এশিয়া

ভোটে হেরে একাধিক গ্রামের টিউবওয়েল ভেঙে দিয়েছে তৃণমূল: বিজেপি

প্রকাশ: ৩০ মে ২০১৯      

অনলাইন ডেস্ক

ভারতের লোকসভা নির্বাচনে ভোটে হেরে একাধিক গ্রামের টিউবওয়েল তৃণমূল কংগ্রেসের নেতাকর্মীরা ভেঙে দিয়েছে বলে অভিযোগ করেছে বিজেপি। 

পশ্চিম বর্ধমান এবং বীরভূমের কিছু জায়গায় এমন ঘটনা ঘটেছে বলে বিজেপির দাবি। লোকসভা নির্বাচনে বর্ধমানের দুর্গাপুর আসন থেকে আড়াই হাজার ভোটে তৃণমূলের মমতাজ সঙ্ঘমিত্রাকে পরাজিত করে জেতেন এস এস অহলুওয়ালিয়া। সেই আক্রোশ থেকে একাধিক গ্রামের মানুষ যাতে পানি না পায় তার জন্য এই কাজ করেছে তৃণমূল। এমনই দাবি বিজেপির। খবর এনডিটিভির

স্থানীয় বিজেপি কর্মী লাল্টু মন্ডলের দাবি, কঙ্করপুরের বুথে আমরা বেশি ভোট পেয়েছি বলে আক্রোশে তৃণমূলের দুষ্কৃতিরা গ্রামের টিউবওয়েলে ভাঙচুর করেছে। গ্রামের একটাও টিউবওয়েল অক্ষত নেই বলে তার দাবি।

ঘটনার প্রতিবাদে স্থানীয় তৃণমূল পঞ্চায়েত সদস্য পঞ্চানন দাসের বাড়ির বাইরে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন গ্রামবাসীরা। তবে পঞ্চানন দাবি করেছেন এই ঘটনার সঙ্গে তৃণমূল বা পঞ্চায়েতের কোনও যোগ নেই। স্থা

নীয় ক্লাবের ছেলেরা এ ধরনের গোলমাল করেছে। বিজেপি নির্বাচনে জিতেছে বলে অকারণে তৃণমূলকে বদনাম করতে চাইছে বলে তার দাবি। দীর্ঘ টালবাহানার পর গ্রামের টিউবওয়েলগুলি মেরামতির ব্যবস্থা করা হয়।

বীরভূমের রামপুরহাটের কয়েকটি জায়গাতেও একই ঘটনা ঘটেছে। সেখানেও তৃণমূলের বিরুদ্ধে টিউবওয়েল ভেঙে দেওয়ার অভিযোগ করেছে বিজেপি। বিজেপি কর্মীদের অভিযোগ রামপুরহাটে তাদের ভোট বেশি হওয়ায় আক্রোশে এ ধরনের ঘটনা ঘটেছে। এই এলাকার তৃণমূল পঞ্চায়েত সদস্য শ্যামলী মন্ডল জানান ঘটনাটা কারা ঘটিয়েছে তা তার জানা নেই। তবে টিউবওয়েল গুলি তাড়াতাড়ি সারিয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

পশ্চিম বর্ধমান জেলার দুর্গাপুরেও একটি ঘটনা ঘটেছে। সেখানে বিজেপি এবং তৃণমূল একে অপরকে দোষারোপ করা শুরু করছে।

বিষয় : লোকসভা নির্বাচন ভারত