সাবেক প্রধান বিচারপতি লতিফুর রহমান আর নেই

প্রকাশ: ০৬ জুন ২০১৭     আপডেট: ০৬ জুন ২০১৭      

সমকাল প্রতিবেদক

লতিফুর রহমান

সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রধান উপদেষ্টা ও প্রধান বিচারপতি লতিফুর রহমান আর নেই।
 
মঙ্গলবার রাজধানীর শমরিতা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান (ইন্নালিল্লাহি......রাজিউন)।
 
বিচারপতি লতিফুর রহমানের বয়স হয়েছিল ৮১ বছর। তিনি স্ত্রী ও দুই মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রহী রেখে গেছেন।
 
হাইকোর্টের অতিরিক্ত রেজিস্টার (প্রশাসন ও বিচার) মো. সাব্বির ফয়েজ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
 
তিনি জানান, বাদ জোহর সুপ্রিম কোর্ট প্রাঙ্গনে প্রধান বিচারপতি লতিফুর রহমানের জানাজা অনুষ্ঠিত হবে।
 
অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম সমকালকে বলেন, 'সাবেক প্রধান বিচারপতি লতিফুর রহমানের মৃত্যুতে সকালে আপিল বিভাগ বসে নাই। দুপুরের পর থেকে হাইকোর্ট বেঞ্চ বসবে না বলে সিদ্ধান্ত হয়েছে।'
 
লতিফুর রহমান ১৯৩৬ সালে ১ মার্চ যশোরে  জন্মগ্রহণ করেন। পেশাজীবনের শুরুতে লতিফুর রহমান কায়েদে আজম কলেজ (বর্তমান শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ) ও জগন্নাথ কলেজে (বর্তমান জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়) প্রভাষক হিসেবে কাজ করেন।
 
১৯৬০ সালে তিনি ঢাকা হাইকোর্টে আইন পেশা শুরু করেন। লতিফুর রহমান ১৯৭৯ সালে ২১ নভেম্বর হাইকোর্ট বিভাগের অতিরিক্ত বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ লাভ করেন।  ১৯৮১ সালের ৪ নভেম্বর হাইকোর্ট বিভাগে স্থায়ী বিচারপতি হিসাবে যোগদান করেন। ১৯৯০ সালের ১৫ জানুয়ারি সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগের বিচারপতি হিসেবে যোগদান করেন। ২০০০ সালের ১ জানুয়ারি তিনি দেশের প্রধান বিচারপতি হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। ২০০১ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি তিনি প্রধান বিচারপতি হিসাবে অবসর গ্রহণ করেন।
 
অবসরপ্রাপ্ত বিচাপতি হিসেবে তিনি ২০০১ সালের ১৫ জুলাই তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রধান উপদেষ্টার দায়িত্ব গ্রহণ করেন। তার অধীনে ২০০১ সালের ১ অক্টোবর অষ্টম জাতীয় সংসদ নির্বাচন হয়। সেই নির্বাচনে জয়ী হয়ে বিএনপি নেতৃত্বাধীন চার দলীয় জোট সরকার গঠন করে।