অপেক্ষা! তাও লাইনে প্রায় দুই ঘণ্টা। নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের (নাসিক) ১ নম্বর ওয়ার্ডের হাজী শামসুদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে শেষমেশ ভোট দিতে পারলেন খোকন মিয়া। তার পরও খুশি। কারণ বছর তিনেক আগে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কেন্দ্রে এসেও ভোট দিতে না পেরে মনঃকষ্ট নিয়ে বাড়ির পথে হেঁটেছিলেন। এবার নিজের ভোট নিজের পছন্দে দিতে পেরে আনন্দের ফল্কগ্দুধারা বইছে খোকন মিয়ার মনে।

রোববার নাসিক নির্বাচনের প্রতিটি কেন্দ্রে ভোটারদের এমন উচ্ছ্বাস চোখে ধরা দেয়। ১ নম্বর ওয়ার্ডের আরেকটি ভোটকেন্দ্র ফুলকলি বিদ্যালয়। এই কেন্দ্রের প্রিসাইডিং কর্মকর্তা হাবিবুর রহমান বলেন, ঈদ, পূজা, পহেলা বৈশাখে যেমন আনন্দ হয়, তেমন খুশির ভোট হচ্ছে। কেন এমন খুশি- এ প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ভোটাররা নির্বিঘ্নে নিজের পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিচ্ছে। কোথাও অশান্তি নেই, বাধা নেই।

আলোচনা করেছেন সমকালের সিনিয়র রিপোর্টার রাজীব আহাম্মদ ও সহ-সম্পাদক রিফাত তাসনুভা