সাথী জীবিত উদ্ধার, লাশটি তাহলে কার?

প্রকাশ: ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮     আপডেট: ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

যশোর অফিস

উদ্ধার হওয়া সাথী খাতুন- সমকাল

যশোর সরকারি সিটি কলেজের ডোবা থেকে উদ্ধার হওয়া পলিথিনের বস্তাবন্দি মৃতদেহটি চৌগাছা নয়ড়া গ্রামের সাথী খাতুনের নয়।

রোববার ভোরে যশোর সদর উপজেলার ইছালি জলকর গ্রামের এক বাড়ি থেকে জীবিত সাথীকে উদ্ধারের পরই এতথ্য নিশ্চিত হওয়া গেছে।

গত ২৯ আগস্ট রাতে সিটি কলেজের ডোবা থেকে এক তরুণীর গলাকাটা গলিত মৃতদেহ উদ্ধার হওয়ার পরদিন সাথীর বাবা আমজেদ আলী মৃতদেহটি তার মেয়ের বলে দাবি করে এক এনজিওকর্মীসহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দেন।

তবে রোববার সাথী খাতুনকে জীবিত উদ্ধারের পর কলেজ ক্যাম্পাসের ডোবায় পড়ে থাকা গলিত মৃতদেহটি কার তা নিয়ে কৌতুহল সৃষ্টি হয়েছে।

যশোর কোতয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অপূর্ব হাসান বলেন, তদন্ত করতে গিয়ে মৃতদেহটি সাথীর নয় বলে পুলিশ নিশ্চিত হয় এবং তাকে উদ্ধার করে। এখন সিটি কলেজের ডোবায় থাকা তরুণীর মৃতদেহটি আসলে কার, সেই রহস্য উদঘাটনে তদন্ত চালানো হচ্ছে।

তদন্ত কর্মকর্তা যশোর কোতোয়ালি থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই আমিরুজ্জামান জানান, পুলিশ গোপন সূত্রে জানতে পারে সাথী হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়নি। সে জীবিত আছে এবং মালয়েশিয়া প্রবাসী প্রেমিক মান্নুর ধর্মবাবা আজিজ লস্করের বাড়ি অবস্থান করছে।

তিনি জানান, পুলিশ রোববার সদর উপজেলার ইছালি জলকার গ্রামে ওই বাড়িতে অভিযান চালায়। তাকে এদিন আদালতে হাজির করা হলে বিকেলে বিচারক বাবার জিম্মায় তাকে মুক্তি দেন।

এসআই আমিরুজ্জামান আরও জানান, স্বামী গোলাম মোস্তফার বাল্যবন্ধু মালয়েশিয়া প্রবাসী মান্নুর সাথে সাথী খাতুনের পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক তৈরি হয়। গত ১৬ মার্চ চিকিৎসার কথা বলে সাথী ভারতে যায়। ওই সময় মান্নুও মালয়েশিয়া থেকে ফিরে ভারতে যায়। ভারতে তারা ৮ দিন অবস্থানের পর দেশে ফিরে আসে। এরপর আরও একমাস সাথীকে নিয়ে মান্নু তার ধর্মপিতা আজিজ লস্করের বাড়িতে ছিল। এপ্রিলে মান্নু আবার মালয়েশিয়া ফিরে গেলে সাথী বাড়ি ফেরে। এ সময় সে বাড়িতে জানিয়েছিল, ‘এতদিন সে ভারতেই ছিল।’

এ ঘটনার পর পরকীয়া প্রেমের সূত্র ধরে গত ১৪ জুলাই ফের স্বামীর ঘর ছাড়েন সাথী। বাড়ি থেকে বের হয়ে তিনি মান্নুর ধর্মবাবা আজিজ লস্করের বাড়িতে উঠেছিলেন। তার কথিত লাশ উদ্ধারের খবর ও ছবি প্রকাশিত হওয়ার পর ওই এলাকায় বিষয়টি জানাজানি হয় এবং পুলিশ সাথীর সন্ধান পায়।

সাথী খাতুন চৌগাছার নয়ড়া গ্রামের আমজেদ আলীর মেয়ে এবং একই উপজেলা চাঁদপাড়া গ্রামের গোলাম মোস্তফার স্ত্রী। তাদের এহসান নামে ছয় বছরের একটি ছেলে সন্তান রয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ২৯ আগস্ট রাতে যশোরে সরকারি সিটি কলেজ এলাকা থেকে পলিথিন মোড়ানো অজ্ঞাতপরিচয় এক তরুণীর গলাকাটা মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এই লাশ উদ্ধারের খবরে পরদিন ৩০ আগস্ট যশোর কোতোয়ালি থানায় ছুটে যান চৌগাছার নয়ড়া গ্রামের আমজেদ আলী। তিনি মৃতদেহটি তার মেয়ে সাথী খাতুনের বলে সনাক্ত করেন।

আমজেদ আলী বলেন, মৃতদেহটি দেখে তিনি হত-বিহ্বল হয়ে তাৎক্ষণিক সেটি তার মেয়ের বলে সনাক্ত করেছিলেন। কিন্তু পরবর্তীতে এ নিয়ে তদন্ত হলে তিনি জানতে পারেন তার ভুল হয়েছে।


আরও পড়ুন

ভরসার প্রতীক সেই নৌকা-ধানের শীষ

ভরসার প্রতীক সেই নৌকা-ধানের শীষ

নির্বাচনী বৈতরণী পার হতে নিজের প্রতীক ছেড়ে আওয়ামী লীগের নৌকা ...

রংপুর বিভাগের ১১ আসনে আ'লীগের প্রার্থী চূড়ান্ত

রংপুর বিভাগের ১১ আসনে আ'লীগের প্রার্থী চূড়ান্ত

আওয়ামী লীগের প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত করার আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু হয়েছে। ...

চট্টগ্রামে জাপা শরিকদের স্বপ্নভঙ্গ

চট্টগ্রামে জাপা শরিকদের স্বপ্নভঙ্গ

বিএনপি ভোটে না এলে ১০০ আসন ছেড়ে দেবে আওয়ামী লীগ- ...

ভোটের মাঠে একঝাঁক তারকা

ভোটের মাঠে একঝাঁক তারকা

বিভিন্ন অঙ্গনের তারকাদের রাজনীতিতে অংশগ্রহণ নতুন নয়। বিশেষত উপমহাদেশে এই ...

সুফি গান আমার কাছে ঈশ্বরবন্দনার মতো

সুফি গান আমার কাছে ঈশ্বরবন্দনার মতো

'সঙ্গীতের আলাদা কোনো ভাষা নেই। কোনো মানচিত্রের মধ্যেও একে বন্দি ...

কুলাউড়ার সাবেক তিন এমপির ডিগবাজি

কুলাউড়ার সাবেক তিন এমপির ডিগবাজি

নির্বাচন দুয়ারে। মনোনয়ন নিশ্চিতে চলছে দল ও জোট বদলের মৌসুম। ...

হৃদয় ছুঁয়েছে 'হাসিনা :অ্যা ডটার'স টেল'

হৃদয় ছুঁয়েছে 'হাসিনা :অ্যা ডটার'স টেল'

কেউ রাজনীতি পছন্দ করুক, আর না করুক- 'হাসিনা :অ্যা ডটার'স ...

ফৌজদারি অপরাধ ছাড়া গ্রেফতার করবে না পুলিশ: মনিরুল

ফৌজদারি অপরাধ ছাড়া গ্রেফতার করবে না পুলিশ: মনিরুল

ফৌজদারি অপরাধে জড়িত না হলে জাতীয় নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কাউকে পুলিশ ...