আফ্রিকায় করোনার দ্রুত সংক্রমণে উদ্বিগ্ন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

প্রকাশ: ২১ জুলাই ২০২০   

অনলাইন ডেস্ক

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

আফ্রিকায় করোনাভাইরাসের দ্রুত সংক্রমণে শঙ্কিত হয়ে উঠেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। করোনাভাইরাসের তাণ্ডবে পুরো বিশ্বে প্রতিদিনই মৃত্যু ও সংক্রমণের হার বাড়লেও সুবিধাবঞ্চিত আফ্রিকার জন্য অবস্থা আরো মারাত্মক হতে পারে বলে উদ্বেগ জানিয়ে সেখানে স্বাস্থ্য ব্যবস্থার দ্রুত পরিবর্তন আনার কথা বলেছে তারা। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলেছে, তাদের জরুরি সাহায্য-সহযোগিতার আওতায় আনতে হবে। খবর আল জাজিরার।

সংস্থার জরুরি কর্মসূচির প্রধান মাইক রায়ান বলেছেন, আমি খুবই শঙ্কিত এখন। কারণ, আফ্রিকা মহাদেশে দ্রুত বাড়ছে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ। বিষয়টিকে গুরুত্ব সহকারে নেওয়া উচিত আমাদের। যেসব দেশে সংক্রমণ বাড়ছে সেগুলোর অনেক দেশের স্বাস্থ্য ব্যবস্থাই ভঙ্গুর। রয়েছে অন্তঃকোন্দল ও যুদ্ধ। করোনার বিরুদ্ধে লড়তে অনেক দেশেরই জরুরি সাহায্য-সহযোগিতা প্রয়োজন।

সারা বিশ্বে করোনা তাণ্ডব চললেও সম্প্রতি আফ্রিকার দেশগুলোতে এর সংক্রমণ ভয়াবহভাবে বেড়েছে। মহাদেশটিতে এখন পর্যন্ত ১৫ হাজার মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। আক্রান্ত হয়েছে ৭ লাখ ২৫ হাজার। আপাতত অন্যান্য মহাদেশের তুলনায় এই হার কম হলেও খারাপের দিকে অবস্থার দ্রুত পরিবর্তন হচ্ছে। বিশেষ করে দক্ষিণ আফ্রিকার পরিস্থিতি উদ্বেগজনক বলে মনে করছে বিশ্বের সর্বোচ্চ স্বাস্থ্য সংস্থাটি। কেবল গত শনিবারই দক্ষিণ আফ্রিকায় সংক্রমণের সর্বোচ্চ সংখ্যা ছিল ১৩ হাজার ৩৭৩। দেশটিতে লকডাউন তুলে নিয়েও ফের তা বহাল রাখা হয়েছে। দেশটিতে এ পর্যন্ত আক্রান্ত সাড়ে তিন লাখ। মারা গেছে ৫ হাজার। এদিকে কেনিয়ায় ৩১ শতাংশ, মাদাগাস্কারে ৫০ শতাংশ, জিম্বাবুয়েতে ৫৭ শতাংশ ও নামিবিয়ায় ৬৯ শতাংশ মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছে।

 মাইকেল রায়ান বলেন, যেখানে দক্ষিণ আফ্রিকারই এই অবস্থা, সেখানে মহাদেশটির বাকি দেশগুলোর অবস্থা নিয়ে এর চেয়ে বেশি উদ্বিগ্ন হওয়ার কারণ রয়েছে।