ঢাকা শনিবার, ২৫ মে ২০২৪

ডিবির পরিদর্শক শামীম ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

ডিবির পরিদর্শক শামীম ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

সমকাল প্রতিবেদক

প্রকাশ: ২৫ অক্টোবর ২০২২ | ০৮:৫৭ | আপডেট: ২৫ অক্টোবর ২০২২ | ০৮:৫৭

অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (ডিবি) পরিদর্শক শিকদার মো. শামীম হোসেন ও তার স্ত্রী শায়লা রশিদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। দুদকের উপসহকারী পরিচালক মো. মনিরুল ইসলাম বাদী হয়ে মঙ্গলবার কমিশনের সমন্বিত জেলা কার্যালয় ঢাকা-১-এ মামলাটি দায়ের করেন।

এজাহারে বলা হয়, অনুসন্ধানে পরিদর্শক শামীম হোসেনের স্ত্রীর নামে ১ কোটি ৫৮ লাখ ৬৮ হাজার টাকার জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ পাওয়া যায়। যার বৈধ উৎস দেখাতে ব্যর্থ হয়েছেন তিনি। ওই পরিমাণ সম্পদ তার স্বামীর মাধ্যমে অর্জন করেছেন। এ কারণে মামলায় তার স্বামীকেও আসামি করা হয়েছে।

ডিবির এই পরিদর্শক এর আগে ঢাকার কাফরুল ও দক্ষিণখান থানার ওসি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। চাকরিকালে অবৈধভাবে অর্জিত অর্থের দায় থেকে রক্ষা পেতে স্ত্রীর নামে রেখেছেন- যা দুদকের অনুসন্ধানে বেরিয়ে এসেছে।

দুদকে পেশ করা শায়লা রশিদের সম্পদ বিবরণীতে নিজ নামের ১ কোটি ৭৬ লাখ ৫১ হাজার ৮৩০ টাকার স্থাবর ও ৭৩ লাখ ৪২ হাজার ১৮৯ টাকার অস্থাবর সম্পদসহ মোট ২ কোটি ৪৯ লাখ ৯৪ হাজার টাকার সম্পদের তথ্য দিয়েছেন। তার হিসাব যাচাইকালে মোট ৩ কোটি ৭৫ লাখ ১ হাজার টাকার স্থাবর-অস্থাবর সম্পদের প্রমাণ পাওয়া যায়। এ ক্ষেত্রে ১ কোটি ২৫ লাখ ৭ হাজার টাকার সম্পদের তথ্য গোপন করা হয়। এই হিসাব থেকে তার নামে ১ কোটি ৫৮ লাখ ৬৮ হাজার ৪৪৮ টাকার অবৈধ সম্পদের প্রমাণ পাওয়া যায়। যার পুরোটাই স্বামীর মাধ্যমে অর্জন করেছেন।

শায়লা রশিদ রাজধানীর মিরপুর-২ এ একটি ফ্ল্যাট ক্রয়ে পাঁচ লাখ টাকা ব্যয় দেখান। দুদকের অনুসন্ধানে দেখা যায় ওই ফ্ল্যাটটি তিনি ১ কোটি ৩০ লাখ টাকায় ক্রয় করেছেন। ফ্ল্যাট কেনার এই টাকার বৈধ উৎস তিনি দেখাতে পারেননি।

এজাহরে এই দম্পতির বিরুদ্ধে দুদক আইন ২০০৪-এর ২৬(২) ও ২৭(১) ধারা, দণ্ডবিধির ১০৯ ধারা এবং ১৯৪৭ সালের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারায় মামলাটি করা হয়েছে।

আরও পড়ুন

×