বিশ্বে প্রবাসী মানুষের সংখ্যায় এবার শীর্ষে উঠে এসেছে ভারতের নাম। বাংলাদেশ রয়েছে পঞ্চম স্থানে।

সোমবার প্রকাশিত জাতিসংঘের 'ইন্টারন্যাশনাল মাইগ্রেশন রিপোর্ট-১৭'তে এসব তথ্য উঠে এসেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ১৭ মিলিয়ন বা ১ কোটি ৭০ লাখ ভারতীয় বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বাস করে। এর মধ্যে ৫০ লাখেরই বাস উপসাগরীয় দেশগুলোতে। দেশটির মানুষ বেশি বাস করে সংযুক্ত আরব আমিরাত, যুক্তরাষ্ট্র ও সৌদি আরবে।

এতে আরও বলা হয়, বাংলাদেশ, রাশিয়া, মেপিকো, সিরিয়া ও পাকিস্তানি নাগরিকদের মধ্যে বিদেশে বাস করার প্রবণতা বেশি। ভারতের পর দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে মেপিকো। দেশটির ১ কোটি ৩০ লাখ মানুষ বিদেশে থাকে। এ ছাড়া রাশিয়ার ১ কোটি ১০ লাখ, চীনের ১ কোটি, বাংলাদেশের ৭০ লাখ, সিরিয়ার ৭০ লাখ এবং পাকিস্তানের ৬০ লাখ নাগরিক বিদেশে থাকে।

বিশ্ব সংস্থাটি জানায়, বিদেশে যারা যান, তারা মূলত ভালো কর্মসংস্থান আর ভালো পারিশ্রমিকের জন্য যান। আর এই প্রবণতা ভারতীয় নাগরিকদের মধ্যেই বেশি লক্ষ্য করা যায়। এর বাইরেও বিদেশে লেখাপড়ার জন্য এসব দেশের বহু মানুষ বিদেশে পাড়ি জমান।

এদিকে ২০০০ সালের পর থেকে ভারতে বাংলাদেশি প্রবাসী কমেছে ৮ লাখ। এখন সেখানে বাস করছে ৩১ লাখ। ২০০০ সালে এ সংখ্যা ছিল ৩৯ লাখ।

জাতিসংঘের রিপোর্ট অনুযায়ী, ভারতে বিভিন্ন দেশের প্রবাসী বাস করছে এখন ৫২ লাখ। ২০০০ সাল থেকে এটি কমেছে ১২ লাখ ২০ হাজার। অন্যদিকে বাংলাদেশে ভারতীয়দের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৫ হাজার ২৫০ জনে। যা ২০০০ সালের দিকে ছিল ২২ হাজার ৮১১ জন। নারী প্রবাসীদের সংখ্যা আগের তুলনায় কিছুটা কমেছে। ২০০০ সালে এটি ছিল ৪৯ শতাংশ, চলতি বছর দাঁড়িয়েছে ৪৮ শতাংশে।

বিশ্বব্যাপী প্রবাসী মানুষের সংখ্যা সাম্প্রতিক বছরগুলোতে ব্যাপক হারে বেড়েছে। চলতি বছরে এটি এসে দাঁড়িয়েছে ২৫ কোটি ৮০ লাখে। আন্তর্জাতিকভাবে প্রবাসীদের ৬০ শতাংশই এশিয়ার। ইউরোপে বাস করছে প্রায় একই সংখ্যক। প্রবাসীদের মধ্যে ৬৭ শতাংশই বাস করছে মাত্র ২০টি দেশে। এর মধ্যে রয়েছে- যুক্তরাষ্ট্র, সৌদি আরব, জার্মানি, রাশিয়ান ফেডারেশন, যুক্তরাজ্য, সংযুক্ত আরব আমিরাত, ফ্রান্স, কানাডা, অস্ট্রেলিয়া, স্পেন, ইতালি, ভারত, ইউক্রেন, তুরস্ক, দক্ষিণ আফ্রিকা, কাজাখস্তান, থাইল্যান্ড, পাকিস্তান, জর্ডান ও কুয়েত।



বিষয় : প্রবাসী

মন্তব্য করুন