ভূমধ্যসাগরে ৩৭ মৃত্যু: জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা জানতে চান হাইকোর্ট

প্রকাশ: ২৪ জুন ২০১৯     আপডেট: ২৪ জুন ২০১৯      

সমকাল প্রতিবেদক

সম্প্রতি লিবিয়া থেকে ইতালি যাওয়ার পথে তিউনিসিয়ার উপকূলে ভূমধ্যসাগরে নৌকাডুবিতে ৩৭ বাংলাদেশির মৃত্যর ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে কী ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে তা এক সপ্তাহের মধ্যে জানাতে বলেছেন হাইকোর্ট। বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ সোমবার রাষ্ট্রপক্ষকে এ নির্দেশ দেন। একই সঙ্গে এ সংক্রান্ত রিটের শুনানি এক সপ্তাহ মুলতবি রাখা হয়।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ বি এম আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ। রিট আবেদনের পক্ষ ছিলেন আইনজীবী মোহাম্মদ এমদাদুল হক সুমন।

পরে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ বি এম আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ সাংবাদিকদের বলেন, জড়িতদের বিষয়ে কী পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে তা এক সপ্তাহের মধ্যে জানাতে নির্দেশ দিয়েছেন। এ কাজের সঙ্গে জড়িত সিলেট ও নোয়াখালীর ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের লাইসেন্স আছে কিনা এবং তাদের বিরুদ্ধে আইনগত পদক্ষেপের বিষয়টি জানাতে হবে।

এর আগে ১৬ জুন ওই ঘটনায় যারা নিহত হয়েছেন তাদের প্রত্যেকের পরিবারের জন্য এক কোটি টাকা করে ক্ষতিপূরণ এবং ওই ঘটনা তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশনা চেয়ে রিটটি করেন সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী এমদাদুল হক সুমন।

রিট আবেদনের সূত্রে জানা গেছে, ৩৭ বাংলাদেশির মৃত্যুর বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বিবাদীদের বরাবর আইনি নোটিশ পাঠান আইনজীবী এমদাদুল হক সুমন। কিন্তু নোটিশের কোনো জবাব না পেয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন যুক্ত করে রিট আবেদন করেন তিনি।