ঢাকার ওসমানী উদ্যানে সচিবালয়ের গাড়ি পার্কিং ব্যবস্থার যে পরিকল্পনা নিয়েছে সিটি করপোরেশন, তা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন দেশের পরিবেশবাদীরা।

মঙ্গলবার সরেজমিন ওসমানী উদ্যান পরিদর্শন করে সিটি করপোরেশনকে এ প্রকল্প থেকে সরে আসার আহ্বান জানান তারা। ১৫ নভেম্বর সমকালের প্রথম পাতায় ‘সচিবালয় ঘিরে পার্কিং পরিকল্পনা, গাড়ির দখলে যাবে ওসমানী উদ্যান’ শিরোনামে প্রতিবেদন প্রকাশের পরিপ্রেক্ষিতে পরিবেশবাদীরা ওসমানী উদ্যান পরিদর্শন করেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন পরিবেশবাদী ছাত্র-যুব সংগঠন গ্রিন ভয়েসের উপদেষ্টা স্থপতি ইকবাল হাবিব, নাগরিক উদ্যোগের নির্বাহী প্রধান জাকির হোসেন, সিপিবির কেন্দ্রীয় নেতা রুহিন হোসেন প্রিন্স, বাপার যুগ্ম সম্পাদক মিহির বিশ্বাস, গ্রিন ভয়েসের প্রধান সমন্বয়ক আলমগীর কবির, সহসমন্বয়ক হুমায়ন কবির সুমন, সদস্য তরিকুল ইসলাম রাতুল, আরিফুর রহমান, নড়াইল জেলার গ্রিন ভয়েসের সমন্বয়ক অ্যাডভোকেট কাওছার, নাগরিক উদ্যোগের কর্মকর্তা আনিছুর রহমান প্রমুখ।

স্থপতি ইকবাল হাবিব বলেন, সমকালে প্রকাশিত প্রতিবেদনের ভিত্তিতে ওসমানী উদ্যান সরেজমিন পরিদর্শন করেছি। ওসমানী উদ্যানে কোনোভাবেই সচিবালয়ের গাড়ি রাখার ব্যবস্থা করা যাবে না। উদ্যান দখল করে জনগণের অধিকার হরণের পাঁয়তারা করলে হাইকোর্টে রিট করা হবে।

সাংবাদিকদের পরিবেশবাদীরা বলেন, উন্মুক্ত স্থান উন্নয়ন শর্তানুযায়ী কোনোভাবেই মোট জমির ৫ ভাগের অধিক অংশজুড়ে কংক্রিট কাঠামো তৈরি হতে পারে না। নির্বিচার গাছ নিধন করে ভূগর্ভস্থ খাবারের দোকান, পার্কিং কিংবা লাইব্রেরি বা মিউজিয়াম তৈরি কখনোই গণপরিসর উন্নয়ন হতে পারে না। ওসমানী উদ্যানে প্রস্তাবিত ২০০ এর অধিক ভূগর্ভস্থ পার্কিং তৈরির মাধ্যমে পূর্ব-উত্তর ও পূর্ব-দক্ষিণ অংশের বৃক্ষ নিধনের যে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে, তা খুবই উদ্বেগজনক।

মন্তব্য করুন