জাহাঙ্গীরনগরে ‘মুক্তিযুদ্ধের জন ইতিহাস’ শীর্ষক সম্মেলন অনুষ্ঠিত

প্রকাশ: ০৬ ডিসেম্বর ২০১৮      

অনলাইন ডেস্ক

সম্মেলনে আগত অতিথিরা

স্বাধীন বাংলাদেশের অভ্যুদয়ে অগণিত সাধারণ মানুষের রক্তক্ষয়ী সংগ্রাম ও আত্মত্যাগের ইতিহাস জানতে নতুন প্রজন্মের প্রতি আহবান জানিয়েছেন  বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান প্রফেসর আব্দুল মান্নান।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগ ও জন-ইতিহাস চর্চা কেন্দ্রের যৌথ আয়োজনে বুধবার সকালে জাবির জহির রায়হান অডিটোরিয়ামে 'মুক্তিযুদ্ধের জন- ইতিহাস' শীর্ষক আন্তর্জাতিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এই আহবান জানান।

সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন অর রশীদ বলেন, আমাদের ইতিহাস ও ভাষা গৌরবের, যা সবার সামনে তুলে ধরতে হবে। তাহলেই বাংলাদেশ সঠিক পথে চলবে ও উন্নয়ন হবে। 

কনফারেন্সে কিনোট বক্তৃতায় যুদ্ধশিশু গবেষক মোস্তফা চৌধুরী বলেন, এখন দেশে যেসব যুদ্ধশিশু আছে তাদের বয়স প্রায় ৪৬/৪৭ বছর হয়ে গেছে। কিন্তু এখনও যদি তারা লোকলজ্জার ভয়ে নিজেদেরকে আত্মগোপন করে রাখেন, তা জাতির জন্যই লজ্জার। তাদের খুঁজে বের করে সঠিক মূল্যায়ন করতে হবে। 

কনফারেন্সে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক ও জন ইতিহাস চর্চা কেন্দ্রের সভাপতি মেসবাহ কামাল বলেন, মুক্তিযুদ্ধের কৃষক, শ্রমিক বা নারী যোদ্ধাদের কাছ থেকে তাদের জীবদ্দশায় অনেক না জানা ইতিহাস সংগ্রহ করে তরুণ প্রজন্মের সামনে তুলে ধরতে হবে। না হলে মুক্তিযুদ্ধের অনেক জন-ইতিহাসই হারিয়ে যাবে। 

আন্তর্জাতিক এই কনফােেরন্সে ভারত ও বাংলাদেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ও প্রতিষ্ঠানের গবেষক, শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা চারটি কিনোট পেপার ও প্রায় ৪০টি গবেষণা প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন। এছাড়া অনুষ্ঠানের বিভিন্ন পর্যায়ে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের গণযোদ্ধা ও বীরঙ্গনাদের সংবর্ধনা জানানো হয়। মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস নিয়ে লোকগান পরিবেশন করেন লোককবি লাল মামুদ। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

আরও পড়ুন

'অপ্রতিরোধ্য বাংলাদেশ' গড়বে আওয়ামী লীগ

'অপ্রতিরোধ্য বাংলাদেশ' গড়বে আওয়ামী লীগ

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে দুই প্রধান জোটেই চলছে ...

ক্ষমতার ভারসাম্য চায় ঐক্যফ্রন্ট

ক্ষমতার ভারসাম্য চায় ঐক্যফ্রন্ট

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে দুই প্রধান জোটেই চলছে ...

যুদ্ধাপরাধীদের সন্তানরাও ভোটের লড়াইয়ে

যুদ্ধাপরাধীদের সন্তানরাও ভোটের লড়াইয়ে

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলার আসামি, যুদ্ধাপরাধে ...

সর্বাত্মক সঙ্গী সোভিয়েত ইউনিয়ন

সর্বাত্মক সঙ্গী সোভিয়েত ইউনিয়ন

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে ভারত প্রত্যক্ষভাবে সবচেয়ে বেশি সহযোগিতা করলেও ...

৩৬৫ দিনই পাশে

৩৬৫ দিনই পাশে

চলতি বছরের ৭ ডিসেম্বর। রাজবাড়ীর গোয়ালন্দের দৌলতদিয়া যৌনপল্লী থেকে জাতীয় ...

নির্বাচনের খরচে চোখ রাখছে দুদক

নির্বাচনের খরচে চোখ রাখছে দুদক

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চোখ এখন নির্বাচনী মাঠে। প্রচারণায় অস্বাভাবিক ...

বিএনপি কর্মীদের পিটুনিতে আ.লীগ নেতার মৃত্যু

বিএনপি কর্মীদের পিটুনিতে আ.লীগ নেতার মৃত্যু

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোটের প্রচারের দ্বিতীয় দিনে ফরিদপুর-৩ (সদর) ...

জনগণ স্বাধীনতার চেতনার পক্ষে ভোট দেবে: তোফায়েল

জনগণ স্বাধীনতার চেতনার পক্ষে ভোট দেবে: তোফায়েল

জনগণ স্বাধীনতার চেতনার পক্ষে ভোট দেবে বলে মন্তব্য করেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী ...