অন্যান্য

আনসারের জন্য ৩০ হাজার শটগান কেনা হচ্ছে

প্রকাশ: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

সমকাল প্রতিদেক

আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর জন্য ৩০ হাজার ১২ বোর শটগান এবং এসব শটগানের জন্য ৩০ লাখ কার্তুজ বা গুলি আমদানি করছে সরকার। এ জন্য সরকারের ব্যয় হবে ১৪৭ কোটি ৪৮ লাখ টাকা। এসব শটগান ও কার্তুজ ইতালি, তুরস্ক ও যুক্তরাজ্য থেকে সংগ্রহ করে সরকারকে সরবরাহ করবে মেশিন টুলস ফ্যাক্টরি।

বুধবার সচিবালয়ের মন্ত্রিপরিষদ কক্ষে সরকারি ক্রয়-সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে শটগান ও গুলি আমদানির প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এই প্রস্তাবসহ বৈঠকে মোট ১৩টি ক্রয় প্রস্তাবের অনুমোদন দেওয়া হয়। কমিটির সভাপতি অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন। এ সময় কমিটির সদস্য, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সিনিয়র সচিব এবং সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিব ও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মোস্তাফিজুর রহমান সাংবাদিকদের জানান, ৩০ হাজার ১২ বোর শটগানের জন্য ব্যয় হবে ১০৯ কোটি টাকা। ৩০ লাখ কার্তুজ কেনায় ব্যয় হবে ৩৮ কোটি ৪৪ লাখ টাকা।

তিনি আরও জানান, বিভিন্ন সময়ে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর জন্য অস্ত্র কেনা হয়। তারই ধারাবাহিকতায় এবারও কেনা হচ্ছে।

এদিকে আরব আমিরাত থেকে ৫০ হাজার টন সার আমদানির দুটি ক্রয় প্রস্তাবের অনুমোদন দিয়েছে কমিটি। কোটেশন ইনকুয়েরির মাধ্যমে ২৫ হাজার টন ইউরিয়া সার আমদানির প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এ সার সরবরাহ করবে মেসার্স আরএস লিমিটেড সিঙ্গাপুর। প্রতি টনের দাম ৩০৪ দশমিক ৪১ ডলার।

অতিরিক্ত সচিব জানান, আরও একটি প্রস্তাবের মাধ্যমে ২৫ হাজার টন ইউরিয়া আমদানির প্রস্তাবে অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এসব সার সরবরাহ করবে মেসার্স হাইড্রোকার্বন, ঢাকা। এ ছাড়া চলতি অর্থবছরে রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে চুক্তির মাধ্যমে কাতার থেকে আমদানি করা সারের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। 

মোস্তাফিজুর রহমান জানান, বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের একটি প্রকল্পের আওতায় ৪২০ কোটি টাকা ব্যয়ে ২ লাখ ৪ হাজার ৯৯০টি খুঁটি কেনার প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে ক্রয় কমিটি। কনটেক কনস্ট্রাকশন, পোলস অ্যান্ড কংক্রিটক্যাসেল কনস্ট্রাকশন কোম্পানি এবং বাংলাদেশ মেশিনারিজ ফ্যাক্টরি এসব খুঁটি সরবরাহ করবে।

এ ছাড়া কমিটি বুধবারের বৈঠকে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের আরও আটটি ক্রয় প্রস্তাবের অনুমোদন দিয়েছে বলেও জানান তিনি।

আরও পড়ুন

এমসি কলেজ ছাত্র সংসদ ভবনই বেদখলে

এমসি কলেজ ছাত্র সংসদ ভবনই বেদখলে

প্রায় তিন দশক পর দেশের সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে শুরু ...

ইটভাটায় আইন লঙ্ঘনের জরিমানা বাড়ছে

ইটভাটায় আইন লঙ্ঘনের জরিমানা বাড়ছে

পরিবেশ বিপর্যয় ঠেকাতে ইটভাটা নির্মাণ ও ইট প্রস্তুতের ক্ষেত্রে আইন ...

শাঁখারি কার্ত্তিকের 'বাড়ি' বাঁচানোই দায়

শাঁখারি কার্ত্তিকের 'বাড়ি' বাঁচানোই দায়

শাঁখারি কার্ত্তিক চন্দ্র সেন। বাড়ি ডেফলচড়া শাঁখারিপাড়া। পাবনার চাটমোহর উপজেলার ...

মন্ত্রিসভায় উঠছে যুদ্ধাপরাধীদের সম্পদ বাজেয়াপ্ত আইন

মন্ত্রিসভায় উঠছে যুদ্ধাপরাধীদের সম্পদ বাজেয়াপ্ত আইন

একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধীদের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করতে নতুন আইন করছে সরকার। ...

নতুন নৌবাহিনী প্রধান আওরঙ্গজেব চৌধুরী

নতুন নৌবাহিনী প্রধান আওরঙ্গজেব চৌধুরী

নৌবাহিনীর প্রধান হিসেবে নিয়োগ পেলেন এ এম এম এম আওরঙ্গজেব ...

অন্যকে ফাঁসাতে গর্ভের সন্তানকে হত্যা!

অন্যকে ফাঁসাতে গর্ভের সন্তানকে হত্যা!

গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় ১ মাসের শিশু সন্তানকে পানিতে ফেলে হত্যার অভিযোগে ...

মাদ্রাসা শিক্ষকের একী কাণ্ড!

মাদ্রাসা শিক্ষকের একী কাণ্ড!

সিলেবাস দেওয়ার কথা বলে বাসায় ডেকে নিয়ে অষ্টম শ্রেণি পড়ূয়া ...

ভুয়া ভোটে নির্বাচিতরা ভুয়া প্রতিনিধি: সেলিম

ভুয়া ভোটে নির্বাচিতরা ভুয়া প্রতিনিধি: সেলিম

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম একাদশ জাতীয় ...