কুড়িগ্রামে চিরনিদ্রায় সৈয়দ শামসুল হক

প্রকাশ: ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৬     আপডেট: ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৬      

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি

ঢাকা থেকে হেলিকপ্টারে কুড়িগ্রামে নেওয়া হয় সব্যসাচী লেখক সৈয়দ শামসুল হকের মরদেহ- সমকাল

সব্যসাচী লেখক সৈয়দ শামসুল হককে তার জন্মস্থান কুড়িগ্রামে দাফন করা হয়েছে।
 
বুধবার বিকেল পৌনে ৫টার দিকে তার দাফন সম্পন্ন হয়। প্রয়াত লেখকের ছেলে দ্বিতীয় সৈয়দ হক ও ভাই সৈয়দ আজিজুল হকসহ পরিবারের অন্যান্য সদস্য এবং আত্মীয়-স্বজনরা সেখানে উপস্থিত ছিলেন।
 
মঙ্গলবার বিকেলে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন সৈয়দ শামসুল হক। তিনি ফুসফুসের ক্যান্সারে ভুগছিলেন। তার বয়স হয়েছিল ৮১ বছর।
 
বুধবার সকাল সাড়ে ১১টা থেকে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সৈয়দ শামসুল হকের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদসহ সর্বস্তরের মানুষ। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকেও সেখানে সৈয়দ হকের প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়।
 
শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সৈয়দ হকের মরদেহ নেওয়া হয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় জামে মসজিদে। সেখানে জানাজার পর হেলিকপ্টারে তার মরদেহ নেওয়া হয় জন্মস্থান কুড়িগ্রামে।
 
বিকেল ৪টার দিকে সৈয়দ শামসুল হকের মরদেহ বহনকারী হেলিকপ্টারটি কুড়িগ্রাম সরকারি কলেজ মাঠে তৈরি অস্থায়ী হেলিপ্যাডে নামে। সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর ও আওয়ামী লীগ নেতা সংসদ সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানকও লাশবাহী হেলিকপ্টারে করে কুড়িগ্রামে আসেন।
 
পরে মরদেহ নেওয়া হয় কলেজ মাঠে তৈরি অস্থায়ী মঞ্চে। সেখানে তার প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন শ্রদ্ধা কুড়িগ্রাম জেলা পরিষদের প্রশাসক মো. জাফর আলী, জেলা প্রশাসক খান মো. নুরুল আমিন, পুলিশ সুপার মো. তবারকউল্লাহ ও জেলা দায়রা জজ ও অন্যান্য বিচারকবৃন্দ।
 
এছাড়াও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আমিনুল ইসলাম মণ্ডল, জেলা বিএনিপর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আবু বকর সিদ্দিক, জেলা জাসদ সভাপতি ইমদাদুল হক ইমদাদ, জেলা সিপিবি সভাপতি মাহবুবুর রহমান মবিন, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি আব্রাহাম লিংকনসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও পেশাজীবী সংগঠনসহ সর্বস্তরের জনসাধারণ সৈয়দ হকের প্রতি শ্রদ্ধা জানান।
 
শ্রদ্ধা নিবেদনের পর সেখানে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। জানাজা পড়ান কুড়িগ্রাম আলিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মো. নূর বখত।
 
জানাজা শেষে লেখকের শেষ ইচ্ছা অনুযায়ী কুড়িগ্রাম সরকারি কলেজের প্রধান ফটকের দক্ষিণ পাশে কুড়িগ্রাম চিলমারী সড়ক ঘেষে তার মরদেহ দাফন করা হয়।

আরও পড়ুন

ঘরের মাঠে মস্কোয় বিধ্বস্ত রিয়াল

ঘরের মাঠে মস্কোয় বিধ্বস্ত রিয়াল

রাশিয়া নামক এক জুজু বুড়ির ভয় ভর করেছে রিয়ালের ওপর। ...

হারাচ্ছে জমি, অস্তিত্ব সংকটে সমতলের আদিবাসীরা

হারাচ্ছে জমি, অস্তিত্ব সংকটে সমতলের আদিবাসীরা

'জমি চাই মুক্তি চাই' স্লোগানে ১৮৫৫ সালে সাঁওতাল নেতা সিধু, ...

'কোল্ড আর্মসে' কক্সবাজার সৈকতে দুর্ধর্ষ হামলার ছক

'কোল্ড আর্মসে' কক্সবাজার সৈকতে দুর্ধর্ষ হামলার ছক

দুনিয়াব্যাপী কমান্ডো নাইফ এবং বিশেষ ধরনের ছুরি ও চাকু 'কোল্ড ...

সহিংসতা রোধে ইসিকে সতর্ক হওয়ার পরামর্শ আওয়ামী লীগের

সহিংসতা রোধে ইসিকে সতর্ক হওয়ার পরামর্শ আওয়ামী লীগের

দেশের বিভিন্ন স্থানে সৃষ্ট সহিংসতা ঠেকাতে নির্বাচন কমিশনকে (ইসি) আরও ...

গ্রেফতার হামলা বন্ধে সিইসির হস্তক্ষেপ চায় বিএনপি

গ্রেফতার হামলা বন্ধে সিইসির হস্তক্ষেপ চায় বিএনপি

প্রতীক বরাদ্দের পরও বিএনপির নেতাকর্মীদের হয়রানি, গ্রেফতার ও সন্ত্রাসী হামলার ...

বৃহত্তম সমাবেশ যুক্তরাজ্যে

বৃহত্তম সমাবেশ যুক্তরাজ্যে

১ আগস্ট ১৯৭১। যুক্তরাজ্যের রাজধানী লন্ডনের ট্রাফালগার স্কয়ারে দুপুর থেকেই ...

চট্টগ্রামে আমীর খসরুর প্রচারে হামলায় আহত ৫

চট্টগ্রামে আমীর খসরুর প্রচারে হামলায় আহত ৫

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীর গণসংযোগে হামলার ...

২৪ থেকে ২৬ ডিসেম্বরের মধ্যে সেনা মোতায়েন

২৪ থেকে ২৬ ডিসেম্বরের মধ্যে সেনা মোতায়েন

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন ঘিরে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে আগামী ...