নিকলীতে দুস্থদের চাল নিয়ে এ কী কাণ্ড!

প্রকাশ: ১৪ জুন ২০১৮      

কিশোরগঞ্জ অফিস

কিশোরগঞ্জের হাওরের নিকলী উপজেলার জারইতলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কামরুল ইসলাম মানিকের বিরুদ্ধে ভিজিএফের চাল আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে। এ পরিস্থিতিতে বিক্ষুব্ধ ৩০০ দুস্থের মুখে হাসি ফোটাতে নিজ উদ্যোগে চাল কিনে দিয়ে আলোচনায় এসেছেন জেসমিন আরা বিউটি নামের এক ইউপি সদস্য।

ভিজিএফের তালিকাভুক্ত কয়েকজন জানান, গত মঙ্গলবার নিকলী উপজেলার জারইতলা ইউনিয়নের এক হাজার ৩২১টি দুস্থ পরিবারের মধ্যে ভিজিএফের চাল বিতরণ করা হয়। দশ কেজি করে চাল দেওয়ার কথা থাকলেও একটি ছোট প্লাস্টিকের বালতি দিয়ে চাল দেওয়া হচ্ছিল। যাতে ৫-৬ কেজি পরিমাণ চাল ধরে। কম চাল দেওয়ায় ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন দুস্থরা। চেয়ারম্যান মানিক তাদের যা দেওয়া হচ্ছে তা নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে বলেন। অন্যথায় কিছুই দেওয়া হবে না বলে জানালে সংরক্ষিত ১, ২ ও ৩ নম্বর সংরক্ষিত আসনের নারী সদস্য জেসমিন আরা বিউটি দুস্থদের পক্ষে প্রতিবাদ করেন। এতে চেয়ারম্যান ও তার সহযোগীরা তাকে ইউনিয়ন পরিষদ থেকে বের হয়ে যেতে নির্দেশ দেন। 

পরে ক্ষুব্ধ দুস্থরা চেয়ারম্যান ও সংশ্লিষ্টদের অপকর্মের বিরুদ্ধে স্লোগান দিয়ে মিছিল করে রোদার পুড্ডা বাজারে পৌঁছলে জেসমিন আরা বিউটি স্থানীয় একটি মুদির দোকান থেকে প্রত্যেককে দশ কেজি করে চাল কিনে দেন।

ধারীশ্বর গ্রামের জ্ঞানবানু (৩০), কামালপুরের হেলাল (৩৫), পুড্ডার কুলসুমসহ (৬৪) কমপক্ষে ১০ জন জানান, নারী মেম্বার চাল কিনে না দিলে তাদের ঈদ আনন্দ মলিন হয়ে যেত।

মুদি দোকানি সামছুদ্দিন বলেন, 'নারী মেম্বার ৩০০ লোককে ১০ কেজি করে চাল দেওয়ার জন্য বলেছেন। টাকাও পরিশোধ করেছেন। এরই মধ্যে ২শ'র অধিক লোককে চাল দিয়েছি।'

জেসমিন আরা বিউটি বলেন, 'চেয়ারম্যানসহ ওই চক্রটি দীর্ঘদিন ধরেই অসহায়দের জন্য বরাদ্দ চালসহ বিভিন্ন উপকরণ আত্মসাৎ করে আসছে। মুখ বুজে সহ্য করেছি। ঈদ উপলক্ষে সরকারের দেওয়া সামান্য চালেও তাদের লোভ দেখে নিজেকে ধরে রাখতে পারিনি। প্রতিবাদ করায় পরিষদ থেকে বের করে দিয়েছে। দুস্থদের কথা চিন্তা করে নিজেই ৩শ' লোককে চাল কিনে দিয়েছি।' 

তিনি আরও জানান, সরকার নারীদের সম্মানে আইন রাখলেও এই পরিষদে নারীরা উল্টো নিগৃহীতই হয়ে আসছে।

চেয়ারম্যান মানিকের সঙ্গে কথা বললে তিনি জানান, জেসমিনের লোকদের নীতিবহির্ভূতভাবে আগে চাল দেওয়া হয়নি বলে রাগ করে তিনি চলে গেছেন।

পরিমাপে কম দেওয়ার প্রসঙ্গে তিনি জানান, নানা কারণে পূর্ণ ১০ কেজি দেওয়া সম্ভব নয়। জনপ্রতি সাড়ে ৮ থেকে ৯ কেজি চাল দেওয়া হচ্ছে। 

শাহপুর গ্রামের এতাবদ্দিনের মেয়ে মাফুজা জানান, তাকে দেওয়া চালের পরিমাণ ৬-৭ কেজি হবে। প্রতিবাদ করলে ওই চালটুকুও পাওয়া যাবে না। তাই কিছু না বলে যতটুকু দিয়েছে, ততটুকুই এনেছেন।

নিকলী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ ইয়াহইয়া খান জানান, মহিলা সদস্য জেসমিন তাকে ঘটনাটি জানালে স্থানীয়ভাবে তা দেখব বলে বলেছি। পরে তিনি আর কিছু জানাননি বলে ভেবেছি বিষয়টি মীমাংসা হয়ে গেছে।

আরও পড়ুন

পুলিশ জানে না খুনি কারা

পুলিশ জানে না খুনি কারা

রাজধানীর উপকণ্ঠ নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলায় তিন যুবকের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধারের ...

আস্থার প্রতিদান দিলেন ইমরুল-সাইফ

আস্থার প্রতিদান দিলেন ইমরুল-সাইফ

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দুর্দান্ত সেঞ্চুরি করা ইমরুল কায়েস দলের অটোমেটিক চয়েস ...

বাংলাদেশেই চিরশায়িত বাংলার অকৃত্রিম বন্ধু

বাংলাদেশেই চিরশায়িত বাংলার অকৃত্রিম বন্ধু

ফাদার মারিনো রিগনের নিজ হাতে লাগানো 'সোনা ঝুড়ি' গাছটি ফুল ...

এবার সাদা ইয়াবা

এবার সাদা ইয়াবা

এবার সাদা রঙের ইয়াবা উদ্ধার হলো রাজধানীর রামপুরার উলন রোড ...

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে ইসির সাক্ষাৎ ১ নভেম্বর

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে ইসির সাক্ষাৎ ১ নভেম্বর

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রচারে জীবন্ত কোনো প্রাণী ব্যবহার করা ...

সুষ্ঠু নির্বাচন হলে আ' লীগ ১০ আসনও পাবে না: কাদের সিদ্দিকী

সুষ্ঠু নির্বাচন হলে আ' লীগ ১০ আসনও পাবে না: কাদের সিদ্দিকী

বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বলেছেন, সুষ্ঠু নির্বাচন হলে আওয়ামী লীগ ১০টির ...

চার্জশিটের আগে গ্রেফতারে সরকারের অনুমতি লাগবে

চার্জশিটের আগে গ্রেফতারে সরকারের অনুমতি লাগবে

আদালতে চার্জশিট গ্রহণের আগে সরকারি কর্মচারিদের গ্রেফতারে অনুমতি নিতে হবে-এমন ...

রণবীর-দীপিকার বিয়ের তারিখ চূড়ান্ত

রণবীর-দীপিকার বিয়ের তারিখ চূড়ান্ত

সকল জল্পনার অবসান ঘটিয়ে শিগগিরই বিয়ের পিঁড়িতে বসছেন বলিউডের দুই ...