২ শিশুর গলাকাটা লাশ মেঝেতে, মায়ের লাশ সিলিংফ্যানে

প্রকাশ: ০১ সেপ্টেম্বর ২০১৮     আপডেট: ০১ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

মাধবপুর (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি

হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার ধর্মঘর ইউনিয়নের নিজনগর গ্রামে ঘরের মধ্য থেকে দুই শিশুর গলাকাটা লাশ ও সিলিংফ্যানে ঝুলন্ত অবস্থায় তাদের মায়ের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তারা হলো- ওই গ্রামের ব্যবসায়ী আব্দুল মজিদের স্ত্রী হাদিছা বেগম (২৫), তার শিশুকন্যা মিম (৩) এবং ৭ মাসের শিশুপুত্র মোজাহিদ।

শুক্রবার রাতে এই ঘটনা ঘটে। শনিবার সকালে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। শনিবার দুপুরে হবিগঞ্জের পুলিশ সুপার বিধান কুমার ত্রিপুরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। 

দুই শিশু ও তাদের মাকে কি পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে, না কি মা দুই সন্তানকে গলা কেটে হত্যা করে নিজে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ঝুলে আত্মহত্যা করেছেন- এ নিয়ে ধুম্রজাল সৃষ্টি হয়েছে। এদিকে ঘটনার পর থেকে পরিবারের অন্য সদস্যরা গা ঢাকা দিয়েছে। প্রতিবেশী পুরুষরাও ভয়ে এলাকা ছেড়ে পালিয়েছে। 

শনিবার সকালে নিজনগর গ্রামের ওই বাড়িতে গিয়ে কথা হয় প্রতিবেশী খোর্শেদা বেগমের সঙ্গে। তিনি জানান, আব্দুল মজিদের বাবা মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রশিদ, তার স্ত্রী ও কলেজ পড়ুয়া মেয়েকে নিয়ে আলাদা ঘরে থাকেন। শুক্রবার রাতে পারিবারিক কাজে পুত্রবধূ হাদিছাকে ডাকতে যান তার শাশুড়ি। ঘর থেকে কোনো সাড়াশব্দ না পেয়ে এগিয়ে গিয়ে দেখেন, ঘরের ভেতর থেকে দরজা তাল দেওয়া। পরে পেছনের দরজা দিয়ে ঘরে গিয়ে দেখেন, মিমের গলাকাটা লাশ খাটের উপর ও হাদিছার লাশসহ সিলিংফ্যান ছিঁড়ে মেঝেতে পড়ে আছে। তখন ওই রুমে ৭ মাস বয়সী মোজাহিদকে পাওয়া যাচ্ছিল না। 

ধর্মঘর ইউপি চেয়ারম্যান সামসুল ইসলাম কামাল জানান, মাধবপুর থানা পুলিশকে সঙ্গে নিয়ে রাত ১১টায় একটি রুম থেকে মেয়ে মিমসহ মায়ের লাশ উদ্ধার করা হয়। একই ঘরের পূর্ব পাশের অপর একটি রুম থেকে তালা ভেঙে মুজাহিদের গলাকাটা লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। 

আব্দুল মজিদের প্রতিবেশী ব্যবসায়ী সাইফুল ইসলাম জানান, ঘটনার দিন রাত ৯টা পর্যন্ত আব্দুল মজিদ ধর্মঘর বাজারে তার দোকান মিম স্টোরে ছিল। বাড়ি থেকে ফোন পেয়ে দোকান খোলা রেখেই তাড়াহুড়া করে চলে যায় সে। 

মাধবপুর থানার ওসি চন্দন কুমার চক্রবতী জানান, শিশু দু'টিকে হত্যা করা হয়েছে বোঝা যাচ্ছে। কিন্তু হাদিছার মৃত্যু হত্যা না আত্মহত্যা এটি এখনো স্পষ্ট নয়। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পেলে তার মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে। এই ঘটনায় শনিবার বিকেলে পর্যন্ত মামলা হয়নি। তবে পুলিশ সুপারের নির্দেশে ঘটনার তদন্ত চলছে। 

আরও পড়ুন

প্রার্থীদের হলফনামায় চোখ রাখবে দুদক

প্রার্থীদের হলফনামায় চোখ রাখবে দুদক

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সম্ভাব্য প্রার্থীদের হলফনামার সম্পদের হিসাবে নজর ...

সময় শেষ ব্যানার-পোস্টার সরেনি

সময় শেষ ব্যানার-পোস্টার সরেনি

সুষ্ঠু নির্বাচন ও প্রার্থীদের জন্য লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরির জন্য ...

হাল ছাড়েননি বাদপড়ারা চলছে চেষ্টা-তদবির

হাল ছাড়েননি বাদপড়ারা চলছে চেষ্টা-তদবির

আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য তালিকা থেকে বাদ পড়া দলের মনোনয়নপ্রত্যাশীরা এখনও ...

মিশ্র প্রতিক্রিয়া আইনজ্ঞদের

মিশ্র প্রতিক্রিয়া আইনজ্ঞদের

দুর্নীতির দুটি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার ১০ ও ৭ ...

বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়া যাবে না

বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়া যাবে না

দল থেকে যাকেই মনোনয়ন দেওয়া হবে, তার পক্ষে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে ...

ধানের শীষের প্রতীক্ষায় শতাধিক ব্যবসায়ী

ধানের শীষের প্রতীক্ষায় শতাধিক ব্যবসায়ী

জাতীয় সংসদে ব্যবসায়ী সাংসদের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। বর্তমান সংসদে ব্যবসায়ীদের ...

কিশোরগঞ্জের ৬ আসনের তিনটিতেই প্রার্থী পুত্ররা

কিশোরগঞ্জের ৬ আসনের তিনটিতেই প্রার্থী পুত্ররা

আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে কিশোরগঞ্জের ৬টি সংসদীয় আসনের তিনটিতেই উত্তরাধিকার আজ ...

বিএনপির অভিযোগ তদন্তে পুলিশ

বিএনপির অভিযোগ তদন্তে পুলিশ

প্রধানমন্ত্রী ও নির্বাচন কমিশনের কাছে বিএনপির পক্ষ থেকে 'গায়েবি ও ...