মহাকাশে উৎক্ষেপণের জন্য 'ব্র্যাক অন্বেষা' হস্তান্তর

প্রকাশ: ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৭      

সমকাল প্রতিবেদক

জাপানের কিউশু ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজির (কেআইটি) সহযোগিতায় ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের তিন শিক্ষার্থীর তৈরি প্রথম ন্যানো স্যাটেলাইট ‘ব্র্যাক অন্বেষা’ গ্রহণ করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. সৈয়দ সাদ আন্দালিব।
 
বুধবার জাপানের কিতাকিউশুতে এটি গ্রহণ করেন তিনি। একই অনুষ্ঠানে স্যাটেলাইটটি ‘জাপান অ্যারোস্পেস এক্সপ্লোরেশন এজেন্সি’র কাছে মহাকাশে উৎক্ষেপণের জন্য হস্স্তান্তর করা হয়।
 
বুধবার সেখান থেকে বাংলাদেশের স্থানীয় সময় বেলা ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের মহাখালী ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠানটি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সরাসরি সম্প্রচার করা হয়।
 
বিটিআরসি চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ, জাপান দূতাবাসের ফাস্ট সেক্রেটারি তোশিয়ুকি নোগুচি, বুয়েটের কম্পিউটার কৌশল বিভাগের অধ্যাপক ড. কায়কোবাদ এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।
 
এতে সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ম্যাথমেটিক্স অ্যান্ড ন্যাচারাল সায়েন্স বিভাগের চেয়ারপারসন অধ্যাপক ড. জিয়াউদ্দীন আহমেদ। অনুষ্ঠানে জাপান থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বিভিল্পু প্রশ্নের জবাব দেন ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য।
 
ভিডিও কনফারেন্সে আরও উপস্থিত ছিলেন কিউশু’র প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক ইউজি অই, পরিচালক মেংগু চো, প্রকল্পের উদ্যোক্তা তিন শিক্ষার্থী রায়হানা শামস ইসলাম, আবদুল্লা হিল কাফি ও মাইসুন ইবনে মনোয়ার। মহাকাশে উৎক্ষেপণের আগে এটিই ছিল বাংলাদেশে ‘ব্র্যাক অন্বেষা’ দেখার শেষ সুযোগ।
 
জাপান থেকে প্রকল্পের অন্যতম উদ্যোক্তা আবদুল্লা হিল কাফি জানান, কৃষিকাজ, দুর্যোগ মোকাবেলা, নগরায়নসহ নানা বিষয়ে গবেষণার জন্য উচ্চমানের ছবি তুলে পাঠাবে স্যাটেলাইটটি। মহাকাশ-সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে গবেষণা ও পর্যবেক্ষণ করা হবে এর অন্যতম কাজ। এ ছাড়া বিশেষ বিশেষ দিনে স্যাটেলাইটটি জাতীয় সঙ্গীত বাজাবে। এটি পৃথিবী থেকে ৪০০ কিলোমিটার ওপরে অবস্থান করবে এবং পৃথিবীর চারপাশে প্রদক্ষিণ করে আসতে এর সময় লাগবে ৯০ মিনিট। বাংলাদেশের ওপর দিয়ে দিনে চার থেকে ছয় বার উড়ে যাবে এটি।
 
জাপান অ্যারোস্পেস এক্সপ্লোরেশন এজেন্সির মাধ্যমে ন্যানো স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণের কাজ হলেও ভূমি থেকে নিয়ন্ত্রণের গ্রাউন্ড কন্ট্রোল স্টেশন হচ্ছে বাংলাদেশ। ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের আরেক দল শিক্ষার্থী মোজাম্মেল হক, সানন্দ জগতি, বিজয় তালুকদার ও আইনুল হুদা স্টেবশন তৈরির কাজে রয়েছেন।
 
এতে সার্বক্ষণিক সহায়তা করছে বাংলাদেশ মহাকাশ গবেষণা ও দূর অনুধাবন সংস্থা (স্পারসো)। এ প্রকল্পে প্রধান ইনভেস্টিগেটর হিসেবে রয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়টির সহযোগী অধ্যাপক ড. মো. খলিলুর রহমান।
 
স্যাটেলাইট নির্মাণ ও উৎক্ষেপণের জন্য গত বছর জুন মাসে ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয় কেআইটির সঙ্গে চুক্তি করে। নকশা তৈরি, উপকরণ সংগ্রহ, স্যাটেলাইট বানানো- সব কাজই করেছেন বাংলাদেশের তিন শিক্ষার্থী। তারা ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তড়িৎ ও ইলেকট্রনিক্স প্রকৌশল বিষয়ে স্নাতক ডিগ্রি নিয়েছেন। বর্তমানে স্নাতকোত্তর পড়ছেন কেআইটিতে।
 

আরও পড়ুন

ঘরের মাঠে মস্কোয় বিধ্বস্ত রিয়াল

ঘরের মাঠে মস্কোয় বিধ্বস্ত রিয়াল

রাশিয়া নামক এক জুজু বুড়ির ভয় ভর করেছে রিয়ালের ওপর। ...

হারাচ্ছে জমি, অস্তিত্ব সংকটে সমতলের আদিবাসীরা

হারাচ্ছে জমি, অস্তিত্ব সংকটে সমতলের আদিবাসীরা

'জমি চাই মুক্তি চাই' স্লোগানে ১৮৫৫ সালে সাঁওতাল নেতা সিধু, ...

'কোল্ড আর্মসে' কক্সবাজার সৈকতে দুর্ধর্ষ হামলার ছক

'কোল্ড আর্মসে' কক্সবাজার সৈকতে দুর্ধর্ষ হামলার ছক

দুনিয়াব্যাপী কমান্ডো নাইফ এবং বিশেষ ধরনের ছুরি ও চাকু 'কোল্ড ...

সহিংসতা রোধে ইসিকে সতর্ক হওয়ার পরামর্শ আওয়ামী লীগের

সহিংসতা রোধে ইসিকে সতর্ক হওয়ার পরামর্শ আওয়ামী লীগের

দেশের বিভিন্ন স্থানে সৃষ্ট সহিংসতা ঠেকাতে নির্বাচন কমিশনকে (ইসি) আরও ...

গ্রেফতার হামলা বন্ধে সিইসির হস্তক্ষেপ চায় বিএনপি

গ্রেফতার হামলা বন্ধে সিইসির হস্তক্ষেপ চায় বিএনপি

প্রতীক বরাদ্দের পরও বিএনপির নেতাকর্মীদের হয়রানি, গ্রেফতার ও সন্ত্রাসী হামলার ...

বৃহত্তম সমাবেশ যুক্তরাজ্যে

বৃহত্তম সমাবেশ যুক্তরাজ্যে

১ আগস্ট ১৯৭১। যুক্তরাজ্যের রাজধানী লন্ডনের ট্রাফালগার স্কয়ারে দুপুর থেকেই ...

চট্টগ্রামে আমীর খসরুর প্রচারে হামলায় আহত ৫

চট্টগ্রামে আমীর খসরুর প্রচারে হামলায় আহত ৫

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীর গণসংযোগে হামলার ...

২৪ থেকে ২৬ ডিসেম্বরের মধ্যে সেনা মোতায়েন

২৪ থেকে ২৬ ডিসেম্বরের মধ্যে সেনা মোতায়েন

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন ঘিরে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে আগামী ...