ইসলামিক ফাউন্ডেশনের ডিজির পদত্যাগ চান পরিচালকরা

প্রকাশ: ১৭ জুন ২০১৯      

সমকাল প্রতিবেদক

ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক (ডিজি) সামীম মোহাম্মদ আফজাল -সংগৃহীত

ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক (ডিজি) সামীম মোহাম্মদ আফজালের পদত্যাগ চেয়েছেন সংস্থাটির পরিচালকরা। 

সোমবার বিকেলে ফাউন্ডেশনের ২০ জন পরিচালক বৈঠকে করেন। চলমান অস্থিরতা নিরসনে তারা মহাপরিচালকের পদত্যাগ দাবি করেন।

গত কয়েক মাস ধরেই অস্থিরতা চলছে ইসলামিক ফাউন্ডেশনে। মহাপরিচালক সামীম আফজালের বিরুদ্ধে দুর্নীতি, অনিয়ম ও নিয়োগ বাণিজ্যের অভিযোগ উঠেছে। গত অক্টোবরে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের পিলার ভেঙে দোকানের আয়তন বাড়িয়ে নেন স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা সোহরাব গাজী। এ ঘটনার তদন্ত করে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে সুপারিশ করেছিলেন ইফার পরিচালক (মসজিদ ও মার্কেট) মুহাম্মদ মহীউদ্দিন মজুমদার। পিলার ভেঙে ফেলা আওয়ামী লীগ নেতার পক্ষে অবস্থান নেন সামীম আফজাল। গত ৩০ মে সাময়িক বরখাস্ত করা হয় মহীউদ্দিন মজুমদারকে। পরে ধর্ম মন্ত্রণালয় ওই আদেশ বাতিল করে। এ নিয়ে ধর্ম মন্ত্রণালয় ও ইসলামিক ফাউন্ডেশনের বিরোধ চলছে। ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আবদুল্লাহর সঙ্গে টানাপড়েন চলছে মহাপরিচালকের। প্রতিমন্ত্রীও মহাপরিচালকের পদত্যাগ চেয়েছেন।

গত শনিবার নিজ দপ্তর থেকে ফাইল 'সরাতে' গিয়ে ইসলামিক ফাউন্ডেশনে কর্মকর্তাদের তোপের মুখে পড়েন সামীম আফজাল। সেদিন তিনি পদত্যাগের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছিলেন। গত রোববার তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করেন। সোমবার পর্যন্ত তিনি পদত্যাগ করেননি।

এ অবস্থার মধ্যেই গতকাল জরুরি সভায় বসেন ইসলামিক ফাউন্ডেশনের পরিচালকরা। জ্যেষ্ঠ পরিচালক মাহবুব আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় সিদ্ধান্তে বলা হয়, 'ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মর্যাদা অক্ষুণ্ণ রাখতে, ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে সম্পর্ক রক্ষায়, অচলাবস্থা নিরসনে মহাপরিচালককে স্বেচ্ছায় অব্যাহতি নেওয়ার অনুরোধ করা হচ্ছে।' দ্রুত বোর্ড গভর্নরের সভা আহ্বান এবং ফাউন্ডেশনের চেইন অব কমান্ড পুনঃপ্রতিষ্ঠার আহ্বান জানানো হয় সভা থেকে।

সরকারি চাকরিবিধি অনুযায়ী, পরিচালকরা নিজেরা উদ্যোগী হয়ে সভা করে মহাপরিচালকের পদত্যাগ দাবি করতে পারেন কি-না- এ প্রশ্নে পরিচালক মোহাম্মদ মহীউদ্দিন মজুমদার সমকালকে বলেছেন, পরিস্থিতির কারণে তারা বাধ্য হয়েছেন সভা করতে। তারা মহাপরিচালকের পদত্যাগ দাবি করেননি। পদত্যাগের অনুরোধ করেছেন।

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আবদুল্লাহ সমকালকে বলেছেন, ফাউন্ডেশনের ভাবমূর্তি সংকটে পড়েছে। যে পরিস্থিতির উদ্ভব হয়েছে, তাতে মহাপরিচালকের পদত্যাগ করা উচিত। তিনি ১০ বছর দায়িত্ব পালন করেছেন। এবার ছেড়ে দেওয়া উচিত। তার শারীরিক অবস্থাও ভালো নয়।

সামীম মোহাম্মদ আফজালের বিরুদ্ধে ওঠা দুর্নীতির অভিযোগ খতিয়ে দেখে প্রতিবেদন দিতে ধর্ম মন্ত্রণালয়কে চিঠি দিয়েছে দুদক। মন্ত্রণালয় কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছে মহাপরিচালককে। প্রতিমন্ত্রী বলেছেন, তারা সব কিছুই খতিয়ে দেখছেন।

এদিকে সোমবারও অস্থিরতা ছিল ইসলামিক ফাউন্ডেশনে। সভা ডাকায় পরিচালকদের নিজ কক্ষে নিয়ে শাসিয়েছেন মহাপরিচালক। দু'জন পরিচালক এ অভিযোগ করেছেন সমকালের কাছে। তবে এ বিষয়ে মহাপরিচালকের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

পরিচালকদের বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন আবুল কালাম, মোহম্মদ আলম, তৌহিদুল আনোয়ার, এ কে এম ফজলুর রহমান, মুহম্মদ আবদুস সালাম, আফজাল উদ্দিন, এ বি এম শফিকুল ইসলাম, আবুল কাশেম মজুমদার, মো. আনিসুজ্জামান, ড. এ কে এম বদরুল আহসান, মোস্তফা মনসুর আলম খান, এবিএম জাহাঙ্গীর আলম, মুহম্মদ রফিকুল ইসলাম, রাশিদা আক্তার, ড. মোহাম্মদ হারুনূর রশীদ, মোহাম্মদ মহীউদ্দিন মজুমদার ও লুৎফর রহমান সরকার।