দুধ ও দুগ্ধজাত খাবার পরীক্ষা করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ

প্রকাশ: ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯     আপডেট: ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯      

সমকাল প্রতিবেদক

ঢাকাসহ সারা দেশের বাজারগুলোতে দুধ ও দুগ্ধজাত খাবারে কী পরিমাণ ভেজাল (ব্যাকটেরিয়া, কীটনাশক এবং সিসা) মেশানো হয়েছে তা পরীক্ষা করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। আগামী ১৫ দিনের মধ্যে বিএসটিআই, নিরাপদ খাদ্য ব্যবস্থাপনা সমন্বয় কমিটি ও জাতীয় নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যানসহ সংশ্লিষ্টদের এ আদেশ বাস্তবায়ন করতে বলা হয়েছে।

দুধ ও দুগ্ধজাত পন্যে ভেজাল নিয়ে একাধিক জাতীয় দৈনিকে এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন নজরে আনা হলে বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি এ কে এম হাফিজুল আলম সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ স্বপ্রনোদিত হয়ে সোমবার এ আদেশ দেন।

সরকারের জাতীয় নিরাপদ খাদ্য গবেষণাগারের (এনএফএসএল) এক প্রতিবেদনের ভিত্তিতে বিভিন্ন জাতীয় দৈনিকে সোমবার এ সংক্রান্ত খবর প্রকাশিত হয়।  

এ সময় আদালত উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, খাদ্যে ভেজাল মেশানোর কারণে মানুষের কিডনি ও লিভার নষ্ট এবং ক্যানসার হচ্ছে। খাদ্যে ভেজাল মেশানো ‘বড় ধরনের দুর্নীতি’ (সিরিয়াস করাপশন)। মানুষ এখন শুধু টাকার পেছনে ঘুরছে। দেশ ও মানুষ নিয়ে কেউ ভাবছেন না। স্বাস্থ্যই যদি ঠিক না থাকে, তাহলে এত টাকা-পয়সা দিয়ে হবেটা কী?

একই সঙ্গে দুধের সঙ্গে সিসা মিশ্রণকারীদের শাস্তির আওতায় আনতে ব্যর্থতা কেন বেআইনি বলে গণ্য হবে না- জানতে চেয়ে রুল জারি করেন আদালত। পাশাপাশি দুধ ও দুগ্ধজাত খাবারে ভেজাল মেশানোর সঙ্গে জড়িতদের আইনের আওতায় এনে তাদের সর্বোচ্চ শাস্তি (মৃত্যুদণ্ড) দেওয়ার নির্দেশ কেন দেওয়া হবে না- তাও জানতে চাওয়া হয়েছে। 

আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে খাদ্য সচিব, স্বাস্থ্য সচিব, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ সচিব, কৃষি সচিব, মন্ত্রিপরিষদ সচিব, নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ, কেন্দ্রীয় নিরাপদ খাদ্য ব্যবস্থাপনা সমন্বয় কমিটি, দুর্নীতি দমন কমিশন ও বিএসটিআই চেয়ারম্যানকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। মামলার পরবর্তী শুনানির জন্য আগামী ৩ মার্চ দিন নির্ধারণ রাখা হয়। 

এর আগে প্রকাশিত প্রতিবেদনগুলো আদালতের নজরে আনেন আইনজীবী সৈয়দ মামুন মাহবুব। এ সময় রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক।

আদেশের পর মামুন মাহবুব সাংবাদিকদের বলেন, দুধ ও দুগ্ধজাত খাদ্যে ভেজাল মেশানো এবং তা বাজারজাত করাকে আদালত ‘সিরিয়াস করাপশন’ বলে মন্তব্য করেছেন। এ বিষয়ে অনুসন্ধান, তদন্ত করে ভেজালকারীদের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নিতে দুদককে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 

বিষয় : দুধ ও দুগ্ধজাত খাবার ভেজাল প্রতিবেদন দাখিল হাইকোর্ট