আইএফআরসির তথ্য

বন্যায় ৪০ লাখের বেশি মানুষ ঝুঁকিতে

প্রকাশ: ১৯ জুলাই ২০১৯      

অনলাইন ডেস্ক

বন্যায় আক্রান্ত গাইবান্ধা শহরের ডেভিড কোম্পানি পাড়ায় কলার ভেলায় চেপে বিশুদ্ধ পানির খোঁজে বেরিয়েছে একটি পরিবার। শুক্রবার তোলা ছবি -সমকাল

বাংলাদেশের উত্তর ও দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় খাদ্য নিরাপত্তাহীনতা ও রোগের ঝুঁকিতে পড়েছে ৪০ লাখের বেশি মানুষ। শুক্রবার এমন আশঙ্কা প্রকাশ করেছে ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন অব রেড ক্রস অ্যান্ড রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটিজ (আইএফআরসি)।

সংস্থটির সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বন্যা ও ভূমিধসের কারণে সড়ক ও গুরুত্বপূর্ণ অবকাঠামো ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এতে বিদ্যুৎহীন অবস্থায় বিভিন্ন স্থানে আটকে পড়েছে কয়েকলাখ মানুষ। ধ্বংস হয়েছে ৬৬ হাজারের বেশি বাড়িঘর। খাদ্য ও পরিষ্কার পানির সংকটের সঙ্গে পানিবাহিত রোগ বাড়ার খবরও পাওয়া গেছে।

এতে আরো বলা হয়, বিস্তীর্ণ কৃষি অঞ্চলে বন্যায় খাদ্য শস্য নষ্ট হওয়ার ঝুঁকি থাকায় খাদ্য সংকটের হুমকিও তৈরি হয়েছে। এর ফলে শিশু, প্রসূতি মা, গর্ভবতী মা ও বৃদ্ধরা সবচেয়ে ঝুঁকির মুখে পড়বে।

এ বিষয়ে আইএফআরসির বাংলাদেশ প্রধান আজমত উল্লাহ বলেন, মৌসুমি বৃষ্টি, বন্যার প্রকোপ ও ভূমিধসের কারণে নাকাল হচ্ছে এসব মানুষ। বৃষ্টি কমলেও উজান থেকে নদীগুলোর উপচেপড়া প্রবাহে সামনের দিনগুলোতে বন্যার অবনতি ঘটাবে।

সংস্থাটি জানায়, রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির ৬৭৫ জন স্বেচ্ছাসেবক বন্যাআক্রান্ত বিভিন্ন এলাকায় সেবা দিচ্ছে। এ ছাড়া বন্যাদুর্গতদের জন্য এর মধ্যেই প্রায় ৩ কোটি ৮৯ লাখ টাকা ছাড় করা হয়েছে।