সম্প্রীতি সৃষ্টিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে দুর্গাপূজা: রাষ্ট্রপতি

প্রকাশ: ০৫ অক্টোবর ২০১৯   

 অনলাইন ডেস্ক

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ       -ফাইল ছবি

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ -ফাইল ছবি

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বলেছেন, দুর্গাপূজা শুধু ধর্মীয় উৎসব নয়, এটি দেশবাসীর মধ্যে ঐক্য ও পারস্পরিক সম্প্রীতি সৃষ্টিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। দেশের সার্বিক অগ্রগতির সঙ্গে ঐতিহ্য ও সংস্কৃতিকে এগিয়ে নিতে ব্যক্তি ও সামাজিক জীবনে এ উৎসবের চেতনাকে কাজে লাগাতে হবে।

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজা উপলক্ষে শুক্রবার নগরীর বনানী পূজামণ্ডপে হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, সুখী-সমৃদ্ধ ও অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ে তুলতে সমাজ থেকে অসত্য, অবিচার ও অন্যায় দূর করতে দুর্গাপূজার চেতনা কাজে লাগাতে হবে। বাংলাদেশ ধর্মীয় সম্প্রীতির অনন্য দৃষ্টান্ত। এ দেশে সব ধর্মের মানুষ সুদীর্ঘকাল ধরে অত্যন্ত আন্তরিক পরিবেশে তাদের ধর্মীয় উৎসব পালন করে আসছে।

এর আগে সেখানে রাষ্ট্রপতিকে স্বাগত জানান ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম, সংসদ সদস্য ও চলচ্চিত্র অভিনেতা আকবর হোসেন পাঠান (ফারুক), সর্বজনীন পূজা ফাউন্ডেশনের সভাপতি সুবল চন্দ্র্র দাস। রাষ্ট্রপতি এ সময় 'বোধন' প্রকাশনার মোড়কও উন্মোচন করেন।

এর আগে শুক্রবার বিকেলে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ রামকৃষ্ণ মঠ ও মিশন এবং ঢাকেশ্বরী মন্দিরের পূজামণ্ডপ পরিদর্শন করেন। ঢাকেশ্বরী পূজামণ্ডপে পৌঁছলে সেখানে রাষ্ট্রপতিকে স্বাগত জানান খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার, স্থানীয় সরকার প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র সাঈদ খোকন, হাজী মোহাম্মদ সেলিম এমপি, সাবেক এমপি মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন ও বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি মিলন কান্তি দত্ত।

রামকৃষ্ণ মঠ ও মণ্ডপে রাষ্ট্রপতিকে স্বাগত জানান কাজী ফিরোজ রশীদ এমপি, রামকৃষ্ণ মিশনের ম্যানেজার স্বামী সর্বতীতানন্দ ও ডিএসসিসি মেয়র সাঈদ খোকন।

এসব পূজামণ্ডপে উৎসব উদযাপন কমিটির পক্ষ থেকে রাষ্ট্রপতিকে ক্রেস্ট ও উত্তরীয় উপহার দেওয়া হয়।