ঢাকা রবিবার, ১৯ মে ২০২৪

আইনজীবী কারাগারে

ঘুষ দিয়ে মামলা খালাস করানোর কথা বলে টাকা আদায়

ঘুষ দিয়ে মামলা খালাস করানোর কথা বলে টাকা আদায়

আদালত প্রতিবেদক

প্রকাশ: ১৩ অক্টোবর ২০২২ | ০৯:০৩ | আপডেট: ১৩ অক্টোবর ২০২২ | ০৯:০৩

ম্যাজিস্ট্রেটকে ঘুষ দিয়ে খালাস করিয়ে দেওয়ার কথা বলে চার লাখ টাকা নেওয়ার অভিযোগে আটক আইনজীবী জুয়েল মুন্সি সুমনকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। ঢাকা মহানগর হাকিম মামুনুর রশিদ আজ বৃহস্পতিবার আসামিকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। একই সঙ্গে রোববার জামিন শুনানির দিন ঠিক করেন।

বুধবার মহানগর হাকিম ২৮ নম্বর আদালত থেকে ওই আইনজীবীকে আটক করা হয়। এ ঘটনায় ওই আদালতের বেঞ্চ সহকারী গৌতম কোতয়ালী থানায় মামলা করেন। মামলায় আটক দেখিয়ে আইনজীবীকে আদালতে হাজির করা হলে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন হাকিম।

মামলা থেকে জানা যায়, মো. আবিরুল ইসলাম চৌধুরী নামের এক আসামির বিরুদ্ধে ঢাকার সিএমএম আদালতে তার স্ত্রী যৌতুক আইনে একটি মামলা করেন। সে মামলায় গত ২৮ আগস্ট আইনজীবী পরিচয় দিয়ে জুয়েল মুন্সি ফোন করে বলেন, মামলায় আবিরুলসহ আরও তিনজনের নাম আছে। সে মামলা থেকে তিনজনকে বাদ দিতে পারবেন তিনি। এজন্য ম্যাজিস্ট্রেটকে জনপ্রতি ৫০ হাজার টাকা করে ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা দিতে হবে।

সে কথা অনুযায়ী আসামি নগদ ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা ওই আইনজীবীকে দেন। পরে গত ৩০ আগস্ট মামলার দরখাস্তের খরচ হিসেবে আসামির কাছ থেকে আরও ১৫ হাজার টাকা নেন জুয়েল মুন্সি। পরবর্তীতে গত ৬ সেপ্টেম্বর মহানগর হাকিম শহিদুল ইসলামের আদালত থেকে আসামিদের জামিন করাবে এবং চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেটকে (সিএমএম) ম্যানেজ করে আসামিদের স্থায়ী জামিন ও খালাস করাবে বলে আরও তিন লাখ টাকা নেয় জুয়েল মুন্সি। মামলা নিষ্পত্তির পরে আরও ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা দিতে হবে বলেও জানান তিনি।

আরও পড়ুন

×