নাশকতার চেষ্টা হলে কঠোর হাতে দমন: আইজিপি

প্রকাশ: ০৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

সমকাল প্রতিবেদক

পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী -ফাইল ছবি

নির্বাচন সামনে রেখে আন্দোলনের নামে অরাজকতা ও নাশকতার চেষ্টা হলে তা কঠোর হাতে দমন করা হবে বলে জানিয়েছেন পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী।

শনিবার 'বাংলাদেশ পুলিশ মেধাবৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠান' শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন। এ সময় আইজিপি বলেন, নির্বাচন ঘিরে যেন অরাজকতা ও নাশকতা না হয় সেজন্য পুলিশের যথাযথ প্রস্তুতি রয়েছে। কোনো হুমকি বরদাশত করা হবে না।

রাজধানীর মিরপুরের পুলিশ স্টাফ কলেজের পিএসসি কনভেনশন হলে এই বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন অতিরিক্ত আইজিপি (এইচআরএম) মহসিন হোসেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন রাজশাহী পুলিশ একাডেমির প্রিন্সিপাল মোহাম্মদ নজিবুর রহমান ও ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া। স্বাগত বক্তব্য দেন এআইজি (হেলথ অ্যান্ড এডুকেশন) তাপতুন নাসরীন।

আইজিপি মেধাবী শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে বলেন, শুধু পাঠ্যপুস্তকের মধ্যে নিজেদের জ্ঞান সীমাবদ্ধ রাখলে চলবে না; দেশকে ভালোবাসতে হবে, দেশ সম্পর্কে জানতে হবে।

পরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে আইজিপি বলেন, রাজনৈতিক নেতাকর্মীদের গ্রেফতারের সঙ্গে নির্বাচনের সম্পর্ক নেই। পুলিশ কখনও কোনো নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করে না। মামলার আসামি বা যাদের বিরুদ্ধে পরোয়ানা থাকে শুধু তাদের গ্রেফতার করা হয়। তাদের কী পরিচয় সেটা দেখা হয় না।

সম্প্রতি প্রকাশিত টিআইবির প্রতিবেদনে আইন-শৃঙ্খলা খাতে সবচেয়ে বেশি দুর্নীতির কথা বলা হয়েছে। এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে আইজিপি বলেন, টিআইবির রিপোর্ট গণমাধ্যমে যতটুকু প্রকাশ হয়েছে, সেটুকুই দেখেছেন। পুরোটা দেখেননি। এ বিষয়ে পুলিশ সদর দপ্তর থেকে একটি কমিটি করে দেওয়া হয়েছে। প্রতিবেদনটি কীভাবে করা হয়েছে তা দেখবে কমিটি। তার আগে এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করা ঠিক হবে না।

অনুষ্ঠানে ২০১৮ সালে এসএসসি/সমমানের পরীক্ষায় জিপিএ ৫ এবং ও লেভেল পরীক্ষায় পাঁচটি বিষয়ে এ-গ্রেড পাওয়া ৩৬১ মেধাবী শিক্ষার্থীকে মেধাবৃত্তি দেওয়া হয়। আইজিপি প্রত্যেক শিক্ষার্থীর হাতে সম্মাননা ক্রেস্ট, সার্টিফিকেট ও নগদ অর্থ তুলে দেন।