জাফরুল্লাহর নামে জিডি, তদন্ত শুরু ডিবির

প্রকাশ: ১৫ অক্টোবর ২০১৮     আপডেট: ১৫ অক্টোবর ২০১৮      

সমকাল প্রতিবেদক

ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী -ফাইল ছবি

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর বিরুদ্ধে ক্যান্টনমেন্ট থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়েছে। 

সেনা সদরে দায়িত্বরত মেজর এম রকিবুল আলম গত শুক্রবার ওই জিডি করেন। 

জিডিতে সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ সম্পর্কে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর বক্তব্যকে 'অসত্য ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত' হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।

ঢাকা মহানগর পুলিশের ডিসি (মিডিয়া) মাসুদুর রহমান সমকালকে বলেন, ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) দক্ষিণ বিভাগকে জিডি তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। এরই মধ্যে তদন্ত শুরুও হয়েছে।

জিডিতে বলা হয়েছে, সেনাবাহিনী স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বের প্রতীক। সময় টিভিতে ৯ অক্টোবর 'সম্পাদকীয়' শিরোনামের টকশোতে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলাসংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ মামলার রায়ের আগের রাতে হঠাৎ অপ্রাসঙ্গিকভাবে সেনাপ্রধান সম্পর্কে ডা. জাফরুল্লাহর প্রদত্ত বক্তব্য উদ্দেশ্য প্রণোদিত, বিদ্বেষপ্রসূত ও ষড়যন্ত্রমূলক-যা সেনাবাহিনীর মধ্যে অসন্তোষ সৃষ্টি তথা রাষ্ট্রদ্রোহিতার শামিল। তার মতো উচ্চ শিক্ষিত ব্যক্তি কেন, কী উদ্দেশ্যে, কাদের প্ররোচনায় এ ধরনের উদ্দেশ্যমূলক, বানোয়াট ও অসত্য বক্তব্য টকশোতে বলেছেন তা তদন্তের দাবি রাখে। 

জিডিতে বলা হয়েছে, এ বিষয়ে সেনাবাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনা ও নির্দেশক্রমে অভিযোগ দাখিল করতে কিছুটা দেরি হয়েছে। এতে তদন্ত করে জাফরুল্লাহসহ এ ঘটনার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে।

জিডিতে আরও বলা হয়েছে, সেনাবাহিনীর মতো সুশৃঙ্খল ও দেশপ্রেমিক বাহিনীর প্রধানের বিরুদ্ধে যাচাই না করে টকশোতে এ ধরনের উদ্দেশ্যমূলক ও মিথ্যা বক্তব্যের কারণে তাদের সুনাম ও ভাবমূর্তি জণগণের কাছে মারাত্মকভাবে ক্ষুন্ন হয়েছে। লাইভ টকশোতে জাফরুল্লাহর এ ধরণের উদ্দেশ্যপ্রণোনিত ও অসত্য বক্তব্য কেবলমাত্র সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদের সুনাম ও সামাজিক অবস্থানকে ক্ষুন্ন করেনি, বরং সেনাপ্রধানের সম্মানজনক পদকেও চরমভাবে হেয় প্রতিপন্ন করেছে। এ ধরনের বক্তব্য প্রকারান্তরে কর্মরত সেনাবাহিনীর সদস্যদের বিভ্রান্ত করছে এবং তাদের মনোবলের ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলছে। এই অপপ্রচার সেনাবাহিনীর মতো সুশৃঙ্খল বাহিনীর সংহতি ও একতাকে ক্ষতিগ্রস্ত করার উদ্দেশ্যে করা হয়েছে। জাফরুল্লাহ তার বক্তব্যের মাধ্যমে জণগণের মধ্যেও বিভ্রান্তিকর তথ্য ও উদ্দেশ্যমূলক গুজব ছড়িয়ে সেনাবাহিনী সম্পর্কে বিরূপ ও নেতিবাচক ধারনা সৃষ্টি করে দেশে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টি করার ষড়যন্ত্রে যুক্ত হয়েছেন বলে প্রতীয়মান হচ্ছে।

৯ অক্টোবর রাতে 'সময় টিভির' টকশোতে জাফরুল্লাহ চৌধুরী দাবি করেন, 'সেনা প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ যখন 'চট্টগ্রামের জিওসি' ছিলেন, সেখান থেকে 'সমরাস্ত্র ও গোলাবারুদ চুরি' যাওয়ার ঘটনায় তার 'কোর্ট মার্শাল' হয়েছিল।' এরপর বিষয়টি নিয়ে সেনা সদরের পক্ষ থেকে একটি প্রতিবাদলিপি পাঠানো হয়। 

প্রতিবাদলিপিতে বলা হয়, বর্তমান সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ চাকরিজীবনে কখনোই চট্টগ্রামের জিওসি বা কমান্ড্যান্ট ছিলেন না। তখন চট্টগ্রাম বা কুমিল্লা সেনানিবাসে কোনো সমরাস্ত্র বা গোলাবারুদ চুরি বা হারানোর ঘটনা ঘটেনি। জেনারেল আজিজ চাকরি জীবনে কখনো কোর্ট মার্শালের মুখোমুখিও হননি।

সেনাসদরের প্রতিবাদের পর গত শনিবার এক সংবাদ সম্মেলনে এসে জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, টেলিভিশনের আলোচনায় তার বক্তব্যে ভুল ছিল এবং সেজন্য তিনি দুঃখিত।

জিডিতে ২০০৩-১৮ সাল পর্যন্ত চট্টগ্রামের ২৪ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি হিসেবে যারা দায়িত্ব পালন করেছেন, তাদের সবার নাম উল্লেখ করা হয়েছে। তাতে দেখা যায়, কখনো বর্তমান সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ চট্টগ্রামের জিওসি ছিলেন না। তিনি ২০১০ সালের জুন থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত কুমিল্লায় ৩৩ আর্টিলারি ব্রিগেডের ব্রিগেড কমান্ডার, ২০১১-১২ সাল পর্যন্ত ঢাকায় মিরপুরে ৬ স্বতন্ত্র এডিএ ব্রিগেডের বিগ্রেড কমান্ডার এবং ২০১২ সালের মে থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত কুমিল্লা ৩৩ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। 

জিডিতে এ-ও বলা হয়, জাফরুল্লাহ'র বক্তব্য 'দায়িত্ব জ্ঞানহীন ও অসত্য'।

আরও পড়ুন

ট্রাম্প-কিম দ্বিতীয় বৈঠক ফেব্রুয়ারিতে

ট্রাম্প-কিম দ্বিতীয় বৈঠক ফেব্রুয়ারিতে

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম ...

বাংলাদেশ দূতাবাসে ভাঙচুর তদন্ত করছে কুয়েত

বাংলাদেশ দূতাবাসে ভাঙচুর তদন্ত করছে কুয়েত

বাংলাদেশ দূতাবাসে ভাঙচুর এবং কর্মকর্তাদের নির্যাতনের ঘটনা তদন্ত করছে কুয়েত ...

আজ ঢাকার সড়ক ব্যবস্থাপনা যেমন

আজ ঢাকার সড়ক ব্যবস্থাপনা যেমন

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলের নিরঙ্কুশ বিজয় উদযাপনে বিজয় সমাবেশ ...

আওয়ামী লীগের বিজয় সমাবেশ আজ

আওয়ামী লীগের বিজয় সমাবেশ আজ

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলের নিরঙ্কুশ বিজয় উদযাপনে বিজয় সমাবেশ ...

ইউএনও আসার খবরে বাবা-মেয়ে উধাও

ইউএনও আসার খবরে বাবা-মেয়ে উধাও

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার বড়গাঁও ইউনিয়নে বড়গাঁও গ্রামে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ...

ভূমির রাজস্ব যায় কই

ভূমির রাজস্ব যায় কই

ভূমি খাত থেকে আদায় হওয়া রাজস্বের একটি বড় অংশ সরকারি ...

ছয় বছরে প্রাণহানি ২৪০ নিখোঁজ দুই শতাধিক

ছয় বছরে প্রাণহানি ২৪০ নিখোঁজ দুই শতাধিক

২০১২ সালের ১২ মার্চ থেকে চলতি বছরের ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত ...

হাওরে পাখি নেই আগের মতো

হাওরে পাখি নেই আগের মতো

একসময় শীত এলেই পরিযায়ী পাখির কলরবে মুখর হতো নাসিরনগরের মেদীর ...