদী। তবে কিছুটা সন্দেহ আর সংশয়ে আছে ক্যাম্পাসে ...

স্বাস্থ্যসেবার উন্নয়নে বাড়ছে গড় আয়ু

স্বাস্থ্যসেবার উন্নয়নে বাড়ছে গড় আয়ু

বাংলাদেশের মানুষের গড় আয়ু ক্রমশই বাড়ছে। ১০ বছর আগে ২০০৮ ...

৩০০ আসনে প্রার্থী দিতে প্রস্তুতি নিচ্ছে বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য

৩০০ আসনে প্রার্থী দিতে প্রস্তুতি নিচ্ছে বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য

চলমান রাজনীতিতে নতুন মাত্রা যোগ করেছে বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য। আওয়ামী ...

'থাহনের জাগা নাই, পড়ালেহা করব ক্যামনে'

'থাহনের জাগা নাই, পড়ালেহা করব ক্যামনে'

ভিটেমাটির সঙ্গে শিশু নাসরিন আক্তারের স্কুলটিও গেছে পদ্মার গর্ভে। তীরে ...

রোগশোক ভুলে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে ওরা

রোগশোক ভুলে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে ওরা

হাটহাজারীর কাটিরহাট থেকে ছয় কিলোমিটার ইটবিছানো রাস্তার পর প্রায় এক ...