'নারীরা যা চান' শীর্ষক কর্মসূচি চালু ডব্লিউআরএ'র

প্রকাশ: ০৪ জুন ২০১৮     আপডেট: ০৪ জুন ২০১৮      

অনলাইন ডেস্ক

'নারীরা যা চান' শীর্ষক প্রচারণা কর্মসূচি চালু করেছে হোয়াইট রিবন অ্যালায়েন্স। ১১ এপ্রিল চালু হওয়া এই কর্মসূচির আওতায় বিশ্বব্যাপী অন্তত ১০ লাখ নারী ও মেয়ের কাছ থেকে মানসম্মত মাতৃত্বকালীন ও প্রজনন স্বাস্থ্যসেবা বলতে তারা কী বোঝেন, তা জানতে চাওয়া হবে।

আইসিডিডিআর,বি'তে জাতীয় নিরাপদ মাতৃত্ব দিবস উদযাপনের অংশ হিসেবে বাংলাদেশ মিডওয়াইফরি সোসাইটির (বিএমএস) সঙ্গে আংশীদারিত্বের ভিত্তিতে এই কর্মসূচি চালু করে হোয়াইট রিবন অ্যালায়েন্স।

এই অনুষ্ঠানের লক্ষ্য ছিল প্রচারণা কর্মসূচির বার্তা এবং ব্যক্তিবিশেষ ও সংগঠন পর্যায়ে অংশগ্রহণের আহ্বান ছড়িয়ে দেওয়া। বিএমএসের প্রেসিডেন্ট হালিমা আক্তার বলেন, নিরাপদ সন্তান জন্মদানের জন্য প্রত্যেক গর্ভবতী মায়ের পাশে একজন দক্ষ ধাত্রী বা প্রসূতিকর্মী থাকা প্রয়োজন।

তিনি আরও বলেন, ধাত্রী পেশার প্রতি মানুষের প্রায়ই নেতিবাচক ধারণা থাকে। কারণ, সাধারণ প্রসূতিকর্মী, যাদেরকে গ্রামে 'দাই' বলা হয়, তাদের স্বাস্থ্যসেবা প্রশিক্ষণের অভাব থাকে।

বিএমএসের ভূমিকা সম্পর্কে হালিমা আক্তার বলেন, বর্তমানে দেশে শিক্ষাগত যোগ্যতা সমেত পর্যাপ্ত সংখ্যক লোকবল আছে যারা গর্ভধারণ ও সন্তান জন্মদানের সময়কার জটিলতা থেকে উদ্ভূত মৃত্যুর হার কমাতে সাহায্য করতে পারেন।

হোয়াইট রিবন অ্যালায়েন্স, বাংলাদেশের (ডব্লিউআরএ) জাতীয় সমন্বয়ক ফারহানা আহমেদ বলেন, গর্ভধারণ ও শিশু জন্মদান সংক্রান্ত জটিলতায় প্রতি দিন বিশ্বজুড়ে ৮০০ জন নারী ও মেয়ের মৃত্যু ঘটে। নারীদের স্বাস্থ্যসেবা উন্নয়নে কী কী ইতিবাচক ভূমিকা রাখতে পারে, তার একটি বৈশ্বিক চিত্র পাওয়ার এই কর্মসূচিতে প্রত্যেক নারীর মতামত আমলে নেওয়া হবে।

ডব্লিউআরএর এক বার্তায় বলা হয়েছে, 'নারীরা যা চান' কর্মসূচির উদ্দেশ্য হলো নারী স্বাস্থ্যসেবার মান, সাম্যতা ও মর্যাদার গুরুত্ব সম্পর্কে সচেতনতা তৈরি করা। তাদেরকে অধিকতর ভালো চিকিৎসা পাইয়ে দিতে সহায়তা করা। স্বাস্থ্যনীতি ও প্রকল্পের মূলে তাদের চাহিদাকে স্থান দেওয়া।

বৈশ্বিক এই প্রচারণা কর্মসূচির পরিচালিত হচ্ছে ডব্লিউআরএ, পার্টনারশিপ ফর ম্যাটারনাল, নিউবর্ন অ্যান্ড চাইল্ড হেলথ, এভরি মাদার কাউন্টস, ইন্টারন্যাশনাল কনফেডারেশন অব মিডওয়াইভস ও এভিডেন্স বেইজড অ্যাকশনের সমন্বয়ে গঠিত একটি কমিটির নেতৃত্বে। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

ডাকসু না হওয়ায় নেতৃত্বের বিকাশ ঘটছে না

ডাকসু না হওয়ায় নেতৃত্বের বিকাশ ঘটছে না

 ডাকসু ভিপি ১৯৬৩-৬৪ জ্ঞান-বিজ্ঞান, শিল্প-সাহিত্য, মুক্তবুদ্ধি চর্চা, রাজনৈতিক কর্মী ও নেতৃত্ব ...

সব আন্দোলন সংগ্রামের কেন্দ্র ছিল ডাকসু

সব আন্দোলন সংগ্রামের কেন্দ্র ছিল ডাকসু

ডাকসু ভিপি ১৯৭০-৭১ আজকের এই স্মৃতিচারণ আমার ব্যক্তিগত কৃতিত্ব জাহির করার ...

খালেদা জিয়ার পায়ে ফোঁড়া

খালেদা জিয়ার পায়ে ফোঁড়া

পরোয়ানা থাকার পরও পায়ে ফোঁড়া ওঠায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে ...

গায়ে হলুদের রীতির প্রচলন যেভাবে

গায়ে হলুদের রীতির প্রচলন যেভাবে

বিয়ে মানেই বিরাট খাওয়াদাওয়া, সাজগোজ আর বিভিন্ন আচার-অনুষ্ঠান। গায়ে হলুদ ...

তবুও ছোট সংগ্রহ রাজশাহীর

তবুও ছোট সংগ্রহ রাজশাহীর

মার্শাল আইয়ুব এবং শাহরিয়ার নাফিজ রান পেয়েছেন। সৌম্য সরকার এবং ...

ঢাকা উত্তরের উপ-নির্বাচনে 'বাধা কাটল'

ঢাকা উত্তরের উপ-নির্বাচনে 'বাধা কাটল'

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র পদে উপ-নির্বাচন ও নতুন করে ...

বল এখন শাকিবের হাতে

বল এখন শাকিবের হাতে

‘আমরা যারা অভিনয় শিল্পী তাদের  মেকআপ করে ক্যামেরার সামনে দাঁড়াতে ...

রাজশাহীর দলে নেই সৌম্য-মুমিনুল

রাজশাহীর দলে নেই সৌম্য-মুমিনুল

বিপিএলের এবারের আসরে রাজশাহীর দল মোটামুটি স্থানীয় তরুণ ক্রিকেটারে ভরপুর। ...