চাঁদপুর শহররক্ষা বাঁধে আবারও ভাঙন, তলিয়ে যাচ্ছে ব্লক বাঁধ

প্রকাশ: ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

 চাঁদপুর প্রতিনিধি

চাঁদপুর শহররক্ষা বাঁধের পুরানবাজার হরিসভা এলাকায় আবারও ভাঙন দেখা দিয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে ওই এলাকায় আকস্মিক ভাঙন দেখা দেয়, যা এখনও অব্যাহত রয়েছে। এতে একশ' মিটারের বেশি ব্লক বাঁধ নদীতে তলিয়ে গেছে। ভাঙনে ওই এলাকায় মানুষজন আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন। ভাঙনের খবর পেয়ে শুক্রবার পানি উন্নয়ন বোর্ডের কুমিল্লা পূর্বাঞ্চলের প্রধান প্রকৌশলী বাবুল চন্দ্র শীলসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

গত কয়েকদিন আগে হরিসভার দক্ষিণে ব্যবসায়ী সহদেব সাহার বাড়ির পেছন দিয়ে প্রায় একশ' মিটার ব্লক বাঁধ বিলীন হয়ে যায়। পরে পানি উন্নয়ন বোর্ড জিওব্যাগ ও ব্লক ফেলে সাময়িকভাবে ভাঙন রোধে ব্যবস্থা নেয়। এক মাসের কিছু বেশি সময় অতিবাহিত হওয়ার পর হরিসভা মন্দির গেটের বিপরীতে ঘাটলা এলাকায় আবারও ভাঙন দেখা দিল। হরিসভা লোকনাথ মন্দিরের পাশের দোকানি মানিক সাহা, ভাঙনকবলিত এলাকার অর্চনা সাহা, মালতি দেসহ অনেকে জানান, পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃক ব্লক দিয়ে মন্দিরের যে ঘাটলাটি করে দিয়েছিল এখন সেটির কোনো অস্তিত্ব নেই।

স্থানীয় মাধব ঘোষ জানান, হরিসভা এলাকাটি এই নিয়ে সাতবার মেঘনার ভাঙনের শিকার হয়েছে। সম্প্রতি তিনবার ভাঙন হলে তিনবারই পানি উন্নয়ন বোর্ড কাজ করিয়েছে। কিন্তু সেখান দিয়েই আবার ভাঙছে।

শ্রী জগন্নাথ মন্দিরের অধ্যক্ষ বিশাল গোবিন্দ দাসাধিকারী জানান, হরিসভা কমপ্লেক্সে সাতটি মন্দির রয়েছে। আশপাশে বিরাট বসতি এলাকা। রাস্তা-ঘাট, মসজিদ- মাদরাসা ও গণকবর রয়েছে। নদীভাঙনের ভয়াবহতা নিয়ে আমরা এখন খুবই শঙ্কিত। পানি উন্নয়ন বোর্ড সঠিকভাবে কাজ না করায় এখানে বার বার শহররক্ষা বাঁধের ভাঙন অব্যাহত রয়েছে।

চাঁদপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আবু রায়হান বলেন, বর্ষা মৌসুমে পুরানবাজারের নদীর পরিস্থিতি ভালো না। প্রবল ঘূর্ণিস্রোত প্রবাহিত হয়। এ জায়গাটি খুবই ঝুঁকিপূর্ণ। হরিসভা পয়েন্টে নদীর গভীরতা অনেক। সেখানে স্কাউরিং (গর্ত হয়ে যাওয়া) বেশি হওয়ায় ব্লক বাঁধে ভাঙনের সৃষ্টি হয়েছে। আমরা জরুরিভিত্তিতে ৬০ মিটার জায়গায় জিও ব্যাগ ও ব্লক ফেলে ভাঙন থেকে রক্ষার চেষ্টা করছি। এ ছাড়াও আমাদের লোকজন আছে তারা দেখছে, আমরা ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানাচ্ছি।

আরও পড়ুন

বিপিএলের কারণে রশিদকে চেনা ইমরুলের

বিপিএলের কারণে রশিদকে চেনা ইমরুলের

হুট করেই ইমরুল কায়েস এশিয়া কাপের দলে ডাক পান। এরপর ...

মৃত ব্যক্তিকে জীবিত দেখিয়ে ব্যাংক ঋণ!

মৃত ব্যক্তিকে জীবিত দেখিয়ে ব্যাংক ঋণ!

বরিশালে মৃত ব্যক্তিকে জীবিত দেখিয়ে ব্যাংক থেকে ঋণ নেওয়ার অভিযোগ ...

'প্রমাণ ছাড়া ব্যবস্থা নেবে না দুদক'

'প্রমাণ ছাড়া ব্যবস্থা নেবে না দুদক'

সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার বিরুদ্ধে প্রমাণ ছাড়া আইনী ...

'বার্সার প্রস্তাব ঘুম হারাম করে দিয়েছিল'

'বার্সার প্রস্তাব ঘুম হারাম করে দিয়েছিল'

ফ্রান্স তারকা অ্যান্তোনিও গ্রিজম্যান বার্সেলোনায় আসছেন বলে জোর গুঞ্জন ছিল। ...

দুর্নীতিমুক্ত সৎ প্রার্থীকে নির্বাচিত করুন: রাষ্ট্রপতি

দুর্নীতিমুক্ত সৎ প্রার্থীকে নির্বাচিত করুন: রাষ্ট্রপতি

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দুর্নীতিমুক্ত ও সৎ জনবান্ধব প্রার্থীকে ভোট ...

দক্ষিণ এশিয়া থেকে দ্বিতীয় রাউন্ডে শুধু বাংলাদেশ

দক্ষিণ এশিয়া থেকে দ্বিতীয় রাউন্ডে শুধু বাংলাদেশ

আগামী বছরের ফ্রেবুয়ারিতে এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ নারী চ্যাম্পিয়নশিপ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা। ...

ইলিশ উৎপাদন এ বছর ৫ লাখ টন ছাড়াবে

ইলিশ উৎপাদন এ বছর ৫ লাখ টন ছাড়াবে

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী নারায়ন চন্দ্র চন্দ বলেছেন, চলতি বছর ইলিশের ...

সরকারি হলো আরও ৪৩ মাধ্যমিক বিদ্যালয়

সরকারি হলো আরও ৪৩ মাধ্যমিক বিদ্যালয়

দেশের বিভিন্ন উপজেলার আরও ৪৩টি বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় সরকারি করা ...