দেশের সব পোশাক কারখানায় আগামী ৭ জুলাইয়ের আগেই ঈদ বোনাস এবং বকেয়া মজুরি পরিশোধের সিদ্ধান্ত হয়েছে। 

এ ছাড়া সরকারি ছুটির সঙ্গে মিলিয়ে দেওয়া হবে ঈদের ছুটি। তবে জরুরি রপ্তানির প্রয়োজনে মালিক-শ্রমিক সমঝোতার ভিত্তিতে সুবিধামতো ছুটি নির্ধারণ করা যাবে।

তৈরি পোশাকবিষয়ক ত্রিপক্ষীয় পরামর্শ পরিষদ (টিসিসি) এবং জাতীয় ত্রিপক্ষীয় পরামর্শ পরিষদের সভায় এসব সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। রাজধানীর বিজয়নগরের শ্রমভবনে গত ২৮ ও ২৯ জুন এ বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন শ্রমপ্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নু জান সুফিয়ান। 

শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। সভায় শ্রম মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী, ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, মালিকপক্ষ ও শ্রমিক প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

আগামী রোববার ঈদুল আজহা উদযাপিত হবে। ঈদের আগে বৃহস্পতিবার শেষ কর্মদিবস। সাধারণত প্রথম সাত কর্মদিবসের মধ্যেই পোশাক কারখানায় বেতন পরিশোধ করা হয়ে থাকে। এ কারণে ঈদের আগে জুন মাসের বেতন পরিশোধ নিয়ে আলাদা করে কোনো নির্দেশনা দেওয়া হয়নি।