জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের নতুন চেয়ারম্যান নাছিমা বেগম

প্রকাশ: ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯      

সমকাল প্রতিবেদক

নাছিমা বেগম

জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের নতুন চেয়ারম্যান হিসেবে সাবেক সিনিয়র সচিব নাছিমা বেগমকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে কমিশনে একজন সার্বক্ষণিক সদস্য এবং পাঁচজন অবৈতনিক সদস্য নিয়োগ দেওয়া হয়। রাষ্ট্রপতির অনুমোদনক্রমে রোববার আইন মন্ত্রণালয় (লেজিসলেটিভ ও সংসদ বিষয়ক বিভাগ) থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। নবনিযুক্তরা সোমবার কাজে যোগ দেবেন। 

কমিশনের অপর সদস্যরা হলেন- সাবেক সচিব ড. কামাল উদ্দিন আহমেদ (সার্বক্ষণিক), অ্যাডভোকেট তৌফিকা আফতাব, রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান চিংকিউ রোয়াজা, সাবেক জেলা ও দায়রা জজ জেসমিন আরা বেগম, জেলা ও দায়রা জজ মিজানুর রহমান খান এবং সাবেক সচিব ড. নমিতা হালদার।

তিন বছর মেয়াদে নবনিযুক্ত মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগের একজন বিচারপতির মর্যাদায় বেতন, ভাতা ও অন্যান্য সুবিধাদি পাবেন। অবৈতনিক সদস্যরা কমিশনের সভায় যোগদানসহ অন্যান্য দায়িত্ব সম্পাদনের জন্য কমিশনের নির্ধারিত হারে সম্মানী ও ভাতা পাবেন। 

নাছিমা বেগম সর্বশেষ মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব ছিলেন। এর আগে তিনি সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। 

গত ২ আগস্ট কাজী রিয়াজুল হকের তিন বছরের মেয়াদ শেষ হওয়ায় জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যানের পদটি শুন্য হয়। 

এরপর গত ১৯ সেপ্টেম্বর কমিশনের চেয়ারম্যান ও সদস্য পদে নিয়োগ সংক্রান্ত বাছাই কমিটির বৈঠকে এই তালিকা চূড়ান্ত করা হয়। সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত ওই বৈঠকে বাছাই কমিটির প্রধান জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে কমিটির অন্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। 

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় ২০০৮ সালের ১ ডিসেম্বর এক অধ্যাদেশের মাধ্যমে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন গঠন করা হয়। ২০১০ সালের ১৪ জুলাই সংসদে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন আইন পাস হয়।