বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে এখন আর খালেদা ভ্যাকেশন হয় না: শামীম

প্রকাশ: ০৩ মে ২০১৯     আপডেট: ০৩ মে ২০১৯      

সমকাল প্রতিবেদক

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অমর একুশে হল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন আয়োজিত দ্বিতীয় পুনঃর্মিলনী অনুষ্ঠানের আলোচনা সভায় বক্তৃতা করছেন পানিসম্পদ উপমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এ কে এম এনামুল হক শামীম -সমকাল

‘এক সময় বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে আমরা এরশাদ ভ্যাকেশন, খালেদা ভ্যাকেশন দেখেছি। তাদের ছাত্র সংগঠনগওলোর তাণ্ডবলীলা দেখেছি। কিন্তু গত ১০ বছরে শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সময়ে একদিনের জন্যও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ হয়নি। দেশের কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে এখন আর এরশাদ ভ্যাকেশন, খালেদা ভ্যাকেশন হয় না।’

শুক্রবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অমর একুশে হল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন আয়োজিত দ্বিতীয় পুনঃর্মিলনী অনুষ্ঠানের আলোচনা সভায় পানিসম্পদ উপমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এ কে এম এনামুল হক শামীম এসব কথা বলেন। 

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছাত্রলীগকে সন্ত্রাস ও তাণ্ডবের কেন্দ্রবিন্দু হিসেবে প্রতিষ্ঠা করেননি। বরং সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের সঙ্গে আমাদের কোন নেতাকর্মী বিন্দুমাত্রও জড়িত হলে, আমরা তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছি। 

ছাত্রজীবনে রাজনীতির কথা স্মরণ করে আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক শামীম বলেন, আমি যেদিন জাকসুর ভিপি নির্বাচিত হই তার আগের রাতেও আমার বিছানাপত্রে আগুন দিয়েছিল তৎকালীন সরকারের ছাত্রসংগঠনের নেতারা। কিন্তু কখনোই আমাদের ছাত্র-ছাত্রীদের মন থেকে দূরে রাখতে পারেনি। তাই বিপুল ভোটের ব্যবধানে আমি ভিপি নির্বাচিত হয়েছিলাম। 

এসময় তিনি ছাত্রদের এদেশের কল্যাণে, মানুষের কল্যাণে কাজ করার আহবান জানান। 

অনুষ্ঠানে হলের আবাসিক ১০ গরীব ও মেধাবী ছাত্রের মাঝে অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে নগদ অর্থ সহায়তা করা হয়। 

এর আগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ আখতারুজ্জামান পুনঃর্মিলনীর আয়োজনের উদ্বোধন করেন। 

অমর একুশে হলের সাবেক ছাত্র ও বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এইচ এম বদিউজ্জামান সোহাগের সভাপতিত্বে অন্যা্ন্যদের মধ্যে অমর একুশে হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মোঃ আনোয়ারুল ইসলাম এবং একুশে হলের সাবেক ছাত্র ও ভূতত্ত্ব বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

বিষয় : এ কে এম এনামুল হক শামীম